Feedback

সারাবিশ্ব

সৌদি যুবরাজই খাশোগি হত্যার প্রধান সন্দেহভাজন: জাতিসংঘ

সৌদি যুবরাজই খাশোগি হত্যার প্রধান সন্দেহভাজন: জাতিসংঘ
July 13
09:32pm
2020
Salman M. Rahman
Khilgaon, Dhaka, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সংশ্লিষ্টতা ছাড়া দেশটির সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ড সম্ভব ছিল না বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত অ্যাগনেস ক্যালামার্ড।শনিবার তুরস্কের বার্তা সংস্থা আনাদুলু এজেন্সিকে এক সাক্ষাৎকারে বিচারবহির্ভূত হত্যা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ক্যালামার্ড বলেন, সুনির্দিষ্ট প্রমাণ না থাকলেও তিনি যুবরাজকেই প্রধান সন্দেহভাজন মনে করছেন।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর নিখোঁজ হন সৌদি ভিন্নমতাবলম্বী ও ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট জামাল খাশোগি। বিশ্বজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হলে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করে রিয়াদ কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি, জিজ্ঞাসাবাদের সময় কর্মকর্তাদের ভুলে নিহত হন ওই সাংবাদিক। তবে তার মৃতদেহের কোনও সন্ধান পাওয়া যায়নি। প্রথমে রিয়াদের পক্ষ থেকে খাশোগিকে হত্যার কথা অস্বীকার করা হলেও তুরস্কের সংবাদমাধ্যমগুলো সৌদি আরবের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রমাণ হাজির করতে থাকে।

মার্কিন তদন্ত সংস্থা সিআইএ ও পশ্চিমা দেশগুলোও বলে আসছে, এই হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা সৌদি যুবরাজ। সেই ধারাবাহিকতায় জাতিসংঘ দূত ক্যালামার্ড বললেন, ‘আমি মনে করি, কে এই হত্যাকাণ্ডের আদেশ দিয়েছেন, কিংবা কারা এতে প্ররোচনা দিয়েছে তা নির্ধারণের ক্ষেত্রে তিনি (যুবরাজ) প্রধান সন্দেহভাজন। তবে, তিনি যে এই আদেশ দিয়েছেন তার সুনির্দিষ্ট প্রমাণ আমার কাছে নেই। তবে পরিস্থিতিগত প্রমাণ থেকে বোঝা যায়, যুবরাজ সালমানের সংশ্লিষ্টতা ছাড়া এই হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে না।’

মানবাধিকার বিষয়ক এই আইনজীবীর বিশ্বাস, সিআইএ’র কাছে যুবরাজের (জড়িত থাকার) তথ্য থাকতে পারে।’২০১৯ সালের ডিসেম্বরে এ ঘটনায় পাঁচ কর্মকর্তাকে প্রাণদণ্ড দেয়ার কথা ঘোষণা করলেও তাদের নাম প্রকাশ করেনি সৌদি আরব। তুরস্ক আলাদাভাবে এ হত্যাকাণ্ডের তদন্ত চালিয়েছে। ৩ জুলাই (শুক্রবার) ইস্তাম্বুলের একটি আদালতে অভিযুক্তদের অনুপস্থিতিতেই ২০ সৌদি নাগরিকের বিরুদ্ধে বিচার শুরু হয়।

ক্যালামার্ডের মতে, অভিযুক্ত ২০ সৌদি কর্মকর্তার অনুপস্থিতিতে হলেও তুরস্কে শুরু হওয়া মামলার শুনানি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, ‘তুরস্কের বিচার আসামিদের অনুপস্থিতিতেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কারণ সবাই জানত, সৌদি আরব তুরস্কে আসামিদের বিচারের মুখোমুখি হতে দেবে না। আমি বিশেষভাবে উল্লেখ করতে চাই, বিচারে আসামিদের প্রতিনিধিত্ব করছেন রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবীরা।’ সৌদি আরবের চেয়ে তুরস্কের বিচার সুষ্ঠু হবে বলে আশাপ্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের এই কর্মকর্তা।


All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসীর জীবনের নিরাপত্তার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসীর জীবনের নিরাপত্তার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

পৃথিবীর যে নদীতে রাধা-কৃষ্ণ বিহার করে

পৃথিবীর যে নদীতে রাধা-কৃষ্ণ বিহার করে

নাগেশ্বরীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসী হামলায় ৪ বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট।

নাগেশ্বরীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসী হামলায় ৪ বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট।

চার নাইজেরিয়ান নাগরীকসহ ৫ জন রিমান্ডে

চার নাইজেরিয়ান নাগরীকসহ ৫ জন রিমান্ডে

আট  অতিরিক্ত সচিবের রদবদল, দুই জনের অবসর

আট অতিরিক্ত সচিবের রদবদল, দুই জনের অবসর

দেশে পোশাক খাতের রফতানি কমেছে ৬০০ কোটি ডলার এই খাতের ভবিষ্যত কী হবে?

দেশে পোশাক খাতের রফতানি কমেছে ৬০০ কোটি ডলার এই খাতের ভবিষ্যত কী হবে?

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু, আহত ০১

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু, আহত ০১

আইসিইউতে সানাই

আইসিইউতে সানাই

ষড়যন্ত্রকারীরা আগষ্ট মাসকে বেছে নিয়েছে : মুন্সী আলাউদ্দিন

ষড়যন্ত্রকারীরা আগষ্ট মাসকে বেছে নিয়েছে : মুন্সী আলাউদ্দিন

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত কয়েদি নিখোঁজ।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত কয়েদি নিখোঁজ।

ক্রসফায়ার’ না দেয়ার শর্তে টাকা আদায় করতেন ওসি প্রদীপ

ক্রসফায়ার’ না দেয়ার শর্তে টাকা আদায় করতেন ওসি প্রদীপ

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

"কল্যাণের জন্য জাগ্রত তারুণ্যের” ঈদ পুনর্মিলন অনুষ্ঠিত

"কল্যাণের জন্য জাগ্রত তারুণ্যের” ঈদ পুনর্মিলন অনুষ্ঠিত

ফেসবুক লাইভের পর গলায় ফাঁস দিয়ে অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

ফেসবুক লাইভের পর গলায় ফাঁস দিয়ে অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

সর্বশেষ

চীন ট্রাম্পকে কড়া হুশিয়ারি দিল

চীন ট্রাম্পকে কড়া হুশিয়ারি দিল

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

নড়াইলে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন ছয় নারী

নড়াইলে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন ছয় নারী

লাইফ সাপোর্টে সুরকার আলাউদ্দিন আলী

লাইফ সাপোর্টে সুরকার আলাউদ্দিন আলী

পাপ সৃষ্টির রহস্য কি?

পাপ সৃষ্টির রহস্য কি?

কুড়িগ্রামের উলিপুরে র্দীঘদনি ধরে হালনাগাদ হয় না সরকারী দপ্তরের ওয়েব সাইটগুলো

কুড়িগ্রামের উলিপুরে র্দীঘদনি ধরে হালনাগাদ হয় না সরকারী দপ্তরের ওয়েব সাইটগুলো

শ্যামনগরে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন পালন ও জাতীয় শোক দিবসের প্রস্ততি সভা

শ্যামনগরে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন পালন ও জাতীয় শোক দিবসের প্রস্ততি সভা

মানব সভ্যতায়  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মানব সভ্যতায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আমতলীতে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরন

আমতলীতে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরন

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা।  লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস   সিলিন্ডার

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা। লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

আত্মহত্যা সমাধান নয়, সামাজিক ব্যাধি

আত্মহত্যা সমাধান নয়, সামাজিক ব্যাধি

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাতক্ষীরার আবু বকরের পলায়ন, বরখাস্ত ৬

কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাতক্ষীরার আবু বকরের পলায়ন, বরখাস্ত ৬

'বঙ্গমাতা' ফজিলা তুন্নেছা মুজিবের ৯০ তম জন্মদিনে নবীনগরে সেলাই মেশিন বিতরন

'বঙ্গমাতা' ফজিলা তুন্নেছা মুজিবের ৯০ তম জন্মদিনে নবীনগরে সেলাই মেশিন বিতরন

কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না কক্সবাজারের টেকনাফ, অপরাধের শেষ নেই টেকনাফে

কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না কক্সবাজারের টেকনাফ, অপরাধের শেষ নেই টেকনাফে