About Us
Jiaur Rahman Joy - (Habiganj)
প্রকাশ ০১/০৫/২০২১ ০১:৩৮এ এম

হাওরের ধান দ্রুত কাটার আহবান

হাওরের ধান দ্রুত কাটার আহবান Ad Banner

আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী তিন দিনের মধ্যে বানিয়াচংয়ের হাওরের ধান কেটে ফেলার আহবান জানিয়েছে বানিয়াচং উপজেলা প্রশাসন। তাছাড়া ঘরের উপর ঝুঁকিপূর্ণ গাছ বা ডাল থাকলে তাও কেটে রাখার আহবান জানানো হয়েছে।

শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৪ টায় বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুদ রানা তার অফিসিয়াল ফেসবুক আইডিতে এ আহবান জানান। এছাড়াও যেকোনো জরুরি প্রয়োজনে উপজেলা প্রশাসন বা সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। তাঁর অফিসিয়াল ফেসবুক আইডিতে ইউএনও মাসুদ রানা লিখেছেন, ‘আগামী ৩ দিনের মধ্যে ঝড় ও শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। দ্রুত পাকা বোরো ধান কেটে ফেলুন। ঘরের উপরে ঝুঁকিপূর্ণ গাছ বা ডাল থাকলে কেটে ফেলুন। যে কোন জরুরি প্রয়োজনে উপজেলা প্রশাসন বানিয়াচং বা আপনার ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করুন।’

এদিকে শ্রমিক সংকটের কারণে জমিতে পাকা ধান নিয়ে বিপাকে পড়েছেন অনেক কৃষক। এবছর দেশের অন্যান্য অঞ্চল থেকে ধানকাটা শ্রমিক কম আসায় সময়মত পাকা ধান কাটতে পারছেন না কৃষকরা। অনেককে আবার বেশি টাকা দিয়ে ধান কাটাতে হচ্ছে। উপজেলার অনেক কৃষকই বলেন, ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে এবার। দামও বেশ ভালো। তবে শ্রমিক সংকটের কারনে পাকা ধান স্থানীয় শ্রমিক দিয়ে বেশি টাকা দিয়ে ধান কাটাতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, এক কানি জমির ধান কাটতে আমার গুনতে হচ্ছে ৩ থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা। তাও আবার চাহিদা অনুযায়ী শ্রমিক পাচ্ছি না।

একই সুরে কথা বলেন আদমখানির কৃষক শওকত আলী। তিনি বলেন, ২৪ কানি জমিতে বোরো ধানের আবাদ করেছি এবছর। ফলন ভালো হয়েছে। সবকটি জমির ধান পেকে গিয়েছে। তবে শ্রমিক সংকটের কারণে অধিকাংশ জমির ধান এখনও কাটতে পারছি না।

সময়মত ধান কেটে ঘরে তুলতে পারবেন কি না এ নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন কৃষকরা।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ