About Us
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
MD. ASHRAF ULLAH - (Bhola)
প্রকাশ ১৮/০৭/২০২১ ১২:৩৮পি এম

শ্বশুর-শাশুড়িকে বিদায় দিতে, শিক্ষক চিরবিদায় নিল এ পৃথিবী থেকে

শ্বশুর-শাশুড়িকে বিদায় দিতে, শিক্ষক চিরবিদায় নিল এ পৃথিবী থেকে Ad Banner
সদ্যই বিয়ে করেছিলেন তিনি। বিয়ের পরদিন গিয়েছিলেন শ্বশুর-শাশুড়িকে বাসে তুলে দিয়ে আসতে। কিন্তু সে যাত্রায় আর বাড়ি ফিরতে পারেননি তিনি। প্রাণ হারিয়েছেন ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে। নাটোরের বড়াইগ্রামে শনিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে বনপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। এ সময় সুমনের মামা শ্বশুর জাকির হোসেনও আহত হন।

নিহত শাহীদুজ্জামান সুমন পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার উত্তর বটকাজল গ্রামের আব্দুস সাত্তার মিয়ার ছেলে। তিনি জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক ছিলেন। কিছুদিন আগে তিনি দয়ারামপুর ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় জমি কিনে বাড়ি করেছিলেন।

আহত জাকির হোসেন জানান, শুক্রবার দয়ারামপুরের নিজ বাসায় বাউফলের দশমিনা এলাকার কনে লামিয়া জেবিনের সঙ্গে সুমনের বিয়ে সম্পন্ন হয়। শনিবার রাতে তিনি বনপাড়া বাইপাস মোড় থেকে তার শ্বশুর-শাশুড়িকে বরিশালগামী বাসে উঠিয়ে দিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। পথে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে মহাসড়কের পাশে দাঁড়ালে একটি দ্রুতগামী ট্রাক তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি খন্দকার শফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ট্রাকটি চিহ্নিত করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. রমজান আলী জানান, আমি দুদিন থেকে ছুটিতে ঢাকায় আছি, এ কারণে বিয়ের বিষয়টা জানি না। তবে সহকর্মীরা মোবাইলে আমাকে তার মৃত্যুর বিষয়টি জানিয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের সহকর্মী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে চরম শোক নেমে এসেছে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ