Feedback

আরও...

মায়ের কবরেই সমাহিত হলেন সাহারা খাতুন

মায়ের কবরেই সমাহিত হলেন সাহারা খাতুন
July 11
09:23pm
2020
Shahadat
Tejgoan, Dhaka, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

আই নিউজ বিডি ডেস্করাজধানীর বনানীতে দ্বিতীয় জানাজা এবং রাষ্ট্রীয় ও দলীয় শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। আজ শনিবার (১১ জুলাই) দুপুর পৌঁণে ১২টার দিকে বনানী কবরস্থানে মায়ের কবরে প্রবীণ এই রাজনীতিককে সমাহিত করা হয়।

 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ১০ টার দিকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বাইতুশ শরফ জামে মসজিদে মরহুমা সাহারা খাতুনের প্রথম জানাজা হয়। এরপর বেলা ১১টার দিকে বনানী কবরস্থানে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তার বিদেহী আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

 

প্রথমে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান তার সহকারী সামরিক সচিব কর্নেল রাজু আহমেদ। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকীব আহমেদ। পরে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এছাড়া আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম তার মরদেহের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এর আগে শুক্রবার দিনগত রাত ২টার দিকে সাহারা খাতুনের মরদেহ বহনকারী বিমান হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২৬ মিনিটে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৭৭ বছর বয়সী এ রাজনীতিক।

 

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন ৭৭ বছর বয়সী এই নারী রাজনৈতিক। অ্যালার্জিজনিত সমস্যা নিয়ে ২ জুন রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা তাকে। তারপর থেকেই অবস্থার অবনতি ঘটে তার। কয়েকদফা আইসিইউ'তে চিকিৎসা দেয়ার এক পর্যায়ে গত ৬ জুলাই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

 

সাহারা খাতুনের বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি চিরকুমারী ছিলেন। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা পৃথক শোক বার্তায় প্রবীণ রাজনীতিক সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন। সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে রাজনৈতিক অঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে আসে। আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শোক জানান।

 

সাহারা খাতুনের বর্ণাঢ্য জীবন:

 

অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন বাংলাদেশের রাজনীতিতে এক বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী ছিলেন। তার সৌভাগ্য হয়েছিল বাংলাদেশের প্রথম নারী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার। রাজনীতিতে তিনি একজন সফল মানুষ ছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সভাপতিমন্ডলীর সদস্য হিসেবে অত্যন্ত সক্রীয় অবদান রেখেছেন। আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। একজন সফল রাজনৈতিক সংগঠকের পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী হিসেবে কাজ করতেন।

 

এডভোকেট সাহারা খাতুনের জন্ম ১৯৪৩ সালের ১ মার্চ ঢাকার কুর্মিটোলা গ্রামে বাবার বাড়িতে। তার বাবার নাম মরহুম আবদুল আজিজ ও মায়ের নাম তুরজান নেছা। সিদ্ধেশ্বরী গার্লস হাইস্কুল থেকে ১৯৬০ সালে ইস্ট-পাকিস্তান শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ম্যাট্রিকুলেশন পাস করেন। সিটি নাইট কলেজে থেকে ইন্টারমিডিয়েট পাস করেন। তারপর জগন্নাথ কলেজে বিএ কোর্সে ভর্তি হন। পরে করাচি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি মাধ্যমে দ্বিতীয় শ্রেণিতে বিএ (ডিগ্রি) অর্জন করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে ভর্তি হলেও তিনি কোর্স শেষ করেননি। ১৯৭৫ পরবর্তী সময়ে সেন্ট্রাল ল’ কলেজ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে দ্বিতীয় শ্রেণিতে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন।

 

১৯৬৭ সালে সক্রিয় রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন সাহারা খাতুন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইনের ছাত্রদের মধ্যে একটি নির্বাচনে তিনি ছাত্রলীগের প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেন। ১৯৬৯ সালে আওয়ামী লীগের মহিলা শাখা যখন গঠিত হয়, তাতে তিনি সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন। ১৯৭১ সালের ২ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের দিনেও তিনি সরাসরি উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন ১৯৭১ সালে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের সময় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। ১৯৮১ সাল থেকে আইন পেশা শুরু করেন সাহারা খাতুন। প্রতিষ্ঠা করেন আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ। তিনি ১৯৯১ সালের সংসদ নির্বাচনে তৎকালীন ঢাকা-৫ আসনে প্রথমবার অংশ নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কাছে হেরে যান। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৮ আসন থেকে প্রথমবারের মতো এমপি হন। ২০০৯ সালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। পরে দেওয়া হয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব। ঢাকা-১৮ আসন থেকে ২০১৪ ও ২০১৮ সালেও তিনি জয়ী হন।

 

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তিনি প্রথমে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদক নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে মহিলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ও সাধারণ সম্পাদক এবং একইসঙ্গে নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে সহ-আইন সম্পাদক, পরে আইন সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে তিনি প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়া স্বাধীনতার পরেই সাহারা খাতুন মহিলা সমিতির সদস্য মনোনীত হন। তখন ড. নীলিমা ইব্রাহিম সভানেত্রী ও আইভি রহমান সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া তিনি পরিবার পরিকল্পনা সমিতি, ঢাকা আইনজীবী সমিতি, গাজীপুর আইনজীবী সমিতি ও ঢাকা ট্যাক্সেস বার অ্যাসোসিয়েশনেরও আজীবন সদস্য। তিনি বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিরও সদস্য। তিনি আন্তর্জাতিক সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল অ্যালায়েন্স অব ওমেন্সের ডিরেক্টর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসীর জীবনের নিরাপত্তার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসীর জীবনের নিরাপত্তার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

পৃথিবীর যে নদীতে রাধা-কৃষ্ণ বিহার করে

পৃথিবীর যে নদীতে রাধা-কৃষ্ণ বিহার করে

নাগেশ্বরীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসী হামলায় ৪ বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট।

নাগেশ্বরীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসী হামলায় ৪ বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট।

চার নাইজেরিয়ান নাগরীকসহ ৫ জন রিমান্ডে

চার নাইজেরিয়ান নাগরীকসহ ৫ জন রিমান্ডে

আট  অতিরিক্ত সচিবের রদবদল, দুই জনের অবসর

আট অতিরিক্ত সচিবের রদবদল, দুই জনের অবসর

দেশে পোশাক খাতের রফতানি কমেছে ৬০০ কোটি ডলার এই খাতের ভবিষ্যত কী হবে?

দেশে পোশাক খাতের রফতানি কমেছে ৬০০ কোটি ডলার এই খাতের ভবিষ্যত কী হবে?

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু, আহত ০১

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু, আহত ০১

আইসিইউতে সানাই

আইসিইউতে সানাই

ষড়যন্ত্রকারীরা আগষ্ট মাসকে বেছে নিয়েছে : মুন্সী আলাউদ্দিন

ষড়যন্ত্রকারীরা আগষ্ট মাসকে বেছে নিয়েছে : মুন্সী আলাউদ্দিন

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত কয়েদি নিখোঁজ।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত কয়েদি নিখোঁজ।

ক্রসফায়ার’ না দেয়ার শর্তে টাকা আদায় করতেন ওসি প্রদীপ

ক্রসফায়ার’ না দেয়ার শর্তে টাকা আদায় করতেন ওসি প্রদীপ

"কল্যাণের জন্য জাগ্রত তারুণ্যের” ঈদ পুনর্মিলন অনুষ্ঠিত

"কল্যাণের জন্য জাগ্রত তারুণ্যের” ঈদ পুনর্মিলন অনুষ্ঠিত

ফেসবুক লাইভের পর গলায় ফাঁস দিয়ে অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

ফেসবুক লাইভের পর গলায় ফাঁস দিয়ে অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

সারাবিশ্বে বাংলাদেশ করোনা আক্রান্তে ১৫, আর মৃত্যুতে ২৯তম স্থানে!

সারাবিশ্বে বাংলাদেশ করোনা আক্রান্তে ১৫, আর মৃত্যুতে ২৯তম স্থানে!

সর্বশেষ

মানব সভ্যতায়  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মানব সভ্যতায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আমতলীতে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরন

আমতলীতে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরন

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা।  লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস   সিলিন্ডার

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা। লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

আত্মহত্যা সমাধান নয়, সামাজিক ব্যাধি

আত্মহত্যা সমাধান নয়, সামাজিক ব্যাধি

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাতক্ষীরার আবু বকরের পলায়ন, বরখাস্ত ৬

কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাতক্ষীরার আবু বকরের পলায়ন, বরখাস্ত ৬

'বঙ্গমাতা' ফজিলা তুন্নেছা মুজিবের ৯০ তম জন্মদিনে নবীনগরে সেলাই মেশিন বিতরন

'বঙ্গমাতা' ফজিলা তুন্নেছা মুজিবের ৯০ তম জন্মদিনে নবীনগরে সেলাই মেশিন বিতরন

কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না কক্সবাজারের টেকনাফ, অপরাধের শেষ নেই টেকনাফে

কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না কক্সবাজারের টেকনাফ, অপরাধের শেষ নেই টেকনাফে

করতোয়া নদীতে জাবি শিক্ষার্থীর মৃত্য

করতোয়া নদীতে জাবি শিক্ষার্থীর মৃত্য

রামগতির ঐতিহ্যবাহী চর মেহার আজিজিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে সাবেক সহকারী প্রধান শিক্ষকের ইন্তেকাল

রামগতির ঐতিহ্যবাহী চর মেহার আজিজিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে সাবেক সহকারী প্রধান শিক্ষকের ইন্তেকাল

সানরাইজ সোশ্যাল অর্গানাইজেশন-এর কুমিল্লা ও চাঁদপুর ইউনিটের (২০২০-২১) বর্ষের নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর ও শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত.....

সানরাইজ সোশ্যাল অর্গানাইজেশন-এর কুমিল্লা ও চাঁদপুর ইউনিটের (২০২০-২১) বর্ষের নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর ও শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত.....

ঝুঁকি নিয়ে ট্রাকে করে কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ

ঝুঁকি নিয়ে ট্রাকে করে কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ

নোয়াখালীর হাতিয়ায় বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে ছোট বোনকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

নোয়াখালীর হাতিয়ায় বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে ছোট বোনকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

আবার বাড়ছে এলপিজি গ্যাসের দাম: বাজার নিয়ন্ত্রণে নীরব সরকার!

আবার বাড়ছে এলপিজি গ্যাসের দাম: বাজার নিয়ন্ত্রণে নীরব সরকার!

অলসতা দূর করতে নিজেকে অনুপ্রাণিত করার উপায়গুলি শিখুন

অলসতা দূর করতে নিজেকে অনুপ্রাণিত করার উপায়গুলি শিখুন