Feedback

রাজনীতি, জাতীয়

ঈদে মুক্ত খালেদার দেখা পাবেনা না নেতাকর্মীরা!

ঈদে মুক্ত খালেদার দেখা পাবেনা না নেতাকর্মীরা!
August 01
10:43am
2020
Md Yousuf Monir
Bondor, Chittagong, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

গত ২৫ মার্চ কারা মুক্ত হয়ে গুলশানের বাসায় উঠেন খালেদা জিয়া। টানা পাঁচ ঈদে অন্য সময়ের মতো সর্বস্তেরের নেতা কর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে পারেননি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। গত চারটি ঈদে কারাগারে থাকায় নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করার সুযোগ হয়নি বিএনপি প্রধানের। গত ঈদুল ফিতরের আগে কারাগার থেকে বেরিয়ে আসলেও করোনাভাইরাসের কারণে তেমন কোন কর্মসূচী রাখেননি সাবেক প্রধানমন্ত্রী। এবার ঈদেও দলীয় নেতাকর্মিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সুযোগ হবে না বিএনপি নেত্রীর।

এছাড়া দলীয় কোন কর্মসূচিতে অংশ না নেওয়ার নির্দেশনার বেড়াজালেরর কারণে শনিবার দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউল রহমানের সমাধিতেও  শ্রব্ধা জানাতে যাচ্ছেন না। তবে শুধুমাত্র দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা সকালে শ্রব্ধা জানাবেন।

২০১৮ সালের ৮ ই ফ্রেব্রুয়ারি জিয়া অররফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজা হওয়ার পর থেকে ২৫ মাস কারাগারে  ও কারা হেফাজতে হাসপাতালে কাটে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার। সে কারণে ২০১৮ সালের ঈদুল ফিতর, ঈদুল আযহায় দলীয় নেতাকর্মিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করার সুযোগ হয়নি তার।

এরপর ২০১৯ সালে একইভাবে কারাগারে থাকার কারণে দুইটি ঈদ কাটে নেতাকর্মিদের শুভেচ্ছা বিনিময় না করেই। ২০২০ সালের ২৫ ই মার্চ প্রধানমন্ত্রীর নির্বাহী আদেশে ৬ মাসের জন্য সাজা স্থগিত করা হয় খালেদা জিয়ার।  মুক্তি পেয়ে গুলশানের বাসায় উঠেন তিনি। এরমধ্যে ঈদুল ফিতর কেটে গেছে। 

সরকারের পক্ষে যেসব শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে তা হলো, নিজ বাসায় তাকে থাকতে হবে এবং বিদেশ যেতে পারবেন না। ফলে গত চারমাস তিনি বাসায় অবস্থান করছেন। যদিও তার উন্নত চিকিৎকসার জন্য বিদেশ নেওয়ার অনুমতির ব্যবস্থা করতে সরকারের সঙ্গে পরিবারের পক্ষ থেকে চেষ্টা করার গুঞ্জন রয়েছে। অবশ্য দলের শীর্ষ নেতারা এ বিষয়ে মুখ খুলছেন না।

দুই বছরের বেশি সময় পর দলের প্রধান মুক্তি পাওয়ায় নেতাকর্মীদের মাঝে স্বস্তি নেমে এলো ও করোনার কারণে তার সঙ্গে সিনিয়র সাক্ষাতেও ছিল কড়াকড়ি। গত ৮ ই মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর দেশের চিত্র পাল্টে যায়। সেই কারণে ২৫ ই মার্চ মুক্তি পাওয়ার পর চিকিৎসকদের পরামর্শে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকেন খালেদা জিয়া। এসময়ের মধ্যে কারো সাথে সাক্ষাত করেননি তিনি। এই সময়ে শুধু তার চিকিৎস ডা. এজেড এম চাহিদ হোসেন ও ডা. মামুন তার সাক্ষাত পেয়েছেন। তারা মূলত তার চিকিৎসার জন্য বাসায় যাওয়া আসা করেন। এছাড়া তার ভাই শামীম ইস্কান্দার, বোন সেলিনা ইসলাম ও ভাই বোনের পরিবারের সদস্যরাই শুধু সাক্ষাত পেয়েছেন খালেদা জিয়ার।

বিএনপি প্রধানের মুক্তি পাওয়ার ৪৮ দিন পর প্রথম সাক্ষাত পান দলীয় মহাসচিব মির্জ্জা ফকরুল ইসলাম আলমঙ্গীর। গত ১২ ই মে ও ১৪ ই জুন দু দফা খালেদাজিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত করেন মির্জ্জা ফখরুল। এছাড়া খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস কয়েকবার সাক্ষাত করেছেন খালেদা জিয়ার সঙ্গে। একবার সাক্ষাত পেয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রণ্ট নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না।

করোনা পরিস্থিতি এখনও তেমন কোনো উন্নতি হয়নি। সুতরাং এই অবস্থা দলীয় নেতাকর্মীরা এবার ঈদে খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ পাচ্ছেন না বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে। তবে মহাসচিবসহ দলের শীর্ষ পর্যায়ের কেউ শুভেচ্ছা সাক্ষাতের সুযোগ পেতে পারেন বলে জানা গেছে।

বেগম খালেদা জিয়া চিকিৎসক ও বিএনপি'র ভাইস চেয়ারম্যান ডঃ  এজেডএম জাহিদ হোসেন বলেন, চেয়ারপার্সনের শারীরিক অবস্থার তেমন কোনো উন্নতি নেই, তেমনি করেোনা পরিস্থিতির তেমন কোনো উন্নতি নেই। এই পরিস্থিতির কারণে এবার ঈদেও তার সঙ্গে নেতাকর্মীরা সাক্ষাতের সুযোগ পাবেন না।

গত ঈদুল ফিতরের দিনের মতো এবারও পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে থাকবেন বলে জানা গেছে।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

টাকা আত্মসাৎ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান রুমি

টাকা আত্মসাৎ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান রুমি

ওসি প্রদীপ কুমার দাশের গোড়া কোথায় ?

ওসি প্রদীপ কুমার দাশের গোড়া কোথায় ?

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা।  লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস   সিলিন্ডার

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা। লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এই বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এই বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়

যতো দুর্নীতির   অভিযোগ এসপি মাসুদের বিরুদ্ধে

যতো দুর্নীতির অভিযোগ এসপি মাসুদের বিরুদ্ধে

আজ থেকে ১২ কেজি গ্যাসের নির্ধারিত খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা।দাম বেশি দেখলে ৯৯৯এ কল করুন

আজ থেকে ১২ কেজি গ্যাসের নির্ধারিত খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা।দাম বেশি দেখলে ৯৯৯এ কল করুন

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

ধুনটে ইউনিয়ন ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী অলোয়া রাইর্ডাস

ধুনটে ইউনিয়ন ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী অলোয়া রাইর্ডাস

মৌলভীবাজারে মানুষের মুখমন্ডলের আকৃতিতে অদ্ভুত এক বাছুরের জন্ম

মৌলভীবাজারে মানুষের মুখমন্ডলের আকৃতিতে অদ্ভুত এক বাছুরের জন্ম

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

যশোরে রাস্তা থেকে তুলে ঘাস ক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুকে গণধর্ষণ ধর্ষক; আটক ৪!

যশোরে রাস্তা থেকে তুলে ঘাস ক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুকে গণধর্ষণ ধর্ষক; আটক ৪!

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ডাক্তার, ব্যাংকারসহ আরো ৭ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ডাক্তার, ব্যাংকারসহ আরো ৭ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ

সর্বশেষ

খুলনায় জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

খুলনায় জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

মাহাবুব কবির মিলনকে ওএসডি করা আর সৎ কর্মকর্তাদের ''অশনি সংকেত" দেওয়া এককথা- আশীষ মল্লিক

মাহাবুব কবির মিলনকে ওএসডি করা আর সৎ কর্মকর্তাদের ''অশনি সংকেত" দেওয়া এককথা- আশীষ মল্লিক

মেজর সিনহার সহযোগী শিপ্রার জামিন

মেজর সিনহার সহযোগী শিপ্রার জামিন

"সিনহা হত্যায় জড়িত সবার কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করা হবে"

"সিনহা হত্যায় জড়িত সবার কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করা হবে"

দেশের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে

দেশের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে

গোপালগঞ্জে ১ হাজার পরিবার উঁচু সড়কে আশ্রয়

গোপালগঞ্জে ১ হাজার পরিবার উঁচু সড়কে আশ্রয়

বাড়িতেই রান্না করুন নার্গিসি মাটন পোলাও

বাড়িতেই রান্না করুন নার্গিসি মাটন পোলাও

গবেষণা:  মস্তিষ্কের বিশেষ অঞ্চলে উদ্বেগ ও হতাশার গভীর প্রভাব পড়ে

গবেষণা: মস্তিষ্কের বিশেষ অঞ্চলে উদ্বেগ ও হতাশার গভীর প্রভাব পড়ে

রূপসায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব'র জন্ম বার্ষিকীতে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ

রূপসায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব'র জন্ম বার্ষিকীতে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ

মার্কিন নির্বাচনে তিন দেশ হস্তক্ষেপ করতে চাইছেঃ এনসিএসসি পরিচালকের হুঁশিয়ারি

মার্কিন নির্বাচনে তিন দেশ হস্তক্ষেপ করতে চাইছেঃ এনসিএসসি পরিচালকের হুঁশিয়ারি

আরও ‘শক্তিশালী’ ও ‘দৃঢ়’ হয়ে ফেরার আশা রোনালদোর !

আরও ‘শক্তিশালী’ ও ‘দৃঢ়’ হয়ে ফেরার আশা রোনালদোর !

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা সেন্টারে আগুন

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা সেন্টারে আগুন

কক্সবজার এখনো থমথমে

কক্সবজার এখনো থমথমে

৬০ ভাগ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহারের দাবী, সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের

৬০ ভাগ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহারের দাবী, সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের

কবিতাঃ অপরাধী আমি

কবিতাঃ অপরাধী আমি