জাতীয়, আইন-আদালত, অপরাধ

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ: ঘটনাস্থলের সিসিটিভির ফুটেজ উদ্ধার

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ: ঘটনাস্থলের সিসিটিভির ফুটেজ উদ্ধার
May 17
03:21pm 2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক

আই নিউজ বিডি ডেস্ক: রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় রাজধানীর কুর্মিটোলায় সড়কের পাশের দুটি সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাংবাদিকদের এ কথা জানান পুলিশের গুলশান বিভাগের উপকমিসনার (ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্তী।
তিনি বলেন, ফুটেজ বিশ্লেষণ করে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে দ্রুত প্রকৃত অপরাধীকে শনাক্ত করা হবে। ডিসি সুদীপ কুমার আরও বলেন, ঘটনাস্থলের আশপাশের দুটি সিসিটি’ভির ফুটেজ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেগুলো তদন্ত করা হচ্ছে। এই মামলাটি তদন্তের জন্য মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডি’বি-উত্তর বিভাগ) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত ক্লাস শেষে ক্যাম্পাস থেকে বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে রোববার রাতে রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ওই ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হন। গভীর রাতে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। তিনি বর্তমানে হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন। এরপর সোমবার সকালে কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে যাওয়ার পথে একটি ঝোপের মধ্য থেকে ভিকটিমের বই, ঘড়ি, ইনহে’লার ও চাবির রিংসহ বেশ কিছু আলামত পাওয়া যায়। ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ। এদিকে ধর্ষণের বিচার দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। ঘটনার দিন রাতেই ধর্ষকদের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সোমবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ছাত্রলীগ, ছাত্রদল ও বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ বিক্ষোভ করেছে। জানা গেছে, রাজধানীর কুর্মিটোলায় বান্ধবীর বাসায় যেতে বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে ওঠেন ওই ছাত্রী। বাস থেকে কুর্মিটোলা এলাকায় নামার পর অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন তার মুখ চেপে ধরে। এতে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। এরপর তাকে উপর্যুপরি ধর্ষণ করা হয়। রাত ১০টার দিকে চেতনা ফেরার পর তিনি সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে বান্ধবীর বাসায় যান। বান্ধবীকে ঘটনা জানান। এরপর সহপাঠীরা তাকে আবাসিক হলে নিয়ে আসেন। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয়। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওই ছাত্রী বলেছেন, রোববার সন্ধ্যায় তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাসে চড়ে বান্ধবীর বাসায় যাচ্ছিলেন। উদ্দেশ্য একসঙ্গে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেবেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তিনি কুর্মিটোলা এলাকায় বাস থেকে নামেন। সেখান থেকে অ’জ্ঞা’ত কয়েক ব্য’ক্তি তার মু’খ চেপে ধরে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। এরপর তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। নির্যাতনের একপর্যায়ে জ্ঞান ফিরে পান ওই ছাত্রী। পরে পাশবিক নির্যাতনে আবারও জ্ঞান হারান।

রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফেরে ওই ছাত্রীর। তিনি তার বান্ধবীর সঙ্গে যোগাযোগ করে ক্যাম্পাসে যান। পরে তার বন্ধুরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

Report this news

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

সফল ভাবে এগিয়ে চলছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়

সফল ভাবে এগিয়ে চলছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়

মদনে স্ত্রীর পরকীয়ায় স্বামীর আত্মহত্যা, আটক- ৩

মদনে স্ত্রীর পরকীয়ায় স্বামীর আত্মহত্যা, আটক- ৩

গাড়ি চাপায় হত্যার পর এবার পুলিশের গাড়িকে ধাক্কা এমপি পুত্রের

গাড়ি চাপায় হত্যার পর এবার পুলিশের গাড়িকে ধাক্কা এমপি পুত্রের

নৌকায় সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পালাচ্ছিল সাহেদ

নৌকায় সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পালাচ্ছিল সাহেদ

২৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হল লাজ ফার্মাকে

২৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হল লাজ ফার্মাকে

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের প্রস্তাব : বিচ্ছিন্ন রাঙ্গাবালী নৌ-রুটে ফেরীর সার্ভিস প্রদান

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের প্রস্তাব : বিচ্ছিন্ন রাঙ্গাবালী নৌ-রুটে ফেরীর সার্ভিস প্রদান

গ্রেফতারের পর পাবলিকের গণধোলাই থেকে বেচে যান সাহেদ!

গ্রেফতারের পর পাবলিকের গণধোলাই থেকে বেচে যান সাহেদ!

কোটচাদপুরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে নারীসহ ৩জন আটক

কোটচাদপুরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে নারীসহ ৩জন আটক

কালীগঞ্জে ইউনিলিভার ডিপোতে আবারো চুরি!

কালীগঞ্জে ইউনিলিভার ডিপোতে আবারো চুরি!

দ্বিতীয় দিনের রিমান্ড শেষে যা বললেন সাবরিনা

দ্বিতীয় দিনের রিমান্ড শেষে যা বললেন সাবরিনা

যা পাওয়া গেলো শাহেদের উত্তরার বাসায়!

যা পাওয়া গেলো শাহেদের উত্তরার বাসায়!

বগুড়া-১ উপনির্বাচনে সাহাদারা মান্নান বেসরকারিভাবে নির্বাচিত

বগুড়া-১ উপনির্বাচনে সাহাদারা মান্নান বেসরকারিভাবে নির্বাচিত

আবাসিক হোটেলে ইয়াবা সেবনের সময়  আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গ্রেফতার

আবাসিক হোটেলে ইয়াবা সেবনের সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গ্রেফতার

দ্বিতীয় বিয়ের পর বেপরোয়া হয়ে ওঠেন সাবরিনা

দ্বিতীয় বিয়ের পর বেপরোয়া হয়ে ওঠেন সাবরিনা

যশোরে নৌকার বিপুল ভোটে জয়

যশোরে নৌকার বিপুল ভোটে জয়

সর্বশেষ

চট্টগ্রাম বন্দরের ৩ নম্বর শেডে আগুন তদন্তে কমিটি

চট্টগ্রাম বন্দরের ৩ নম্বর শেডে আগুন তদন্তে কমিটি

গুইমারায় মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় এক যুবকের মৃত্যু ,আহত আরো দুজন

গুইমারায় মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় এক যুবকের মৃত্যু ,আহত আরো দুজন

চট্টগ্রামের বাঁশখালী বাহারছড়ায় বৃক্ষরোপন কর্মসুচী পালন

চট্টগ্রামের বাঁশখালী বাহারছড়ায় বৃক্ষরোপন কর্মসুচী পালন

সাহেদরা হয়তো গ্যাংস্টার নয় কিন্তু রক্তচোষা

সাহেদরা হয়তো গ্যাংস্টার নয় কিন্তু রক্তচোষা

জীবন উন্নয়নের অভ্যাসগুলো

জীবন উন্নয়নের অভ্যাসগুলো

কমলগঞ্জে বাংলদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী পালন

কমলগঞ্জে বাংলদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী পালন

কাহারোল উপজেলার মসজিদ ও মন্দিরের বিভিন্ন কমিটির মধ্যে অর্থের চেক বিতরণ

কাহারোল উপজেলার মসজিদ ও মন্দিরের বিভিন্ন কমিটির মধ্যে অর্থের চেক বিতরণ

প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা প্যানেলে নিয়োগ

প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা প্যানেলে নিয়োগ

শিল্পীদের স্বার্থ সংরক্ষণ করবেন জায়েদ খান

শিল্পীদের স্বার্থ সংরক্ষণ করবেন জায়েদ খান

ঢামেকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে ডিবি কার্যালয়ে সাহেদ

ঢামেকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে ডিবি কার্যালয়ে সাহেদ

নিজের পছন্দের জায়গায় চিরনিদ্রায় শায়িত এন্ড্রু কিশোর

নিজের পছন্দের জায়গায় চিরনিদ্রায় শায়িত এন্ড্রু কিশোর

বয়কট মিশা-জায়েদ, তাদের কাজে নিলে সদস্যপদ বাতিল

বয়কট মিশা-জায়েদ, তাদের কাজে নিলে সদস্যপদ বাতিল

একসঙ্গে তিন নবজাতকের জন্ম

একসঙ্গে তিন নবজাতকের জন্ম

যুবলীগের নেতাকর্মীদের বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান

যুবলীগের নেতাকর্মীদের বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান

করোনাভাইরাস মহামারিতে ধূমপান ছেড়েছেন ১০ লাখ মানুষ

করোনাভাইরাস মহামারিতে ধূমপান ছেড়েছেন ১০ লাখ মানুষ