Feedback

জাতীয়

সিলেটের বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের দায়ভার কার?

সিলেটের বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের দায়ভার কার?
November 20
01:05pm
2020
Shah alam Talukdar
Sylhet, Sylhet:
Eye News BD App PlayStore

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ আসনে বরাবরই সিলেট-১ সবচেয়ে জনপ্রিয় আসনের একটি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই আসনে যিনি পাশ করেন,তার দলই সরকার গঠন করে। পরবর্তীতে ঐ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে কাজ করেন।অন্যদিকে সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসেবেও যিনি সিলেট থেকে পাশ করেন তার জনপ্রিয়তাও অনেক থাকে। গত কয়েকদিন সিলেটের কুমারগাও নামক এলাকায় বিদ্যুৎ গ্রীডে ভয়াবহ আগুনের কারণে প্রায় টানা ৩ দিন পুরো সিলেট শহর অন্ধকারে নিমজ্জিত ছিলো। এই ঘটনার পর রিকভারি করতে এতো দেড়ি কেন হবে? অথবা এই ধরনের দূর্ঘটনা ঘটলে বিদ্যুৎ বিভাগ বিকল্প কি চিন্তা করে রেখেছেন তা জানাও জরুরি। প্রথমেই আসি সিটি করপোরেশনের বিষয় নিয়ে, সাধারণত বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের পর প্রথম যে সংকট দেখা দেয় তা হলো বাসা বাড়িতে পানির সংকট এবং এক পর্যায়ে তা তীব্র আকার ধারণ করে। মধ্যবিত্ত শ্রেণীর লোক,রাস্তায় লাইন দিয়ে দাড়াতে বিব্রত বোধ করেন কিন্তু বিগত কয়েক বছরে পেয়াজ কান্ড থেকে শুরু করলে অনেকেই লাইন ধরে হয়তো ইতিমধ্যে অভ্যস্ত হয়েছেন। তারপর প্রায় প্রতিটি মানুষের বাসায় ফ্রিজে অল্প-বিস্তর মাছ-মাংস থাকে। এই তিন দিনে অনেক ক্ষতি হয়েছে।কিন্তু সিটি করপোরেশনের এর পক্ষ থেকে মাইকিং এর ব্যাবস্থা অথবা দুই এক জায়গা ছাড়া বেশিরভাগ এলাকায় বিশুদ্ধ পানির ব্যাবস্থা করা হয়নি। 

একটি বিভাগীয় প্রধান শহরের যদি এই হাল হয় এবং এক্ষেত্রে বিদ্যুৎ খাতের কি অবস্থা তা নিশ্চয়ই আর বুঝিয়ে বলার কিছুই নেই। 

সাধারণ মানুষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন যারা দিনরাত পরিশ্রম করে বিদ্যুৎ ব্যাবস্থা স্বাভাবিক করতে চেষ্টা চালিয়ে গেছেন।আমারাও সাধুবাদ জানাই কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এই অবস্থা কেন হবে?  সিলেট-১ আসন থেকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা বাংলাদেশ সরকারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন,তাই দেশের উন্নয়নের জন্য তাদের অনেক কাজ করতে হয় এটা সত্যি কিন্তু বাংলাদেশের ৩০০ সংসদ সদস্যদের প্রথম এবং প্রধান দায়িত্ব তিনি যে এলাকা থেকে নির্বাচিত সেই এলাকার যাবতীয় সমস্যা আগে দূরীভুত করবেন।  সিলেট থেকে বিভিন্ন আমলে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে ছিলেন,মরহুম হুমায়ুন রশিদ চৌধূরী,মরহুম এম সাইফুর রহমান।পরবর্তীতে যথাক্রমে জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত এবং বর্তমানে জনাব ডাঃআব্দুল মোমেন। 

কিন্তু সিলেট শহরের কাঙ্খিত উন্নয়ন কি এখনো হয়েছে?বা তা যে গতিতে হওয়ার কথা ছিলো তাও কি হয়েছে?ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক প্রশস্তকরনের দাবি দীর্ঘদিনের। প্রায় প্রতিদিনই সেখানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হানী হয়।কিন্তু জন্মের পর থেকে এখন পর্যন্ত কেবল শুনেই এসেছি সড়ক বড় হবে কিন্তু কার্যত তার ধারেকাছেও নেই। 

যাই হোক, বিদ্যুৎ এই বিপর্যয়ে যারা দায়ী তাদেরকে দ্রুত চিহ্নিত করে বরখাস্ত করা হবে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা যদি কখনো ঘটে সেক্ষেত্রে সিলেট বাসীকে বিকল্প হিসেবে কি দেওয়া হবে, তা ভেবে রেখে পরিকল্পনা করা হবে, এটাই আপাতত কাম্য।    (মানবাধিকার কর্মী)

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

সরিষাবাড়ীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

সরিষাবাড়ীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে হাবিপ্রবির নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনে

অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে হাবিপ্রবির নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনে

কাকে কড়া ভাষায় শাসালেন শ্রীলেখা?

কাকে কড়া ভাষায় শাসালেন শ্রীলেখা?

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত আটক ১

ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত আটক ১

জামালপুরের ভ্যান চালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

জামালপুরের ভ্যান চালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

প্রতি ১০ মিনিটে একটি শিশু মারা যাচ্ছে ইয়েমেনে

প্রতি ১০ মিনিটে একটি শিশু মারা যাচ্ছে ইয়েমেনে

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

নারী থেকে "পুরুষ" হলেন হলিউড তারকা

নারী থেকে "পুরুষ" হলেন হলিউড তারকা

হিন্দি বলতে না পারায় সিনেমা থেকে বাদ দেন জন, তারই নায়িকা হয়ে বদলা নেন ক্যাটরিনা

হিন্দি বলতে না পারায় সিনেমা থেকে বাদ দেন জন, তারই নায়িকা হয়ে বদলা নেন ক্যাটরিনা

জেনে নিন কী কী গুণ রয়েছে গোলমরিচে

জেনে নিন কী কী গুণ রয়েছে গোলমরিচে

সর্বশেষ

জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে সরকার অপপ্রচার করছেলঃভিপি নূর

জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে সরকার অপপ্রচার করছেলঃভিপি নূর

শ্বশুরের অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রতিবন্ধি ছেলের বউকে নির্যাতন

শ্বশুরের অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রতিবন্ধি ছেলের বউকে নির্যাতন

শিখে নিন 'ইমিউনিটি বুস্টিং' চাটনি, টোম্যাটোর সঙ্গে বিশেষ সব্জি

শিখে নিন 'ইমিউনিটি বুস্টিং' চাটনি, টোম্যাটোর সঙ্গে বিশেষ সব্জি

শেরপুর জেলার সংবাদ

শেরপুর জেলার সংবাদ

মধুসূদন দে স্মৃতি ভাস্কর্য’র  একটি কান ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

মধুসূদন দে স্মৃতি ভাস্কর্য’র একটি কান ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

শীতকালে বাড়ে ধূলিকণার দূষণ, সাথে বাড়ছে ফুসফুসের নানা জটিলতা

শীতকালে বাড়ে ধূলিকণার দূষণ, সাথে বাড়ছে ফুসফুসের নানা জটিলতা

চব্বিশ ঘন্টায় সিলেটে ৩০ জনের করোনা শনাক্ত

চব্বিশ ঘন্টায় সিলেটে ৩০ জনের করোনা শনাক্ত

সগিরা মোর্শেদ হত্যা : মামলার বিচার শুরু

সগিরা মোর্শেদ হত্যা : মামলার বিচার শুরু

ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল কিনবে সরকার

ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল কিনবে সরকার

কী খাচ্ছেন? মধু নাকি সিরাপ

কী খাচ্ছেন? মধু নাকি সিরাপ

নতুন সাফল্য নাসার বিজ্ঞানীদের, মহাশূন্যে মুলোচাষ, পৃথিবীতেও আসবে নমুনা

নতুন সাফল্য নাসার বিজ্ঞানীদের, মহাশূন্যে মুলোচাষ, পৃথিবীতেও আসবে নমুনা

সৌদি আরবে করোনায় ৯৮০ বাংলাদেশির মৃত্যু

সৌদি আরবে করোনায় ৯৮০ বাংলাদেশির মৃত্যু

সৈয়দপুরে বড় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ছোট ভাই নিহত

সৈয়দপুরে বড় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ছোট ভাই নিহত

সিলেটে মাত্র ১৫ মিনিটে হবে করোনা পরীক্ষা!

সিলেটে মাত্র ১৫ মিনিটে হবে করোনা পরীক্ষা!

ভাব

ভাব