About Us
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Abdul majid
প্রকাশ ২২/০৬/২০২১ ০১:০২পি এম

মুন্সীগঞ্জ কঠোর লকডাউন, প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টিতে কিছুটা শিথিল

মুন্সীগঞ্জ কঠোর লকডাউন, প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টিতে কিছুটা শিথিল Ad Banner
মহামারি করোনাভাইরাস বৃদ্ধি পাওয়ায় ঢাকার আশপাশের সাত জেলায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে মুন্সীগঞ্জ জেলায় কঠোর লকডাউন চলার কথা থাকলেও মঙ্গলবার ভোর থেকে প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টির কারণে কিছুটা শিথিল দেখা গেছে।

তবে লঞ্চ, বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও সিএনজিচালিত অটোরিকশা লেগুনা দিয়ে নিয়মিত যাতায়াতকারী যাত্রীরা ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছে বলে জানা গেছে।

জেলার ১০টি প্রবেশ মুখে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি লকডাউন কার্যকর করতে মাঠে ম্যাজিস্ট্রেটও রয়েছেন। জেলার লঞ্চ টার্মিনাল থেকে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। শুধু অ্যাম্বুলেন্স ও জরুরি পণ্য পরিবহনের জন্য শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের ফেরি সীমিত পরিসরে চলাচল করছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়াঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক (এজিএম) শফিকুল ইসলাম জানান, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী ঘাটের সব নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে অ্যাম্বুলেন্স ও জরুরি সেবার যানবাহনসহ পণ্যবাহী যানবাহন পারাপারের জন্য সীমিত পরিসরে ফেরি সার্ভিস চালু রাখা হয়েছে। বতর্মানে ঘাট এলাকায় ওপারে যাওয়ার অপেক্ষায় ৭০-৮০টি পণ্যবাহী ট্রাক রয়েছে।

সিভিল সার্জন অফিসের তথ্যমতে, জেলা বিগত ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ নমুনার মধ্যে ২২ জনের রিপোর্টে নতুন করে চারজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাদের মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে।

এ পর্যন্ত জেলায় মোট নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৩০ হাজার ২৮৩ জনের। এর মধ্যে রিপোর্ট পাওয়া গেছে ২৯ হাজার ৬৮২ জনের। যার মধ্যে করোনা পজিটিভ হয়েছে পাঁচ হাজার ৮৮৬ জন, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন পাঁচ হাজার ৭৮৪ জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন ৭১ জন। যার মধ্যে গত ২০২০ সালে ৬৯ জন ও চলতি বছরের মাত্র দুজন। তবে বর্তমানে জেলার বিভিন্ন স্থানে হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছে ১০০ জন।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ