About Us
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Shahinur ISLAM - (Satkhira)
প্রকাশ ১৮/০৭/২০২১ ০৮:৪৬পি এম

অসহায় পাগলীকে ঈদের পোশাক দিয়ে তৃপ্তি পেলেন এস আই হাফিজ

অসহায় পাগলীকে ঈদের পোশাক দিয়ে তৃপ্তি পেলেন এস আই হাফিজ Ad Banner
পুলিশ যে জনগণের বন্ধু তা আবারও প্রমাণ করে দিলেন মানবিক পুলিশ অফিসার এস আই হাফিজুর রহমান(হাফিজ)। তিনি যশোর জেলার অভয়নগর থানার চেঙ্গুটিয়া গ্রামের একটি মধ্যবৃত্ত পরিবারের সন্তান। তিনি ৩৭তম আউটসাইড ক্যাডেট ব্যাচ এর একজন সাব-ইন্সপেক্টর। মাত্র কিছু দিনের মধ্যেই তিনি দেবহাটা থানার মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন। তিনি চাকুরির পাশাপাশি বাকি সময়টুকু মানব সেবার কাজে ব্যয় করতে ভালোবাসেন। রবিবার(১৮জুলাই) বিকালে রাস্তার এক পাগলীকে ঈদ উপহার স্বরুপ নতুন পোশাক, জুতা ও নগদ টাকা দিতে দেখা যায় এই মানবিক পুলিশ অফিসারকে। জানা যায় পাগলীটির বাড়ি দেবহাটা থানার কোমরপুর গ্রামে। নাম তার আমেনা। এস আই হাফিজ জানান, আমি একটি বিশেষ কারণে পারুলিয়া বাসস্ট্যান্ডে আসি। সেখানে আসা মাত্রই দেখি একটি পাগলী আমার দিকে ছুটে আসছে। আমি পাগলীটির কাছে ছুটে আসার কারন জানতে চাইলে সে একটি পোশাকের দোকানের দিকে ইশারা করে।

আমি তাকে সেই দোকানে নিয়ে যায় এবং আমি ঈদ উপলক্ষে তাকে পোশাক সামগ্রী কিনে দেই। নতুন পোশাক পেয়ে পাগলীটি আনন্দে আত্মহারা। খুশিতে সে মেতে উঠেছিলো। যদিও তাকে আমি খুব বেশি উপহার দিতে পারিনি কিন্তু তার এই খুশি দেখে আমার মনটা ভরে যায়। তিনি আরো বলেন বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি মহাদয়ের নির্দেশ মোতাবেক মানবিক পুলিশ হয়ে কাজ করার চেষ্টা করছি। তাছাড়া দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা একজন সৎ ও যোগ্য অফিসার। আমি তাকে দেখেও অনুপ্রেরিত হই। যতদিন পুলিশের দায়িত্ব পালন করব ততদিন ন্যায়ের পক্ষে মানবতার সেবায় কাজ করব। তিনি কিছুদিন আগে কুলিয়া আশু মার্কেটে এক বৃদ্ধাকে মানবিক সহায়তা করেছিলো সেটিও বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। দেবহাটা থানার স্থানীয় কিছু মানুষ জানান, এই এস আই হাফিজকে গোপনে মানুষকে সাহায্যে করতে দেখিছি। তিনি একজন মানবিক সৎ পুলিশ অফিসার। আমরা তার মঙ্গল কামনা করি।

একজন পুলিশ অফিসার হিসাবে আইনশৃংখলা রক্ষা, মানবাধিকার, মানবিকতার নানা গুণাবলি সাদাসিধে জীবনের অধিকারী এই পুলিশ কর্মকর্তার। তার এই মানবিক দিক গুলো মানুষের মুখে মুখে ফুটে উঠেছে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ