EyeNewsBD

জাতীয়, বিনোদন

এ টি এম শামসুজ্জামান বললেন, আমি সুস্থ আছি

এ টি এম শামসুজ্জামান বললেন, আমি সুস্থ আছি
May 16
03:47pm 2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক: সুস্থ আছেন বরেণ্য চলচ্চিত্র অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান। তিনি স্বাভাবিক খাওয়াদাওয়া করছেন। বসা থেকে উঠতে পারছেন। কারও সহযোগিতা ছাড়াই চলাফেরা করছেন। শুক্রবার রাতে ফোন দিলে তিনি বললেন, ‘মরিনি এখনো। এর আগেও ১০–১২ বার আমার মৃত্যুর খবর ছড়িয়েছে। কেন যে এ রকম করে বুঝি না। আমার সঙ্গে কিসের শক্রতা, বুঝি না। আল্লাহ এদের হেদায়েত দান করুন।’   সন্ধ্যার পর হঠাৎ খবর রটে যায়, বাংলাদেশের গুণী অভিনয়শিল্পী এ টি এম শামসুজ্জামান মারা গেছেন। ফেসবুকে অনেকে তাঁর ছবি দিয়ে প্রচার করেন খবরটি । এতে এ টি এম শামসুজ্জামানের ভক্তরা মর্মাহত হন। এদিকে খবর নিয়ে জানা যায়, এ টি এম শামসুজ্জামান সুস্থ আছেন। তাঁর মৃত্যুর খবর যখন রটে যায়, তখন তিনি সুত্রাপুরের বাসায় ছিলেন। নিজের মৃত্যুর খবর শোনার পর এ টি এম শামসুজ্জামান বিরক্তি আর ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ টি এম শামসুজ্জামানের স্ত্রী রুনি জামান প্রথম আলোকে বলেন, ‘সন্ধ্যার পর হঠাৎ চারদিক থেকে ফোন আসা শুরু হয়। সবাই জানতে চাইছে, এ টি এম শামসুজ্জামান সাহেব কখন মারা গেছেন। আমরা রীতিমতো অবাক, দেশের এই দুর্যোগের সময় একটা জলজ্যান্ত মানুষকে এভাবে মেরে ফেলতে পারে!’ রুনি জামান বলেন, এটা সত্য যে মাঝে দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলেন এ টি এম শামসুজ্জামান। মাঝে নানা দফায় পুরান ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। গেল বছরের এপ্রিল মাসের শেষ সপ্তাহের এক রাতে বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়েন এ টি এম শামসুজ্জামান। সেদিনও খুব শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। সেই রাতে তাঁকে রাজধানীর গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ টি এম শামসুজ্জামানের অন্ত্রে প্যাঁচ লেগেছিল। সেখান থেকে আন্ত্রিক প্রতিবন্ধকতা। এর ফলে খাবার, তরল, পাকস্থলীর অ্যাসিড বা গ্যাস বাধাপ্রাপ্ত হয় এবং অন্ত্রের ওপর চাপ বেড়ে যায়। ফলে বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দেয়। তাঁর দেহে অস্ত্রোপচার করা হয়। এরপর কিছু শারীরিক জটিলতা হয়। টানা ৫০ দিন এই হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ১৫ জুন তাঁকে শাহবাগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেওয়া হয়। কিছুদিন সেখানে ছিলেন। গেল বছর ঈদও কেটেছে হাসপাতালের কেবিনে। অবস্থার উন্নতি হওয়ায় তাঁকে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। পরে আবারও কয়েকবার তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। সেখান থেকে অবস্থার উন্নতি হলে তাঁরা আবার সুত্রাপুরের নিজের বাড়ি ফিরে যান। আপাতত সেখানেই আছেন। আজও তিনি বাড়িতে সুস্থ, স্বাভাবিক আছেন। এ টি এম শামসুজ্জামান বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা, পরিচালক, কাহিনিকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার। অভিনয়ের জন্য কয়েকবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় সম্মাননা একুশে পদক। নোয়াখালীর দৌলতপুরে নানাবাড়িতে এ টি এম শামসুজ্জামান ১৯৪১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার ভোলাকোটের বড়বাড়ি আর ঢাকায় থাকতেন দেবেন্দ্র নাথ দাস লেনে। পড়াশোনা করেছেন ঢাকার পোগোজ স্কুল, কলেজিয়েট স্কুল, রাজশাহীর লোকনাথ হাইস্কুলে। তাঁর বাবা নূরুজ্জামান ছিলেন নামকরা উকিল এবং শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হকের সঙ্গে রাজনীতি করতেন। মা নুরুন্নেসা বেগম। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে শামসুজ্জামান ছিলেন সবার বড়। এ টি এম শামসুজ্জামানের চলচ্চিত্রজীবনের শুরু ১৯৬১ সালে পরিচালক উদয়ন চৌধুরীর ‘বিষকন্যা’ চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালক হিসেবে। প্রথম কাহিনি ও চিত্রনাট্য লিখেছেন ‘জলছবি’ চলচ্চিত্রের জন্য। ছবির পরিচালক ছিলেন নারায়ণ ঘোষ মিতা, এ ছবির মাধ্যমেই অভিনেতা ফারুকের চলচ্চিত্রে অভিষেক। এ পর্যন্ত শতাধিক চিত্রনাট্য ও কাহিনি লিখেছেন। প্রথম দিকে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্রজীবন শুরু করেন তিনি। অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র পর্দায় আগমন ১৯৬৫ সালের দিকে। ১৯৭৬ সালে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের ‘নয়নমণি’ চলচ্চিত্রে খলনায়কের চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন তিনি। ১৯৮৭ সালে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘দায়ী কে?’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। গত বছরের ৮ ডিসেম্বর তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে ২০১৭ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ‘আজীবন সম্মাননা’ পুরস্কার গ্রহণ করেন।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

মুন্সীগঞ্জে সোহাগকে কুপিয়ে জখম করলো সন্ত্রাসীরা

মুন্সীগঞ্জে সোহাগকে কুপিয়ে জখম করলো সন্ত্রাসীরা

সিএনজিতেই কাজ সারে অনেক খদ্দের

সিএনজিতেই কাজ সারে অনেক খদ্দের

আম্পান: পশ্চিমবঙ্গে নিহত বেড়ে ৮০

আম্পান: পশ্চিমবঙ্গে নিহত বেড়ে ৮০

১২০০ কি.মি সাইকেল চালিয়ে অসুস্থ বাবাকে নিয়ে বাড়ি ফিরলো মেয়ে

১২০০ কি.মি সাইকেল চালিয়ে অসুস্থ বাবাকে নিয়ে বাড়ি ফিরলো মেয়ে

প্রথম রাকাতের দ্বিতীয় সেজদায় গিয়ে ইমামের মৃত্যু!

প্রথম রাকাতের দ্বিতীয় সেজদায় গিয়ে ইমামের মৃত্যু!

ঈদের নামাজের পর টাকা তোলা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০, শতাধিক বাড়ি ভাংচুর

ঈদের নামাজের পর টাকা তোলা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০, শতাধিক বাড়ি ভাংচুর

যে ওষুধে ‘করোনায় সুস্থের হার বাড়ছে’ বাংলাদেশে

যে ওষুধে ‘করোনায় সুস্থের হার বাড়ছে’ বাংলাদেশে

আড়াইশ কিলোমিটার গতি নিয়ে ধেয়ে আসছে ‘আম্পান’

আড়াইশ কিলোমিটার গতি নিয়ে ধেয়ে আসছে ‘আম্পান’

শেখ হাসিনা কি বেশি ঝুঁকি নিলেন?

শেখ হাসিনা কি বেশি ঝুঁকি নিলেন?

কাদের: দেশের জন্য আরও কঠিন সময় আসছে

কাদের: দেশের জন্য আরও কঠিন সময় আসছে

পাকিস্তানে ১০০ যাত্রী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত

পাকিস্তানে ১০০ যাত্রী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত

ছেলে-মেয়ের সঙ্গে ঈদ করা হলো না শাহিদার

ছেলে-মেয়ের সঙ্গে ঈদ করা হলো না শাহিদার

‘ভুত মেশিনের’ চাপায় স্কুলছাত্র নিহত

‘ভুত মেশিনের’ চাপায় স্কুলছাত্র নিহত

মাংস কিনতে গিয়ে এনজিও কর্মী নিখোঁজ মরদেহ মিলল বাগানে

মাংস কিনতে গিয়ে এনজিও কর্মী নিখোঁজ মরদেহ মিলল বাগানে

রাতে ঘুম আসে না ? ৫ মিনিটে ঘুমিয়ে পড়ার ১০ টি উপায়

রাতে ঘুম আসে না ? ৫ মিনিটে ঘুমিয়ে পড়ার ১০ টি উপায়

সর্বশেষ

আন্তঃজেলায় বাসের ভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়াতে বিআরটিএর সুপারিশ

আন্তঃজেলায় বাসের ভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়াতে বিআরটিএর সুপারিশ

রোববার থেকে খুলবে অফিস, চলবে গণপরিবহনও

রোববার থেকে খুলবে অফিস, চলবে গণপরিবহনও

ফ্লাইট শুরুর আগে বিমানবন্দরের প্রস্তুতি দেখলেন প্রতিমন্ত্রী

ফ্লাইট শুরুর আগে বিমানবন্দরের প্রস্তুতি দেখলেন প্রতিমন্ত্রী

গণপরিবহন স্বাস্থ‌্যবিধি না মানলে ব‌্যবস্থা

গণপরিবহন স্বাস্থ‌্যবিধি না মানলে ব‌্যবস্থা

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাসার চার কর্মীর অবস্থা স্থিতিশীল

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাসার চার কর্মীর অবস্থা স্থিতিশীল

ট্রেনে ভাড়া বাড়ছে না, সব টিকিট অনলাইনে

ট্রেনে ভাড়া বাড়ছে না, সব টিকিট অনলাইনে

সড়কে নামছে বাস : ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট ঢেলে সাজাবে পুলিশ

সড়কে নামছে বাস : ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট ঢেলে সাজাবে পুলিশ

‘খালেদা কেন জিয়া হত্যার বিচার করলেন না তা রহস্যজনক’

‘খালেদা কেন জিয়া হত্যার বিচার করলেন না তা রহস্যজনক’

করোনা প্রতিরোধে জনপ্রতিনিধিদের আরও বেশি সম্পৃক্ত করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

করোনা প্রতিরোধে জনপ্রতিনিধিদের আরও বেশি সম্পৃক্ত করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪

সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ

সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ

লুটন তাজ-দ্য অলরাউন্ডার

লুটন তাজ-দ্য অলরাউন্ডার

কিশোরগঞ্জে নতুন ১৭ জনের করোনা শনাক্ত, মোট ৩১৭

কিশোরগঞ্জে নতুন ১৭ জনের করোনা শনাক্ত, মোট ৩১৭

বিষধর সাপের ছোবলে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

বিষধর সাপের ছোবলে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

কলাপাড়ায় ছাদ থেকে পড়ে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু

কলাপাড়ায় ছাদ থেকে পড়ে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু