Feedback

জাতীয়, আরও...

ধর্ষণ তো দূরের কথা, আড়চোখে তাকাবে এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই

ধর্ষণ তো দূরের কথা, আড়চোখে তাকাবে এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই
September 28
03:16pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের দাবি, নারীর প্রতি আড়চোখে তাকাবে এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই। রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনুষ্ঠিত এক বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এসব বলেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক। ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের সভাপতিত্বে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে বিক্ষোভ সমাবেশটি আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। 

এসময় ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে ঢাবির এক শিক্ষার্থীসহ সারা দেশে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে ত্রিশ দিনের মধ্যে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানায় ছাত্রলীগ। এসময় লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘ধর্ষণ তো দূরের কথা, কেউ নারী সমাজের প্রতি বিন্দুমাত্র আড়চোখে তাকানোর সাহস করে, এমন কোনো কর্মী বাংলাদেশ ছাত্রলীগে নেই। সিলেটের এমসি কলেজের ধর্ষণের ঘটনায় সবার আগে কে আন্দোলন করেছে? সবার আগে ছাত্রলীগ সেখানে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলেছে। যতক্ষণ পর্যন্ত ওই ধর্ষকদের বিচার না হবে, তারা কিন্তু আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে।’ 

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘নুর ডাকসুর সাবেক সব ভিপির মর্যাদাহানি করেছে। সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় একজন ছাত্রীকে ‌‘পতিতা’ ডেকেছে। এই ধর্ষকের কোনো দল নেই। তারা ধর্ষণও করবে, আবার আন্দোলনও করবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন ইতিহাস নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নাটক করেছে সে। গুজবের মাধ্যমে ভিপি পদ বাগিয়ে নেয়া নুরের মুখোশ উন্মোচন হয়েছে।’ সিলেটে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের কেউ ছাত্রলীগের নয় বলে মন্তব্য করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, ‘সিলেটের এমসি কলেজে যারা ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে, তারা কেউ ছাত্রলীগ হতে পারে না।

আপনারা জানেন, এই ঘটনায় সিলেটের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলেছে। যারা ধর্ষণ করেছে, তারা যদি ছাত্রলীগ হয় তবে যারা আন্দোলন করেছে, তারা কারা?’ নুরুল হক নুরকে উদ্দেশ করে ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, ‘আপনি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। আপনি বিভিন্ন জায়গায় বলে বেড়াচ্ছেন, আমি নাকি এই ঘটনার সাথে লিপ্ত। আপনি একটা পাগল, আপনি মানসিক বিকারগ্রস্ত। আপনার মানসিক চিকিৎসা প্রয়োজন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রীর ধর্ষণের বিচারের জন্য যদি আমি মামলা করতে পারতাম, আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করতাম।’  ডাকসুর সাবেক এজিএস এবং ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘সিলেট এমসি কলেজের ঘটনা পত্রিকার লিড রিপোর্ট হবে আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনা নিম্নমানের কাভারেজ পাবে, তা কেন? গণমাধ্যমের কাছে অনুরোধ সব ঘটনা যেন সমান গুরুত্ব পায়।’  তিনি বলেন, ‘ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড চাই- শুধু এটুকু বলেই আত্মতৃপ্ত হওয়ার সুযোগ নেই। বরং নারীর ওপর অপরাধের শর্ত তৈরি করে যে সমাজ, সেই সমাজকে ছিন্নভিন্ন করে দিতে হবে।’ এ সময় অনতিবিলম্বে সব ধর্ষণ ঘটনার দ্রুততম সময়ে বিচার দাবি করেন সাদ্দাম হোসেন।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুলাউড়ার রবিরবাজারে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ হারালো শিশু

কুলাউড়ার রবিরবাজারে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ হারালো শিশু

প্রেম করে  বিয়ে,পরকীয়া করে সন্তানসহ টাকা নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী

প্রেম করে বিয়ে,পরকীয়া করে সন্তানসহ টাকা নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী

কবরস্থানে নড়ে  ওঠা সেই শিশু মারা গেছে

কবরস্থানে নড়ে ওঠা সেই শিশু মারা গেছে

স্ত্রীর কাছ থেকে তালাকের নোটিশ পেয়ে  দুধ দিয়ে গোসল করলেন স্বামী

স্ত্রীর কাছ থেকে তালাকের নোটিশ পেয়ে দুধ দিয়ে গোসল করলেন স্বামী

তাড়াইলে জাতীয় পার্টির নেতা ইয়াবাসহ আটক

তাড়াইলে জাতীয় পার্টির নেতা ইয়াবাসহ আটক

বরিশালে অচেতন অবস্থায় নারী কর্মকর্তাকে নদী থেকে উদ্ধার

বরিশালে অচেতন অবস্থায় নারী কর্মকর্তাকে নদী থেকে উদ্ধার

নবাবগঞ্জে প্রেমিকের বাড়িতে টিভি দেখতে গিয়ে একাধিক বার ধর্ষণের শিকার কলেজ ছাত্রী

নবাবগঞ্জে প্রেমিকের বাড়িতে টিভি দেখতে গিয়ে একাধিক বার ধর্ষণের শিকার কলেজ ছাত্রী

পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দেখে এগিয়ে যেতেন ভুয়া ওসি

পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দেখে এগিয়ে যেতেন ভুয়া ওসি

ভোতা অস্ত্রের আঘাতে রায়হানের  মৃত্যু হয়েছে

ভোতা অস্ত্রের আঘাতে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ আরও ঘণীভূত নিম্নচাপে রূপ নেওয়ার আশঙ্কা

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ আরও ঘণীভূত নিম্নচাপে রূপ নেওয়ার আশঙ্কা

মিঠাপুকুরে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে ৩লক্ষাধিক টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগ

মিঠাপুকুরে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে ৩লক্ষাধিক টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগ

ঢাকা থেকে রোম সরাসরি একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স

ঢাকা থেকে রোম সরাসরি একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স

যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানকে ডিবি পরিচয়ে  তুলে নেওয়ার অভিযোগ

যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

আমতলীতে অতিবর্ষনে জনজীবন বিপর্যস্থ, জলাবদ্ধতায় তলিয়ে গেলে আমন ধানের ক্ষেত

আমতলীতে অতিবর্ষনে জনজীবন বিপর্যস্থ, জলাবদ্ধতায় তলিয়ে গেলে আমন ধানের ক্ষেত

বক্তব্য প্রত্যাহারের জন্য অধ্যাপক জিয়া রহমানকে আইনী নোটিশ

বক্তব্য প্রত্যাহারের জন্য অধ্যাপক জিয়া রহমানকে আইনী নোটিশ

সর্বশেষ

১২শ’ পিচ ইয়াবা উদ্ধার, পিতা-ছেলেসহ আটক ৫

১২শ’ পিচ ইয়াবা উদ্ধার, পিতা-ছেলেসহ আটক ৫

নারীর অধিকার ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় আজীবন কাজ করেছেন আল্লামা আহমদ শফী রহ.

নারীর অধিকার ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় আজীবন কাজ করেছেন আল্লামা আহমদ শফী রহ.

সরিষাবাড়ীতে মন্দিরের উন্নয়নে ঢেউটিন দিলেন মেয়র প্রার্থী সুমন চাকলাদার

সরিষাবাড়ীতে মন্দিরের উন্নয়নে ঢেউটিন দিলেন মেয়র প্রার্থী সুমন চাকলাদার

বঙ্গোপসাগরের লঘুচাপ নিম্মচাপে পরিণত, মোংলা বন্দর থেকে ২৪০ কিলোমিটার দুরত্বে অবস্থান

বঙ্গোপসাগরের লঘুচাপ নিম্মচাপে পরিণত, মোংলা বন্দর থেকে ২৪০ কিলোমিটার দুরত্বে অবস্থান

মিঠাপুকুরে জায়গীর বাসষ্টান্ড সিসি ক্যামেরার আওতাভুক্ত

মিঠাপুকুরে জায়গীর বাসষ্টান্ড সিসি ক্যামেরার আওতাভুক্ত

চূড়ান্ত বিতর্কে করোনা নিয়ে ট্রাম্প-বাইডেনের দ্বন্দ্ব

চূড়ান্ত বিতর্কে করোনা নিয়ে ট্রাম্প-বাইডেনের দ্বন্দ্ব

ভারতের উত্তর প্রদেশে দাড়ি রাখায় বরখাস্ত মুসলিম পুলিশ কর্মকর্তা

ভারতের উত্তর প্রদেশে দাড়ি রাখায় বরখাস্ত মুসলিম পুলিশ কর্মকর্তা

সারদেশে বৃষ্টি চলবে, জলোচ্ছ্বাসের সতর্কতা

সারদেশে বৃষ্টি চলবে, জলোচ্ছ্বাসের সতর্কতা

দিনাজপুরে তামাকের আইন বহির্ভুত বিজ্ঞাপন

দিনাজপুরে তামাকের আইন বহির্ভুত বিজ্ঞাপন

বৈরী আবহাওয়া : বরিশালের অভ্যন্তরীণ রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

বৈরী আবহাওয়া : বরিশালের অভ্যন্তরীণ রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

ইরান কি সত্যিই মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করছে?

ইরান কি সত্যিই মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করছে?

বগুড়ায় সাবেক স্ত্রীকে হত্যা, স্বামীর যাবজ্জীবন

বগুড়ায় সাবেক স্ত্রীকে হত্যা, স্বামীর যাবজ্জীবন

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার সাথে সব ধরনের নৌ-যোগাযোগ বন্ধ

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার সাথে সব ধরনের নৌ-যোগাযোগ বন্ধ

শেরপুরে পূজা মন্ডপে ভ্রাম্যমাণ টহলে আনসার সদস্যরা

শেরপুরে পূজা মন্ডপে ভ্রাম্যমাণ টহলে আনসার সদস্যরা

বন কিনে দেয়ার লোভ দেখিয়ে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

বন কিনে দেয়ার লোভ দেখিয়ে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ