Thursday -
  • 0
  • 0
Samium Bashir Meraz
Posted at 10/01/2021 11:12:am

শ্রী বিজয়ার ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার, সন্ধান পাওয়া গেল যাত্রীর

শ্রী বিজয়ার ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার, সন্ধান পাওয়া গেল যাত্রীর

স্থানীয় সময় ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তার কাছে গতকাল শনিবার বিকেলে বিধ্বস্ত শ্রীবিজয়া এয়ার উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হয়। এতে ৬২ জন আরোহী ছিল। 

শ্রীবিজয়া এয়ারের মডেল বোয়িং ছিল ৭৩৭-৫০০। এটি জাকার্তা থেকে ওয়েস্ট কালিমান্তান প্রদেশের রাজধানী পনতিয়ানাকে যাচ্ছিল। বিবিসির খবরে বলা হয়, বিমানবন্দর থেকে উড়ানের চার মিনিট পর এটি রাডার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। 

এএফপির খবরে জানা যায়, উড়োজাহাজ বিধ্বস্তের এখনো কোন কারণ প্রকাশ্যে আসেনি। কর্তৃপক্ষ তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। তবে কোনো যাত্রী বেঁচে আছেন বলে তাঁরা আশা করছেন না।   

জাকার্তা পুলিশের মুখপাত্র ইয়ুসরি ইউনুস বলেন, আজ সকালে তাঁরা দুটি ব্যাগ উদ্ধার করেছেন। এর একটি ছিল যাত্রীর। আরেকটি ধ্বংসাবশেষ। যুদ্ধজাহাজ, হেলিকপ্টার ও ডুবুরিদের মাধ্যমে উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ বলে, উড়োজাহাজের আরোহীদের মধ্যে ৬২ জন যাত্রী ও ক্রু ছিলেন। তাঁদের মধ্যে ১০ জন শিশু ছিল। তারা সবাই ইন্দোনেশীয়। 

পনতিয়ানা বিমানবন্দরে আরোহীদের উদ্বিগ্ন স্বজনেরা গত রাত থেকেই অপেক্ষায় আছেন। তাঁদের একজন ইয়ামান জাই বলেন, উড়োজাহাজে তাঁর স্ত্রী ও তিন সন্তান ছিল। স্ত্রী তাঁকে সন্তানের একটি ছবি পাঠিয়েছিলেন। 

উদ্ধারকারী কর্মকর্তারা বলেন, তাঁরা সাগর ও আকাশপথে উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাবেন। উড়োজাহাজের অনুসন্ধানে সোনার রাডার ব্যবহার করা হচ্ছে।

ইন্দোনেশিয়ায়, ৯ জানুয়ারি ঘটনাস্থলে থাকা এএফপির সাংবাদিক জানান, ডুবুরিরা বিধ্বস্ত হয়েছে এমন কয়েকটি জায়গা কমলা রঙের বেলুন দিয়ে চিহ্নিত করে রাখা হয়েছে। নৌবাহিনী, পুলিশের শতাধিক সদস্য উদ্ধারকাজে নিয়োজিত রয়েছেন। 

ফ্লাইট ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট ফ্লাইটরাডার টোয়েন্টিফোর ডটকম জানিয়েছে, ভূমি থেকে তিন হাজার মিটারের বেশি ওপরে ওঠার পর এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে এর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। 

যুক্তরাষ্ট্রের উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িংয়ের তৈরি যে উড়োজাহাজটি নিয়ে সম্প্রতি সংকট দেখা দিয়েছে, সেটি বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স সিরিজের। ২০১৮ সালে এই সিরিজের একটি বিমান জাকার্তায় বিধ্বস্ত হয় এবং ১৮৯ জন মারা যান। সেটি ছিল লায়ন এয়ারের। কিন্তু গতকাল যেটি বিধ্বস্ত হয়েছে, সেটি বোয়িং ৭৩৭-৫০০ সিরিজের। এটির বয়স বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স সিরিজের চেয়ে বেশি। তবে ৭৩৭-৫০০ সিরিজের এই উড়োজাহাজের উড়ানসংক্রান্ত কোনো জটিলতা ছিল না।  সাগরে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের খোঁজ চলছে।  সাগরে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের খোঁজ চলছে। 

বিবিসির খবরে জানা যায়, জাভা সাগর উপকূলের পর্যটন দ্বীপের বাসিন্দারা বলেছেন, তাঁরা বেশ কিছু জিনিস খুঁজে পেয়েছেন। তাঁদের ধারণা এগুলো বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের। 

বিবিসির খবরে রেজিস্ট্রেশনের তথ্য অনুসারে আরও জানা যায়, উড়োজাহাজটি ২৬ বছরের পুরোনো বোয়িং ৭৩৭-৫০০। বিমানের প্রধান নির্বাহী জেফারসন ইরউইন বলেন, এটির অবস্থা খুব ভালো ছিল না। ভারী বৃষ্টির জন্য ৩০ মিনিট দেরিতে যাত্রা করেছিল উড়োজাহাজটি।  

এদিকে সর্বশেষ খবর মতে, ইন্দোনেশিয়ার ৬২ জন যাত্রীসহ একটি বোয়িং ৭৩৭ বিমান যেখানে বিধ্বস্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, সেই দুর্ঘটনাস্থলের সন্ধান পাওয়া গেছে। দেশটির নৌবাহিনী এই তথ্য জানিয়েছে। 

জাকার্তা পোস্টের খবরে বলা হয়, রাজধানী জাকার্তার কাছাকাছি জাভা সাগর থেকে দেহাংশ, পোশাকের টুকরা এবং ধাতব বস্তু পাওয়া গেছে। 

জাকার্তা পুলিশের মুখপাত্র ইউস্রি ইউনুস বলেন, সকালে আমরা দুইটি ব্যাগ পেয়েছি। এরমধ্যে একটিতে যাত্রীর জিনিসপত্র এবং অন্যটিতে দেহাংশ। 

দেশটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ওই বিমানের ৬২ জন যাত্রীর সবাই ইন্দোনেশিয়ান। এরমধ্যে ১০ জন শিশু রয়েছে। 

গতকাল শনিবার শ্রীবিজয়া এয়ারের বিমানটি রাজধানী জাকার্তার বিমানবন্দর ত্যাগের পরই বিমানের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। বিমানটি পশ্চিম কালিমান্তান প্রদেশের পনতিয়ানা বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছিল। 




শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ