About Us
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১
SULTAN MAHAMUD - (Dhaka)
প্রকাশ ০৮/০৬/২০২১ ০১:৪৪পি এম

বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জেনারেটর ৬ বছর ধরে বিকল

বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জেনারেটর ৬ বছর ধরে বিকল Ad Banner

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০১৩ সালে স্থাপনের মাত্র ১ বছরের মাথায় নষ্ট হয়েছে জেনারেটর। ৬ বছর ধরে বিকল জেনারেটর মেরামত না করায় বিদ্যুত বিভ্রাট হলেই সীমাহীন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন চিকিৎসক ও রোগীরা। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১৩ সালে ৩১ শয্যার বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫১ শয্যার কার্যক্রম শুরু হয়। এ সময় নতুন ভবনে একটি জেনারেটর স্থাপন করা হয়। মাত্র এক বছরের মাথায় জেনারেটর বিকল হয়ে যায়। এরপর থেকে রোগী ও চিকিৎসকরা সীমাহীন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। ইনডোর পরিদর্শনকালে একাধিক রোগী অভিযোগ করে জানান, বিদ্যুত চলে গেলেই ভোগান্তি শুরু হয়। রাতে রোগীদের মোমবাতি এনে আলো জ্বালাতে হয়। আর গরমে হাতপাখার ওপর ভরসা করতে হচ্ছে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্স নিজেদের মুঠোফোনের আলোয় দায়িত্ব পালন করেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক নার্স বলেন, ডেলিভারীর সময় বিদ্যুত চলে গেলে মহা বিপদে পড়তে হয়। তখন ওষুধের পুরানো কার্টন দিয়ে পাখা তৈরি করতে হয়। আর মুঠোফোনের আলোয় প্রসুতির ডেলিভারী করতে হয়। আউটডোর পরিদর্শনকালে জানা যায়, একাধিক চিকিৎসক নিজের টাকায় চার্জার ফ্যান ক্রয় করেছেন। বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক এএসএম সায়েম ও আকতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, বিদ্যুত চলে যাওয়ার পর অসহ্য গরমে টেকা দায়। তাই আমরা নিজের পকেটের পয়সায় চার্জার ফ্যান ক্রয় করে নিয়েছি। জেনারেটর বিকল থাকায় বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী প্রসূতি সেবা (ইওসি) বিভাগ চালু করা যাচ্ছে না। এ প্রসঙ্গে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.প্রশান্ত কুমার সাহা বলেন, নষ্ট জেনারেটর মেরামতের জন্য একাধিকবার পটুয়াখালী স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলীকে অবহিত করা হয়েছে।’


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ