আরও...

‘স্বামীর লাশ নিজে দাহ করার যে কষ্ট...’

‘স্বামীর লাশ নিজে দাহ করার যে কষ্ট...’
June 11
09:55am 2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক‘ছেলের বয়স মাত্র দুই বছর। ও কিছু বুঝতে পারবে না। এই পরিস্থিতিতে ওকে শ্মশানে নেব না। ওর শরীরে একটি কাঠি ছুঁইয়ে নিই। সেই কাঠি নিয়ে ছেলের হয়ে নিজেই দাহ করি। তারপর বাড়ি ফিরে ছেলেকে ঢাকায় ওর নানার বাসায় পাঠিয়ে দিয়ে আমি কোয়ারেন্টিনে আছি। ছেলে হয়তো ঠিকই অনুভব করতে পারছে—ওর বাবা নেই। দুটো মুঠোফোন হাতের কাছে রেখে বসে থাকে আর বলে, “বাবা ফোন করবে।” আমার কাছে জানতে চায় তার বাবা কই?’

কথাগুলো বললেন ময়মনসিংহ জেলা জজ আদালতের জ্যেষ্ঠ সহকারী জজ ঊমা রানী দাস। ৭ জুন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান তাঁর স্বামী দেবাশীষ দাস। তিনি নারায়ণগঞ্জের একটি পোশাকশিল্পের কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। মারা যাওয়ার পর করোনা পজিটিভের সনদ হাতে পান ঊমা রানী দাস।

আজ বৃহস্পতিবার মুঠোফোনে কথা হয় ঊমা রানী দাসের সঙ্গে। তিনি এখন ময়মনসিংহে একাই আছেন। গত ৩১ মে ঢাকায় স্বামীকে রেখে তিনি কর্মক্ষেত্রে ফেরেন। জানালেন, স্বামী যে কারখানায় কর্মরত ছিলেন, সেখানে বেতন-ভাতা নিয়ে শ্রমিক বিক্ষোভ দেখা দেয়। কারখানার মালিক তাঁকে সরাসরি শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি শান্ত করার জন্য পাঠান। তারপর স্বামীর জ্বরসহ অন্যান্য অসুস্থতা শুরু হয়। রক্তে সংক্রমণের জন্য কারখানার পক্ষ থেকে রাজধানীতে একটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তবে পুরোপুরি সুস্থ হওয়ার আগেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তিনি বাসায় থাকলে ভালো থাকবেন বলে তাঁকে বাসায় পাঠিয়ে দেয়। জ্বর বা করোনার কিছু উপসর্গ থাকলেও হাসপাতাল থেকে কোনো পরীক্ষা করা হয়নি। বাসায় শ্বাসকষ্ট শুরু হলে করোনা পরীক্ষার কোনো সনদ না থাকায় বাসার কাছের কোনো হাসপাতালে ভর্তি নেয়নি। তখন অ্যাম্বুলেন্সে করে স্বামীকে ময়মনসিংহে আনা হয়। প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে শহরের এস কে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেই তিনি মারা যান। শহরের কেওয়াটখালী শ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। 

ঊমা রানী দাস বলেন, ‘আমেরিকা থেকে ও মার্কেটিংয়ে পিএইচডি করে। ও বিদেশেই ছিল। শুধু আমার জন্য দেশে ফিরে এসেছিল। ও বাঁচতে চেয়েছিল, ওকে বাঁচানো গেল না। কারখানার অব্যবস্থাপনা, হাসপাতালের অব্যবস্থাপনা ওকে বাঁচতে দিল না। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজেও আইসিইউর জন্য মনে হয় চিকিৎসকদের শুধু পা ধরার বাকি রেখেছিলাম।’

দেবাশীষ দাসের বাড়ি সাভারে। পড়াশোনা করেন ময়মনসিংহে। দীর্ঘদিন বিদেশে ছিলেন। পৈতৃক বাড়িতে তেমন যাতায়াত ছিল না। ঊমা রানী দাস বলেন, ‘করোনা উপসর্গ ছিল স্বামীর। পরে মারা গেলেন। তাই আমি নিজেই পরিবারের অন্যরা যাতে সংক্রমিত না হন, সে ব্যাপারে সচেতন ছিলাম। স্বেচ্ছাসেবকদের সহায়তায় আমি নিজেই আমার স্বামীর লাশ দাহ করি। তবে আমার কর্মক্ষেত্র বা স্বামীর কর্মক্ষেত্র থেকে কোনো সহযোগিতা পাইনি—এ ক্ষোভ থাকবে সব সময়।’

ঊমা রানী দাস স্বামীর লাশ দাহ করছেন এবং হাতে চিকন একটি কাঠি নিয়ে হেঁটে একা বাড়ি ফিরছেন এ ধরনের কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ফেসবুকে আলোচনায় এলেও ঊমা রানী দাস বলেন, ‘ফেসবুকে আমি আমার পরিবারের কথা বা ছবি তেমন শেয়ার করি না। আমি চাইও না আমার পরিবার বা আমার ছবি আলোচনায় থাকুক। স্বামীর লাশ নিজে দাহ করার যে কষ্ট, তা তো সারা জীবন বহন করতে হবে। আর এই ধরনের ছবিও আমাকে কষ্ট দেবে।’

আলী ইউসুফ, বিমল পালসহ যে স্বেচ্ছাসেবকেরা স্বামীর লাশ দাহ করার কাজে সহায়তা করেছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ঊমা রানী দাস।

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের অনুমতি নিয়ে আলী ইউসুফ ২০ সদস্যের দুটি দল গঠন করেছেন। করোনার উপসর্গ নিয়ে বা করোনা পজিটিভ (কোভিড ১৯) হয়ে কেউ মারা গেলে তাঁদের দাফন বা সৎকার করেন তাঁরা। এক দলের সদস্যরা মুসলমানদের লাশ দাফন করছেন। অন্য দল হিন্দু–খ্রিষ্টানসহ অন্য ধর্মের কেউ মারা গেলে তাঁদের লাশ সৎকার করছেন। এ দুটো দলেই সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন আলী ইউসুফ।

আলী ইউসুফ বললেন, ‘আমরা সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধি হিসেবে মোট পাঁচজন (দুজন হিন্দু প্রতিনিধি) ঊমা রানী দাসের স্বামীর লাশ দাহ করার দায়িত্ব পালন করেছি। ঊমা রানী দাস নিজেই তাঁর স্বামীর লাশের গোসল দেন। এ ছাড়া তিনি যেভাবে স্বামীর লাশ দাহ করতে চান, আমরা সেভাবেই তাঁকে সহায়তা করি। তাঁকে একমুহূর্তের জন্যও লাশের কাছ থেকে দূরে সরাতে পারিনি। এই পরিস্থিতিতে ধর্মের পাশাপাশি মানবিকতার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েছি। আমি এ ধরনের কাজে যুক্ত থাকতে পেরে নিজেও গর্বিত। তবে দাহ শেষে এ বিষয়টি ফেসবুকে শেয়ার করলে কেউ কেউ বিতর্ক তৈরির চেষ্টা করেছেন। আমি মনে করি, এখানে বিতর্কের কিছু নেই। আর ঊমা রানী দাসের পেশাগত কারণে প্রথমে তাঁর ছবি শেয়ার দিলেও পরে ডিলিট করে দিই।’

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন বিশ্বরেকর্ড

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন বিশ্বরেকর্ড

বেনাপোল সীমান্তে বাংলাদেশিকে গুলি করে মারল বিএসএফ

বেনাপোল সীমান্তে বাংলাদেশিকে গুলি করে মারল বিএসএফ

মোদির হঠাৎ লাদাখ সফর কীসের বার্তা?

মোদির হঠাৎ লাদাখ সফর কীসের বার্তা?

করোনার প্রভাবে পেশা পরিবর্তনের হিড়িক

করোনার প্রভাবে পেশা পরিবর্তনের হিড়িক

আমি নিষ্পাপ: এমপি পাপুল

আমি নিষ্পাপ: এমপি পাপুল

পাট শ্রমিকদের পাওনার হিসাব ৩ দিনের মধ্যে জানা যাবে

পাট শ্রমিকদের পাওনার হিসাব ৩ দিনের মধ্যে জানা যাবে

রাত পোহালেই ওয়ারী ‘লকডাউন’

রাত পোহালেই ওয়ারী ‘লকডাউন’

প্রধানমন্ত্রীকে চেয়ারপারসন করে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল গঠন

প্রধানমন্ত্রীকে চেয়ারপারসন করে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল গঠন

গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে সেনাবাহিনী

গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে সেনাবাহিনী

একদিনে আরও ৪২ মৃত্যু, শনাক্ত ৩১১৪

একদিনে আরও ৪২ মৃত্যু, শনাক্ত ৩১১৪

ত্রিপুরায় বিনামূল্যে আনারস লেবুর জুস খাওয়াবেন মুখ্যমন্ত্রী

ত্রিপুরায় বিনামূল্যে আনারস লেবুর জুস খাওয়াবেন মুখ্যমন্ত্রী

গাছ লাগানোয় যুবকের হাত-পা কাটল প্রতিপক্ষ

গাছ লাগানোয় যুবকের হাত-পা কাটল প্রতিপক্ষ

গুনে গুনে লিভারপুলকে ‘এক হালি’ দিল ম্যানসিটি

গুনে গুনে লিভারপুলকে ‘এক হালি’ দিল ম্যানসিটি

সাতক্ষীরায় নতুন করে আরো দুই স্বাস্থ্য কর্মীসহ ১৪ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ১৯১

সাতক্ষীরায় নতুন করে আরো দুই স্বাস্থ্য কর্মীসহ ১৪ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ১৯১

বিহারে বজ্রপাতে ২৬ জনের মৃত্যু

বিহারে বজ্রপাতে ২৬ জনের মৃত্যু

সর্বশেষ

স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা, ২ সন্তান নিয়ে স্বামী পলাতক

স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা, ২ সন্তান নিয়ে স্বামী পলাতক

গাছ লাগানোয় যুবকের হাত-পা কাটল প্রতিপক্ষ

গাছ লাগানোয় যুবকের হাত-পা কাটল প্রতিপক্ষ

পুরো রাজশাহী জেলাই রেড জোনে

পুরো রাজশাহী জেলাই রেড জোনে

রাত পোহালেই ওয়ারী ‘লকডাউন’

রাত পোহালেই ওয়ারী ‘লকডাউন’

প্রধানমন্ত্রীকে চেয়ারপারসন করে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল গঠন

প্রধানমন্ত্রীকে চেয়ারপারসন করে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল গঠন

পাট শ্রমিকদের পাওনার হিসাব ৩ দিনের মধ্যে জানা যাবে

পাট শ্রমিকদের পাওনার হিসাব ৩ দিনের মধ্যে জানা যাবে

বিদ্যুৎ অফিসের কার ভুলে মৃত্যু হলো বিদ্যুৎ শ্রমিক হায়দারের

বিদ্যুৎ অফিসের কার ভুলে মৃত্যু হলো বিদ্যুৎ শ্রমিক হায়দারের

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়ন ও জনবান্ধব সরকার: এমপি রবি

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকার উন্নয়ন ও জনবান্ধব সরকার: এমপি রবি

গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে সেনাবাহিনী

গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে সেনাবাহিনী

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে খান ৬ খাবার

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে খান ৬ খাবার

সাতক্ষীরায় নতুন করে আরো দুই স্বাস্থ্য কর্মীসহ ১৪ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ১৯১

সাতক্ষীরায় নতুন করে আরো দুই স্বাস্থ্য কর্মীসহ ১৪ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ১৯১

একদিনে আরও ৪২ মৃত্যু, শনাক্ত ৩১১৪

একদিনে আরও ৪২ মৃত্যু, শনাক্ত ৩১১৪

আমি নিষ্পাপ: এমপি পাপুল

আমি নিষ্পাপ: এমপি পাপুল

মোদির হঠাৎ লাদাখ সফর কীসের বার্তা?

মোদির হঠাৎ লাদাখ সফর কীসের বার্তা?

ওয়ানডেতে শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ক্রিকেটার সাকিব

ওয়ানডেতে শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ক্রিকেটার সাকিব