Feedback

জাতীয়

ঈদযাত্রায় গণপরিবহনের চলা না চলা নিয়ে বিভ্রান্তি

ঈদযাত্রায় গণপরিবহনের চলা না চলা নিয়ে বিভ্রান্তি
July 15
09:50pm
2020
Shohag Mohammad Musa
Mathbaria, Piroj Pur, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

ঈদে গণপরিবহন চলবে না বন্ধ থাকবে; এ বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি সরকার। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, ঈদযাত্রায় গণপরিবহন বন্ধ রাখার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, তাতে পরিবর্তন আসছে। আজকালের মধ্যে নতুন সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী ঈদের আগে পরে ৯ দিন গণপরিবহন বন্ধ রাখার প্রজ্ঞাপন জারি করতে মঙ্গলবার সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) চিঠি দেয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। কিন্তু পরদিন বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কাছ থেকে বার্তা আসে, সিদ্ধান্ত বদল হবে। ঈদে শর্তসাপেক্ষ গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে। অন্যান্য বছরের মতো বন্ধ রাখা হবে পণ্যবাহী যান।

একই দিন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বরাতে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী জানান, ঈদের আগে পাঁচ দিন এবং পরের তিন দিনসহ মোট ৯ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। কয়েক ঘণ্টা পর তিনি বক্তব্য বদল করে জানান, গণপরিবহন নয়, ঈদের আগের পাঁচদিন ও পরের তিনদিন সড়কে কোরবানির পশু, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ছাড়া বাকি পণ্যবাহী যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

প্রতিমন্ত্রীর এ বক্তব্যেও বিভ্রান্তি কাটেনি। পরিবহন মালিক ও যাত্রীরা অনিশ্চয়তায় পড়েন, ঈদে গণপরিবহন চলবে না বন্ধ থাকবে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পক্ষে বিপক্ষে আলোচনা সৃষ্টি হয়। খালিদ মাহমুমদ চৌধুরী নিশ্চিত করেন, ঈদুল আজহায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রীবাহী লঞ্চ, ফেরি চলবে। তবে  পণ্যবাহী নৌযান বন্ধ থাকবে।

গণপরিবহনের বিষয়ে সড়ক পরিবহন বিভাগ এবং বিআরটিএ মুখ না খুললেও, সংস্থাটির ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা সমকালকে জানিয়েছেন, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ গণপরিবহন বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল। তবে সরকারের ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে এতে পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। বর্তমানে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাড়তি ভাড়ায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে যেভাবে বাস ও অন্যান্য যাত্রীবাহী যান সড়কে চলেছে, ঈদযাত্রায় একই পদ্ধতিতে চলবে। তবে নতুন কিছু শর্তারোপ করা হতে পারে।

তবে মঙ্গলবার সহকারী সচিব জসিম উদ্দিন স্বাক্ষরে বিআরটিএ চেয়ারম্যানকে পাঠানো সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের চিঠিতে বলা হয়েছিল, ’মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী কোভিড-১৯ প্রতিরোধের লক্ষ্যে আসন্ন ঈদুল আজহার সময় জনগণের যাতায়ত সীমাবদ্ধ করার নিমিত্তে ঈদুল আজহার পাঁচদিন আগে থেকে তিন দিন পর পর্যন্ত গণপরিবহন বন্ধ রাখার প্রজ্ঞাপন/আদেশ প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।’

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

ওসি প্রদীপ কুমার দাশের গোড়া কোথায় ?

ওসি প্রদীপ কুমার দাশের গোড়া কোথায় ?

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা।  লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস   সিলিন্ডার

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা। লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

ধুনটে ইউনিয়ন ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী অলোয়া রাইর্ডাস

ধুনটে ইউনিয়ন ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী অলোয়া রাইর্ডাস

আজ থেকে ১২ কেজি গ্যাসের নির্ধারিত খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা।দাম বেশি দেখলে ৯৯৯এ কল করুন

আজ থেকে ১২ কেজি গ্যাসের নির্ধারিত খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা।দাম বেশি দেখলে ৯৯৯এ কল করুন

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

মৌলভীবাজারে মানুষের মুখমন্ডলের আকৃতিতে অদ্ভুত এক বাছুরের জন্ম

মৌলভীবাজারে মানুষের মুখমন্ডলের আকৃতিতে অদ্ভুত এক বাছুরের জন্ম

প্রতি ৯ জন মহিলার মধ্যে ১ জন স্তন ক্যান্সারের শিকার, লক্ষণ এবং প্রতিকারগুলি

প্রতি ৯ জন মহিলার মধ্যে ১ জন স্তন ক্যান্সারের শিকার, লক্ষণ এবং প্রতিকারগুলি

বিশ্বের প্রথম ভ্যাকসিন আসতে আর ৪ দিন

বিশ্বের প্রথম ভ্যাকসিন আসতে আর ৪ দিন

যশোরে রাস্তা থেকে তুলে ঘাস ক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুকে গণধর্ষণ ধর্ষক; আটক ৪!

যশোরে রাস্তা থেকে তুলে ঘাস ক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুকে গণধর্ষণ ধর্ষক; আটক ৪!

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ডাক্তার, ব্যাংকারসহ আরো ৭ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ডাক্তার, ব্যাংকারসহ আরো ৭ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ

কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাতক্ষীরার আবু বকরের পলায়ন, বরখাস্ত ৬

কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাতক্ষীরার আবু বকরের পলায়ন, বরখাস্ত ৬

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

সর্বশেষ

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি আবু বকর সিদ্দিককে পাওয়া যায়নি

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি আবু বকর সিদ্দিককে পাওয়া যায়নি

পরিবেশ দূষণ ও তার প্রতিকার

পরিবেশ দূষণ ও তার প্রতিকার

যতো দুর্নীতির   অভিযোগ এসপি মাসুদের বিরুদ্ধে

যতো দুর্নীতির অভিযোগ এসপি মাসুদের বিরুদ্ধে

টাকা আত্মসাৎ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান রুমি

টাকা আত্মসাৎ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান রুমি

শিবচরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছার জন্মবার্ষিকী উদযাপন ও দুস্থ নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ

শিবচরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছার জন্মবার্ষিকী উদযাপন ও দুস্থ নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ

কণ্ঠশিল্পী  “নোবেল ম্যান” নামের ইউটিউব চ্যানেলটি ব্যান

কণ্ঠশিল্পী “নোবেল ম্যান” নামের ইউটিউব চ্যানেলটি ব্যান

শহীদের মর্যাদা

শহীদের মর্যাদা

করোনায় ৩০ বছরের নিচে মৃত্যুর হার কম

করোনায় ৩০ বছরের নিচে মৃত্যুর হার কম

গল্পঃ ইদের আনন্দ ভাগাভাগি

গল্পঃ ইদের আনন্দ ভাগাভাগি

কারাগার থেকে কয়েদি ‘উধাও

কারাগার থেকে কয়েদি ‘উধাও

বঙ্গবন্ধুসহ শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে দোয়া মাহফিল

বঙ্গবন্ধুসহ শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে দোয়া মাহফিল

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এই বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এই বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়

ওষুধেও পাওয়া যাচ্ছে মাদকঃ নিরাপত্তা কোথায়?

ওষুধেও পাওয়া যাচ্ছে মাদকঃ নিরাপত্তা কোথায়?

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

তালাকের পর কিভাবে তালাক প্রত্যাহার করবেন

তালাকের পর কিভাবে তালাক প্রত্যাহার করবেন