About Us
TUSHAR AHAMED - (Chuadanga)
প্রকাশ ১৯/০৭/২০২১ ০৩:০৩এ এম

এই ঈদে আসছেন এক ভিন্ন অপূর্ব

এই ঈদে আসছেন এক ভিন্ন অপূর্ব Ad Banner
দুদিন পরেই ঈদ। আর এই ঈদকে ঘিরে এরইমধ্যে শোবিজ অঙ্গনে শুরু হয়ে গিয়েছে উন্মাদনা। ভক্তরা অপেক্ষা করে থাকেন বিশেষ দিবসে প্রিয় তারকার বিশেষ কাজ দেখার আশায়। আর তাই তারকারাও এই দিবসগুলোতে যত্ন নিয়ে কাজ করেন এবং নতুনত্ব নিয়ে হাজির হন দর্শকদের সামনে। করোনা প্রকোপের কারণে অনেক তারকাই তাদের পরিকল্পনামাফিক কাজ করতে পারেননি। তাতে অবশ্য ভক্তদের হতাশ হবার কিছু নেই। সীমাবদ্ধতার মধ্যে থেকেও তারকারা কিছু কাজ নিয়ে হাজির হচ্ছেন। সেই ধারাবাহিকতায় এই ঈদে ভিন্ন কিছু নিয়েই আসছেন বলে জানান ছোট পর্দার বড় তারকা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব।

এবার ঈদের কাজগুলো প্রসঙ্গে জিয়াউল ফারুক অপূর্ব বলেন, ‘ঈদে দর্শকরা নতুন এবং ভালো কিছু দেখতে চায় সবসময়। তাই চেষ্টা থাকে তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী ভালো কিছু করার। গত ঈদে বেশ কিছু কাজ থেকে দারুণ সাড়া পেয়েছি। এই ঈদেও চেষ্টা করেছি দর্শকদের জন্য ভিন্ন ও নতুন কিছু করার।

তিনি আরও বলেন, এবার ভিন্ন ভিন্ন স্বাদের বেশ কিছু কাজ করেছি, দর্শকরা যেরকমটা দেখতে চান, ঠিক সেরকম। রোমান্টিক, রোমান্টিক-কমেডি, কিছু সিরিয়াস গল্প, পারিবারিক গল্প ছাড়াও ভিন্ন স্বাদের কিছু দেখতে পাবেন দর্শকরা। নাটক কম করেছি কিংবা বেশি করেছি, আমি সেই হিসেবে যেতে চাইনা। যে কাজগুলো করেছি সেগুলো দর্শকদের কথা মাথায় রেখেই করার চেষ্টা করেছি। তাদের পছন্দ করার মতোই কাজ আসবে, ইনশাহআল্লাহ। কাজগুলো তাদের কাছে কেমন লাগলো, সেটা জানার অপেক্ষায় রইলাম।’

এই ঈদে অপূর্ব অভিনীত নাটকের মধ্যে রয়েছে- সঞ্জয় সমদ্দারের ‘শোক সভা’ (তাসনিয়া ফারিণ), মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘যদি কোনদিন’ (মেহ্জাবীন চৌধুরী), রুবেল হাসানের ‘মিঃ অ্যান্ড মিসেস চাপাবাজ আনলিমিটেড’ (মেহ্জাবীন চৌধুরী), শিহাব শাহীনের ‘রুনু ভাই’ (সাবিলা নূর), মহিদুল মহিমের ‘শনির দশা’ (মেহ্জাবীন চৌধুরী), মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘ভাগ্যক্রমে’ (মেহ্জাবীন চৌধুরী)।

মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘শুভ+নীলা’ (কেয়া), বি ইউ শুভর ‘প্রেমে পড়ে প্রেমিক’ (সাবিলা নূর), রুবেল হাসানের ‘আগডুম বাগডুম’ (সাবিলা নূর), শিহাব শাহীনের ‘রঙ্গিলা ফানুস’ (সাবিলা নূর), মেহেদি হাসান জনির ‘আদরে’ (তাসনিয়া ফারিণ), বি ইউ শুভর ‘হার্ট টু হার্ট’ (সারিকা সাবরিন)। মাহমুদুর রহমান হিমির ‘২১ বছর পরে’ (তাসনিয়া ফারিণ)।

বি ইউ শুভর ‘পান্তা ভাতে ঘি’ (সাবিলা নূর), মেহেদি হাসান জনির ‘কী কারণে’ (কেয়া), মেহেদি হাসান জনির ‘সরি বিন্দু’ (কেয়া), এস আর মজুমদারের ‘মন দরিয়া’ (তাসনিয়া ফারিণ), ইমরাউল রাফাতের ‘ডাকাতের বংশ’ (তাসনিয়া ফারিণ), মাহমুদুর রহমান হিমির ‘রোড ট্রিপ’ (সাবিলা নূর), রুবেল হাসানের ‘সদা সত্য কথা বলিব’ (সাবিলা নূর), শিহাব শাহীনের ‘বিয়ে বিড়ম্বনা’ (সাবিলা নূর)। রুবেল হাসানের ‘নানা বাড়ি’ (সাবিলা নূর), মাহমুদুর রহমান হিমির ‘ভালোবাসার বটি কাবাব’ (সাবিলা নূর)।

এছাড়াও নাম চূড়ান্ত না হওয়া রয়েছে ৪টি নাটক। এরমধ্যে রয়েছে সোহেল আরমানের দুটি, যার একটিতে অপূর্বর বিপরীতে থাকবেন মেহ্জাবীন চৌধুরী, আরেকটিতে কেয়া। অন্যদিকে শিহাব শাহীনের একটিতে অপূর্বর বিপরীতে থাকবেন তাসনুভা তিশা। আর একটি রুবেল হাসানের, এখানে থাকবেন সাবিলা নূর।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ