Sheikh Md.Atikur Rahaman - (Patuakhali)
প্রকাশ ১৫/০২/২০২২ ০১:৪৫পি এম

বিয়ের দাবিতে ৭ দিনের অনেশন কলেজ ছাএীর

বিয়ের দাবিতে ৭ দিনের অনেশন কলেজ ছাএীর
ad image
পটুয়াখালীর দুমকিতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৭দিন ধরে অনশন করছেন এক কলেজছাত্রী। গত (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে উপজেলার মুরাদিয়া ইউনিয়নের উত্তর মুরাদিয়া এলাকার প্রেমিক অসিম সরকারে বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন তিনি। প্রেমিক অসিম সরকার ওই গ্রামের অনিল সরকারের ছেলে। ভুক্তভোগী ওই কলেজছাত্রী পটুয়াখালীর লোহালিয়া ইউনিয়নের কাকড়া-বুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা। ঐ শিক্ষার্থী এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী। ঘটনার পর থেকে প্রেমিক অসিম সরকার আত্মগোপনে রয়েছেন বলে দাবি করেছে প্রেমিকা।

ওই কলেজছাত্রী জানান,চার বছর ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক। প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্রেমিক অসিম সরকার তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। সম্প্রতি বিষয়টি পরিবার জেনে যায়। এরপর থেকেই অসিম সরকারকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিলেন তিনি।কিন্তু প্রেমিক অসীম সরকার বিয়েতে রাজী হচ্ছিল না, তাই বাধ্য হয়েই প্রেমিকের বাড়িতে তিনি অনশন শুরু করেছেন। প্রেমিক বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করবেন বলেও জানান ওই কলেজছাত্রী।

অনশনকারী ওই কলেজছাত্রীর মা অভিযোগ করে বলেন,তার মেয়ে বিয়ের দাবিতে অসিম সরকারের বাড়িতে অবস্থান করছে। অসিমকে তার প্রভাবশালী পরিবার আত্মগোপনে রেখে মীমাংসার নামে মেয়ের ওপর নানা ভাবে চাপ সৃষ্টি করছে এবং কয়েকটি সাদা কাগজে জোরপূর্বক স্বাক্ষরও নেয়া হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন।

আত্মগোপনে থাকায় এ নিয়ে প্রেমিক অসিম সরকারের মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে তার মা বলেন,এঘটনার পর থেকে আমার ছেলের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ নেই। অসীম সরকারের বাবা অনিল সরকার বলেন আমি ছেলের সাথে বিয়ের মাধ্যমে এটার একটা সমাধান করবো। উপজেলার মুরাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান শিকদার বলেন, বিষয়টি নিয়ে উভয় পরিবারের উপস্থিতিতে আলোচনা হয়েছে।ছেলের পক্ষকে দুই দিনের সময় দেয়া হয়েছে ছেলেকে উপস্থিত করার জন্য। এ বিষয়ে দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুস সালাম জানান, এ নিয়ে ওই কলেজছাত্রী এখনো থানায় কোনো অভিযোগ দেয়নি।অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ