About Us
JAKIR HOSSAIN - (Jashore)
প্রকাশ ০২/০৮/২০২১ ০৩:২৩এ এম

লকডাউনে খেটে খাওয়া মানুষের বর্তমান অবস্থা

লকডাউনে খেটে খাওয়া মানুষের বর্তমান অবস্থা Ad Banner
লকডাউন সাধারন মানুষের জীবন কে আরো কঠিন করে তুলেছে। সংসার চালনোর জন্য লড়াই করতে হচ্ছে প্রতিটি মুহূর্তে প্রতিটি সময়। তাদের দিন-রাত কাটতে থাকে পরিবারের সদস্যদের মুখে একমুঠো খাবার তুলে দিবে কিভাবে এইটা ভাবতে ভাবতে।

প্রতিটি সময় তাদের মধ্যে একটা বিষয় কাজ করে যে কি করে সংসার চালাবে। করোনা ভাইরাস মহামারীর প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় সরকার আবারও লকডাউন ঘোষণা করেছে। লক ডাউন এর ফলে জরুরি পন্যবাহী যানবাহন ও জরুরি সেবা ছাড়া সব সরকারী,বেসরকারী অফিস আদালত বন্ধ ঘোষণা করেছে।

লকডাউনের ফলে বিপদে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ গুলো। করোনা ভাইরাস শুরু থেকে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার তখন থেকে অর্থনৈতিক অবস্থার বিপর্যয় ঘটে চলেছে। বাংলাদেশের খেটে খাওয়া মানুষগুলো দিন আনে দিন খায়। একদিন বসে থাকলে তাদের পেটে ভাত যায় না।

কি ভাবে চলবে তাদের সংসার? লক ডাউন বা শাট ডাউনে ঘরে বসে থেকে একদিনের সরকারী অনুদান পায় আর দশদিন কি ভাবে চলবে? আবার অনেক স্থানে সরকারী অনুদান গুলো ঠিক মতো পাচ্ছে না খেটে খাওয়া মানুষগুলো।

প্রতিটা খেটে খাওয়া পরিবার গুলোর চিন্তা একটাই, কি ভাবে চলবে তাদের সংসার? করোনাকালীন একদিকে আয়ের উৎস বন্ধ আরেক দিকে কিস্তির জ্বালা,বিদ্যুৎ বিল,পানি বিল,বাসা ভাড়া এগুলোতে বন্ধ নয় কেন? তাহলে কিভাবে চলবে খেটে খাওয়া মানুষের সংসার? অনেক স্থানে দেখা যাচ্ছে অনেকে সংসার চালানোর জন্য আইন বিরোধী বিভিন্ন কাজে জড়িয়ে পড়ছে।

করোনাকালীন আইন মানতে অবাধ্য হবে পেটের জ্বালায়। সমাজের বিত্তবান মানুষগুলো তাদের পুঁজি না জমিয়ে করোনাকালীন যে মহামারী চলছে এর ভিতরে খেটে খাওয়া মানুষগুলোর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলে বাঁচবে মানুষ, স্বাভাবিক হবে বাংলাদেশ। সরকার লক ডাউনে কঠোর সিদ্ধান্তগ্রহণ করলেও বন্ধ করতে পারবে না জনসমাগম, কর্মস্থল। এমনটাই আশা করেন সমাজের সচেতন মহল।

পরিবারের দিকে তাকিয়ে খেটে খাওয়া মানুষগুলো আইন হাতে তুলে নিতে বাধ্য হবে। এ সব ঠেকাতে খেটে খাওয়া মানুষগুলোর পাশে সরকারী বেসরকারী সহায়তা টিম সবসময় থাকা আবশ্যক। যতদিন লকডাউন বা শার্টডাউন থাকবে ততোদিন তাদের খাবারের সহায়তা করতে হবে।

একদিন কাজ না করলে পেটে খাবার যায় না তাহলে লকডাউন বা শাট ডাউনে দীর্ঘদিন কাজ না করলে কি হবে? এসকল বিষয় বিবেচনা পূর্বক গ্রামের খেটে খাওয়া পরিবারের মাঝে করোনা কালীন যে প্রদনার ঘোষনা দিয়েছেন সরকার তা সঠিক ভাবে বাস্তবায়ন হবে এমন টাই আশা করেন সচেতন মহল।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ