About Us
Nayan Das - (Rangpur)
প্রকাশ ০৮/০৪/২০২১ ০১:২৯পি এম

অজ্ঞান পাটির চক্রে পড়ে ৪ জন হাসপাতালে

অজ্ঞান পাটির চক্রে পড়ে ৪ জন হাসপাতালে Ad Banner

টাঙ্গাইল থেকে ট্রাকযোগে কুড়িগ্রাম বাড়িতে ফেরার পথে ৪ জন শ্রমিক অজ্ঞান পাটির চক্রে পড়ে সর্বস্ব হারিয়েছে। গতকাল বুধবার ৭ এপ্রিল সকালে আদমদীঘির ঢাকা-নওগাঁ রোডে সড়কের পাশে তাদের ফেলে রেখে ট্রাকটি পালিয়ে যায়। অসচেতন অবস্থায় চার শ্রমিক কে জনতা পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দিলে অসেচতন অবস্থায় উদ্ধার করে আদমদীঘি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল সাড়ে ৩ টায় ৪ জনের মধ্যে অজ্ঞাত একজন মারা যায়। যানা যায় তার বাড়ি গাইবান্দার পলাশ বাড়ি ।     

অপর তিন জন বর্তমানে সুস্থ্য রয়েছে। তারা হলেন নিলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার নিজসুন্দর পাকা গ্রামের মামিনুল ইসলামের ছেলে তবিবুর (১৮), কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার আরজি নিউওয়াশি গ্রামের ফরে উদ্দিনের ছেলে নুর হোসেন (৩৫) ও একই জায়গার দাবিছড়া গ্রামের মতিয়ার রহমান (৪৬)।  আদমদীঘি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অসুস্থ তবিবুর রহমান জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর এলাকায় একটি সিমেন্ট বোঝাই ট্রাকে অচেনা এক ব্যক্তিসহ আমরা চার শ্রমিক বাড়ির উদ্যেশে রওয়ানা দেই। পথিমধ্যে তারা সিরাজগঞ্জের পাপিয়া হোটেলে রাতের খাবার খাওয়ার পর অচেনা ওই ব্যক্তি ৪জন শ্রমিককে সেভেন আপ খাওয়ান। এরপর তারা ট্রাকে উঠার পর ক্রমেই অসেচতন হয়ে পড়লে তাদের নিকট থেকে ৪টি মোবাইল ফোন ও ১০ হাজার টাকা নিয়ে নেয়।   

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ জালাল উদ্দীন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে মামলা দায়ের করার প্রস্ততি চলছে।।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ