About Us
KAZI ARIFUL KARIM SOHEL - (Khulna)
প্রকাশ ১৮/০৭/২০২১ ০৬:৩৭পি এম

মিঠুন-প্রসেনজিতের সহ-অভিনেতা এখন মাছ বিক্রেতা

মিঠুন-প্রসেনজিতের সহ-অভিনেতা এখন মাছ বিক্রেতা Ad Banner
জীবনের বড় একটা অংশ কেটেছে অভিনয়ের মাধ্যমে। মঞ্চ, টেলিভিশন কিংবা বড়পর্দা—সব জায়গায়ই ছিল সরব উপস্থিতি। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত অভিনয় করে যাওয়ার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু করোনা সব পাল্টে দিল! লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন নয়, বরং এখন দিন শুরু হয় ‘মামা, মাছটা কত?’ শুনে! অভিনেতা শ্রীকান্ত মান্না ‘সংস্তব’ নাট্যদলে অভিনয় করছেন ২৫ বছর ধরে। ‘এই পৃথিবী তোমার আমার’, ‘বেগ ফর লাইফ’, ‘রাজকাহিনী’, ‘গ্ল্যামার’ সিনেমায় তাকে দেখা গেছে পার্শ্ব চরিত্রে। মিঠুন চক্রবর্তী, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সব্যসাচী চক্রবর্তী, আবীর চট্টোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের মতো খ্যাতনামা অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করেছেন শ্রীকান্ত।

শ্রীকান্ত অভিনীত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ছিপি জিতেছে একাধিক পুরস্কার। এই অভিনেতা এখন মাছের বাজারে মাছ বিক্রি করছেন। অনেকেই অবাক হয়ে প্রশ্ন করেন—আরে আপনি তো অভিনেতা, মিঠুনদার ছবিতে দেখেছি, প্রসেনজিতের অনেক ছবিতে অভিনয় করেছেন! তাই না? আনন্দবাজার জানিয়েছে, প্রথম দিকে গামছা দিয়ে মুখ আড়াল করে মাছ বিক্রি করতেন শ্রীকান্ত। এখন আর লোকে কী বলবে সেই তোয়াক্কা করেন না। মুখ আড়াল করেন না। তাই মাছ কিনতে আসা ক্রেতাদের অনেকেই চিনে ফেলেন তাকে।

শ্রীকান্ত বলেন, অভিনয়শিল্প দর্শকদের মনের খিদে মেটায়, পাশাপাশি আমার পেটের খিদেও মেটায়। করোনায় সিনেমা সেভাবে হচ্ছে না। রোজগার বন্ধ। তাই মাছ বিক্রি করে পেটের খিদে মেটাতে হচ্ছে। সৎ কাজ। লজ্জা নেই, আফসোস নেই। তা ছাড়া আমি তো একা নই। কত মানুষ অসহায়। লড়ছে। আমিও লড়ছি। শ্রীকান্ত আরও বলেন, আবার সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। আবার চরিত্র আসবে। আবার শুরু হবে মঞ্চ ও ক্যামেরার সামনে অভিনয়।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ