About Us
Md Mehedi Sheikh - (Chattogram)
প্রকাশ ১৯/০৭/২০২১ ০৮:০৪পি এম

মেসির আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ খারিজ

মেসির আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ খারিজ Ad Banner
একের পর এক সুখবর দিচ্ছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। সদ্যই আর্জেন্টিনার জার্সিতে আরাধ্য কোপার ট্রফিটা মেসির হাতে উঠেছে। হৃদয় জুড়িয়েছেন ভক্তদের। এবার আরেক সুখর। বার্সার সঙ্গে চুক্তির ঝামেলা শেষ করার পর এক আইনি ঝামেলা থেকেও মুক্তি মিলছে তারকা ফুটবলারের। মেসির বিরুদ্ধে গতবছর আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করেন ফেডেরিকো রেত্তোরি নামে এক আর্জেন্টাইন নাগরিক। স্পেনে বসবাস করা রেত্তোরির দাবি, তিনি মেসির স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায় কাজ করতেন। ওই সংস্থা যে অর্থ পেত সরাসরি তা দান করে দেওয়ারই নিয়ম। কিন্তু অনুদান পাওয়া অর্থ ব্যাংকে ঢুকত কিংবা মেসির ব্যক্তিগত কাজে খরচ হতো।

কিন্তু এই অভিযোগের কোনো প্রমাণ পায়নি আদালত। রেত্তোরিও প্রমাণ দেখাতে ব্যর্থ হন। তাই স্পেনের আদালত ওই অভিযোগটি খারিজ করে দেয়। এর আগে ২০১৯ সালেও একই অভিযোগ করেছিলেন রেত্তোরি। সেবারও পাত্তা পাননি। শুধু তাই নয়, রেত্তোরি যে মেসির সংস্থায় কাজ করতেন এমন কোনো প্রমাণও মেলেনি। এদিকে মেসি ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাওয়া তাকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন মেসিভক্তরা। কারণ খারাপ সময় পার করছে বার্সেলোনা। শিরোপা খরা তো আছেই, সঙ্গে আছে ফিন্যানশিয়াল ফেয়ার প্লের নজরদারি। এমন পরিস্থিতিতে মেসি কম বেতনে দলে না টানলে নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হতো ক্লাবটিকে। সে জায়গায়ই মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন তাদের ইতিহাস সেরা ফুটবলার।

ঘরের ছেলে রাজি হয়েছেন ঘরে থাকতে। সেটাও চরম মাত্রার ত্যাগ স্বীকারে। পারিশ্রমিক কমিয়ে শুধু ভালোবাসার টানে এমন দৃষ্টান্ত আর দুটি আছে কি? এর আগে মৌসুম প্রতি মেসি নিতেন ৭৫ মিলিয়ন ইউরো। আর নতুন চুক্তিতে অর্থের পরিমাণ ৩৮ মিলিয়ন। ভক্ত বা নিন্দুকের মুখে লিওনেল মেসির নাম আসলে সেখানে উচ্চারিত হবে সময়ের আরেক সেরা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর নামও। অর্জন আর সাফল্যে এই দুজনের মধ্যে কার পাল্লা ভারী আর কে সেরা এ নিয়ে তর্ক-বিতর্ক চলছে, চলবেই। এ এমন এক বিষয় যার শেষ বলে কিছু নেই।

সেই আলোচনায় যুক্ত হলো নতুন এক অধ্যায়। কারণ, এবার আরেক লড়াইয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে পেছনে ফেললেন লিওনেল মেসি। যদিও এটা মাঠের কোনো লড়াই না, যেটা হয়েছে সেটা ভার্চুয়াল জগতে। ইন্সটাগ্রামে বরাবরই সরব সিআর সেভেন। এই প্ল্যাটফর্মে প্রতি পোস্টের জন্য রোনালদো আয় করেন ১৬ লাখ ডলার। ইন্সটাতে এই পর্তুগিজ তারকার ফলোয়ার সাড়ে ৩১ কোটি। ফলোয়ার সংখ্যায় যেখানে রোনালদোর ধারে কাছেও কেউ নেই। বার্সেলোনার তারকা লিওনেল মেসির ফলোয়ার প্রায় সাড়ে ২৩ কোটি।

৮ কোটি কম ফলোয়ার সত্ত্বেও রোনালদোকে এবার পেছনে ফেলেছেন মেসি। আর সেটা এক পোস্টে সবচেয়ে বেশি লাইকের রেকর্ড। গত বছরের নভেম্বরে ফুটবল ঈশ্বর দিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্যুর পর এই কিংবদন্তিকে নিয়ে রোনালদোর দেওয়া পোস্টে লাইক দেন এক কোটি ৯৮ লাখ ফলোয়ার। ইন্সটাগ্রামে খেলাবিষয়ক কোনো পোস্টে এটাই ছিল সর্বাধিক লাইকের রেকর্ড। তবে এবার মেসি সেটা করে নিলেন নিজের নামে। জাতীয় দলের হয়ে স্বপ্নের শিরোপা জয়ের পর, ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানিয়ে সেই ট্রফি হাতে মেসি ছবি দেন ইন্সটাগ্রামে, যা মুহূর্তেই হয় ভাইরাল। আর ভক্তদের ভালোবাসায় রোনালদোকে হারিয়ে দেন মেসি। পোস্ট করার ছয় দিনের মধ্যে ছবিটিতে লাইক দেন ২ কোটি ভক্ত। সর্বকালের অন্যতম সেরা এই দুই ফুটবলারের লড়াই শুধু খেলার মাঠেই না চলতে থাকুক ভার্চুয়াল জগতেও।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ