About Us
Rakib Monasib
প্রকাশ ১৬/০৬/২০২১ ১২:৪৮পি এম

রোনালদোর জোড়া গোলে ইউরোয় জয় পর্তুগালের

রোনালদোর জোড়া গোলে ইউরোয় জয় পর্তুগালের Ad Banner

পর্তুগালের একের পর এক আক্রমণ রুখে দিয়ে মূল্যবান পয়েন্ট তুলে নেওয়ার আশা দেখছিল হাঙ্গেরি। কিন্তু, শেষের কয়েক মিনিটে বদলে গেল চিত্র। সৌভাগ্যের ছোঁয়ায় শিরোপাধারীরা এগিয়ে যাওয়ার পর জোড়া গোল করলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। স্বস্তির জয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপা ধরে রাখার অভিযান শুরু করল ফের্নান্দো সান্তোসের দল।

বুদাপেস্টের পুসকাস অ্যারেনায় মঙ্গলবার ‘এফ’ গ্রুপের ম্যাচে ৩-০ গোলে জিতেছে পর্তুগাল। রাফায়েল গেরেইরোর গোলে এগিয়ে গিয়েছিল তারা।

দলের জয়ের দিনে একাধিক রেকর্ড গড়েছেন রোনালদো। জার্মানির বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগারকে ছাড়িয়ে ইউরোপের খেলোয়াড়দের মধ্যে মেজর টুর্নামেন্টে (বিশ্বকাপ, ইউরো) সবচেয়ে বেশি ম্যাচ (৩৯) খেলার রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন তিনি। ইউরোর মূল পর্বে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডে ছাড়িয়ে গেছেন ফ্রান্স কিংবদন্তি মিশেল প্লাতিনিকে। গড়েছেন প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ইউরোর ভিন্ন পাঁচ আসরে খেলার কীর্তিও। 

৬০ হাজারের বেশি দর্শক এ দিন গ্যালারিতে বসে খেলা দেখার সুযোগ পান। বল দখলে শুরু থেকে আধিপত্য করা পর্তুগাল পঞ্চম মিনিটে প্রথম সুযোগ পায়। ডি-বক্সের ভেতর থেকে দিয়োগো জটার বাঁ পায়ের শট ঠেকিয়ে জাল অক্ষত রাখেন গোলরক্ষক পেতার গুলাসি।

অষ্টাদশ মিনিটে রোনালদোর উদ্দেশে লম্বা করে বল বাড়ান পেপে। ওয়ান-অন-ওয়ানে পর্তুগাল অধিনায়কের শট ফিরিয়ে দেন গুলাসি। ৪১তম মিনিটে জটার আরেকটি প্রচেষ্টা ফেরান তিনি।

দুই মিনিট পর প্রথমার্ধের সবচেয়ে সহজ সুযোগটা পান রোনালদো। জটা দারুণ ক্রস বাড়ান ডি-বক্সে। কিন্তু চার গজ দূর থেকে অবিশ্বাস্যভাবে ভলিতে বল উড়িয়ে মারেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে আরেকটি দারুণ সেভ করেন গুলাসি। ব্রুনো ফের্নান্দেসের ক্রসে পেপের হেড ফিরিয়ে দেন তিনি।

৬৭তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগ পান ফের্নান্দেস। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই মিডফিল্ডারের শট কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন গুলাসি।

৮০তম মিনিটে হাঙ্গেরির সাবোচ শুনের বল জালে পাঠিয়ে উৎসবে মেতেছিলেন। কিন্তু বল রিসিভ করার সময় অফসাইডে ছিলেন তিনি। শেষ দিকে আট মিনিটের মধ্যে তিন গোল করে সব অনিশ্চয়তার ইতি টানে পর্তুগাল।

৮৪তম মিনিটে পাওয়া প্রথম গোলে ছিল ভাগ্যের ছোঁয়া। ডি-বক্সে গেররেইরোর শট প্রতিপক্ষের এই ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে দিক পাল্টে জালে জড়ায়।

দুই মিনিট পর সফল স্পট-কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রোনালদো। রাফা সিলভা ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হওয়ায় পেনাল্টি পেয়েছিল তারা। যোগ করা সময়ে রাফার সঙ্গে ওয়ান-টু খেলে কাছ থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ৩৬ বছর বয়সী তারকা।

ইউরোর মূল পর্বে রোনালদোর গোল হলো ১১টি। দেশের হয়ে ১৭৫ ম্যাচে তার গোল ১০৬টি। আর ৩টি হলে ইরানের আলি দাইয়ের গড়া আন্তর্জাতিক ফুটবলে ১০৯ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করবেন তিনি।

নিজেদের পরের ম্যাচে আগামী শনিবার জার্মানির মাঠে খেলবে পর্তুগাল। একই দিন ঘরের মাঠে ফ্রান্সের মুখোমুখি হবে হাঙ্গেরি।



শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ