Monir
প্রকাশ ৩০/১১/২০২১ ০৫:৫৪পি এম
করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট দক্ষিণ আফ্রিকান 'ওমিক্রন'-এ আতঙ্কিত পুরো বিশ্ব। এমন অবস্থার মধ্যে আফ্রিকা থেকে গত এক মাসে দেশে আসা ব্যক্তিদের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি। এ ছাড়া আফ্রিকা থেকে এ মুহূর্তে দেশে আসতে নিরুৎসাহিত করেন তিনি।

আর সেসব দেশ থেকে কেউ এলে তাদের ১৪ দিন ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টিনে বাধ্যতামূলকভাবে থাকতে হবে। আর সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা সেই কোয়ারেন্টিন ম্যানেজ করবেন বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব তথ্য জানান। মন্ত্রী বলেন, অন্য যেসব দেশে এখনও ইনফেকটেড হয়নি, তারা করোনা টেস্টের সার্টিফিকেট নিয়ে আসতে পারবেন। কিন্তু যেসব দেশে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাবে, সেখান থেকে কেউ এলে তাদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

এ ছাড়া করোনা টেস্টের ফল ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেওয়ার পরিবর্তে ৪৮ ঘণ্টা বা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নামিয়ে আনা হবে।

বর্ডারে মনিটরিং জোরদার ও পরীক্ষার ব্যবস্থা আরও বেশি এবং সেখানেই কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা আরও বৃদ্ধি করতে বলা হয়েছে। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান, রাজনৈতিক অনুষ্ঠান, ধর্মীয় অনুষ্ঠান সীমিত করতে প্রতিটি জেলায় চিঠি দিয়ে জানানো হবে। আর বিদেশ থেকে কেউ এলে তারা যাতে বাইরে কারও বাসায় না যেতে পারেন, সে বিষয়ে মনিটরিং করা হবে। প্রয়োজনে তাদের বাসাতে পতাকা দিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

গত এক মাসে ২৪০ জন এসেছেন সাউথ আফ্রিকা থেকে। কিন্তু তাদের ট্রেসিং করার চেষ্টা করেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকি তারা যে ঠিকানা দিয়েছেন, সেটিও ভুল দিয়েছেন এমন তথ্য দেন তিনি।

তবে স্কুল-কলেজের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এখন যেভাবে চলছে, সেভাবেই চলতে বলা হয়েছে। পরবর্তী সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত কার্যক্রম বৃদ্ধি করতে এবং দিন না বাড়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়।

ট্রেন-বাসে সবাইকে মাস্ক পরতে বলা হয়েছে। চলাচলের সময় স্বাস্থ্যবিধি না মানা হলে মোবাইল কোর্টের আওতায় এনে জরিমানার ব্যবস্থা করা হবে।

এ ছাড়া জেলা, উপজেলাসহ সব জায়গার খোঁজখবর নিয়ে তড়িৎগতিতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ন্যাশনাল মনিটরিং সেল করা হবে বলেও সেখানে জানান মন্ত্রী।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ