Feedback

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

মাস্ক পড়লে চশমা ঝাপসা হয়, রইলো সহজ সমাধান!

মাস্ক পড়লে চশমা ঝাপসা হয়, রইলো সহজ সমাধান!
July 31
02:19pm
2020
Md Yousuf Monir
Bondor, Chittagong, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

করোনা ভারাস মহামারিতে অন্যতম অনুষঙ্গ  হয়ে উঠেছে মাস্ক। বাইরে গেলে করোনা থেকে বাঁচতে মাস্ক পরা সবচেয়ে গুরুত্ববপূর্ণ। তবে যারা চশমা পরেন তাদের জন্য চশমা পড়েন তাদের জন্য মাস্ক পরা বিরক্তিকর কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারন মাস্ক পরার পর নিঃশ্বাসের কারনে অনেকের চশমার কাঁচ ঝাপসা হয়ে যায়।


উপায়ন্তর না পেয়ে কিছুক্ষণ পরপর  চশমা পরিস্কার করতে হয়।এতে করোনা আতঙ্ক বেগে যায়। এমন অবস্হায় কয়েকটি উপায় রয়েছে যেগুলো অবলম্বন করলে মাস্ক পড়লেও চশমার কাঁচ ঘোলাটে হবে না। চলুন উপায় গুলি জেনে নিই।


সাবান-পানি

মাস্ক পড়বার আগে সাবান পানি দিয়ে চশমার কাঁচ কে ভালোভাবে ধুয়ে নিতে পারেন।এতে কাজ হবে বলে জানিয়েছেন দ্য রয়েল কলেজ অব সার্জন্স অব ইংল্যাণ্ডের একজন সার্জন। তিনি বলেন,সাবান পানিতে চশমার কাঁচ ধুয়ে বাকাসে শুকিয়ে নিলে এটি কুয়াশা প্রতিরোধ করে। এর কারন হলো, সাবান সারফেস অ্যাক্টিভ অ্যাজেণ্ট (সারফেক্ট্যাণ্ট) হিসাবে কাজ করে ও চশমার কাঁচে পাতলা আবরন সৃষ্টি করে যা চশমাকে ঘোলাটে হতে দেয় না।


শেভিং ক্রীম

আর একটি সহজ উপায় হলো শেভিং ক্রীম।চশমার কাঁচে সামান্য সেভিং ক্রীম লাগাতে পারেন। এর শুস্ক কাপড় দিয়ে আলতো করে মুছে ফেলুন।


বেবি শ্যাম্পু

বেশিরভাগ শ্যাম্পুতেও সারফেক্ট্যাণ্ট উপাদান খাকে।মাস্ক পড়বার আগে চশমার কাঁচকে বেবিশেম্পু দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন। সেক্ষেত্র চশমার কাঁচে সামান্য পরিমাণ বেবিশেম্পু লাগিয়ে ভেজা কাপড় দিয়ে হালকা করে ঘষুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।


টুটপেষ্ট

ঘোলাটে চশমা পরিস্কারের আর একটি সহজ উপায় হলো টুটপেষ্ট। সামান্য পেষ্ট চশমার কাঁচে লাগিয়ে টুটব্রাশ দিয়ে আলতো করে ঘষুন। চশমা পরিস্কার ও চকচকে হয়ে উঠবে।


চশমার নিছে মাস্ক  গুঁজে দেওয়া

মাসক নাকের একটু উপরে উঠিয়ে চশমার নিছে দিয়ে গুঁচে দিতে পারেন। এতে করে নিঃশ্বাসের বাতাস চোখের দিগে উঠতে পারবেনা। চশমার কাঁচ ও ঘোলাটে হবেনা।


মাস্কের সঙ্গে টিস্যু

মাস্কের উপরের অংশ যেটি নাকের সঙ্গে লেগে থাকে সে অংশে আঠা বা টেপ দিয়ে একটি টিস্যু ভাঁজ করে লাগিয়ে নিন। টিস্যু দিয়ে এমনভাবে মাস্ক পড়লে চশমার কাঁচে নিঃশ্বাসের বাতাস যেতে পারবে না।


অ্যাণ্টি -ফগ ক্লিনার

প্রয়োজনে অ্যাণ্টি-ফগ ক্লিনার ব্যবহার করতে পারেন। চশমার দোকানে এই ক্লিনার পাওয়া যায়। এটির ব্যবহারে চশমা ১-৩ দিন পর্যন্ত ঘোলাটে হবে না।




All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

কুড়িগ্রামে দুই বছর পর উন্মোচিত হলো আসামী

টাকা আত্মসাৎ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান রুমি

টাকা আত্মসাৎ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান রুমি

ওসি প্রদীপ কুমার দাশের গোড়া কোথায় ?

ওসি প্রদীপ কুমার দাশের গোড়া কোথায় ?

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা।  লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস   সিলিন্ডার

আমতলীতে ৬’শ টাকার গ্যাস ৮’শ ৫০ টাকা। লাইব্রেরী, চায়ের দোকান ও কাপরের দোকানসহ যত্রতত্র স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

স্কুল-কলেজ খোলা ও পরিক্ষার ব্যাপারে বিবৃতি দিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এই বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এই বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়

যতো দুর্নীতির   অভিযোগ এসপি মাসুদের বিরুদ্ধে

যতো দুর্নীতির অভিযোগ এসপি মাসুদের বিরুদ্ধে

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

ধর্মপ্রাণ ধর্মপ্রতিমন্ত্রী প্রয়োজন

আজ থেকে ১২ কেজি গ্যাসের নির্ধারিত খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা।দাম বেশি দেখলে ৯৯৯এ কল করুন

আজ থেকে ১২ কেজি গ্যাসের নির্ধারিত খুচরা মূল্য ৬০০ টাকা।দাম বেশি দেখলে ৯৯৯এ কল করুন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

১২ অগস্ট আসছে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

ধুনটে ইউনিয়ন ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী অলোয়া রাইর্ডাস

ধুনটে ইউনিয়ন ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী অলোয়া রাইর্ডাস

মৌলভীবাজারে মানুষের মুখমন্ডলের আকৃতিতে অদ্ভুত এক বাছুরের জন্ম

মৌলভীবাজারে মানুষের মুখমন্ডলের আকৃতিতে অদ্ভুত এক বাছুরের জন্ম

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

বরগুনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিপেটা; আহত ৩ জন!

যশোরে রাস্তা থেকে তুলে ঘাস ক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুকে গণধর্ষণ ধর্ষক; আটক ৪!

যশোরে রাস্তা থেকে তুলে ঘাস ক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুকে গণধর্ষণ ধর্ষক; আটক ৪!

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ডাক্তার, ব্যাংকারসহ আরো ৭ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ডাক্তার, ব্যাংকারসহ আরো ৭ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ

সর্বশেষ

খুলনায় জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

খুলনায় জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

মাহাবুব কবির মিলনকে ওএসডি করা আর সৎ কর্মকর্তাদের ''অশনি সংকেত" দেওয়া এককথা- আশীষ মল্লিক

মাহাবুব কবির মিলনকে ওএসডি করা আর সৎ কর্মকর্তাদের ''অশনি সংকেত" দেওয়া এককথা- আশীষ মল্লিক

মেজর সিনহার সহযোগী শিপ্রার জামিন

মেজর সিনহার সহযোগী শিপ্রার জামিন

"সিনহা হত্যায় জড়িত সবার কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করা হবে"

"সিনহা হত্যায় জড়িত সবার কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করা হবে"

দেশের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে

দেশের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে

গোপালগঞ্জে ১ হাজার পরিবার উঁচু সড়কে আশ্রয়

গোপালগঞ্জে ১ হাজার পরিবার উঁচু সড়কে আশ্রয়

বাড়িতেই রান্না করুন নার্গিসি মাটন পোলাও

বাড়িতেই রান্না করুন নার্গিসি মাটন পোলাও

গবেষণা:  মস্তিষ্কের বিশেষ অঞ্চলে উদ্বেগ ও হতাশার গভীর প্রভাব পড়ে

গবেষণা: মস্তিষ্কের বিশেষ অঞ্চলে উদ্বেগ ও হতাশার গভীর প্রভাব পড়ে

রূপসায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব'র জন্ম বার্ষিকীতে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ

রূপসায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব'র জন্ম বার্ষিকীতে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ

মার্কিন নির্বাচনে তিন দেশ হস্তক্ষেপ করতে চাইছেঃ এনসিএসসি পরিচালকের হুঁশিয়ারি

মার্কিন নির্বাচনে তিন দেশ হস্তক্ষেপ করতে চাইছেঃ এনসিএসসি পরিচালকের হুঁশিয়ারি

আরও ‘শক্তিশালী’ ও ‘দৃঢ়’ হয়ে ফেরার আশা রোনালদোর !

আরও ‘শক্তিশালী’ ও ‘দৃঢ়’ হয়ে ফেরার আশা রোনালদোর !

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা সেন্টারে আগুন

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা সেন্টারে আগুন

কক্সবজার এখনো থমথমে

কক্সবজার এখনো থমথমে

৬০ ভাগ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহারের দাবী, সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের

৬০ ভাগ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহারের দাবী, সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের

কবিতাঃ অপরাধী আমি

কবিতাঃ অপরাধী আমি