About Us
কে এ এম সাকিব - (Rajshahi)
প্রকাশ ২০/০৬/২০২১ ০৫:০৭পি এম

সারাদিন আন্দোলনকারীদের দখলে ছিল রাবির প্রশাসন ভবন

সারাদিন আন্দোলনকারীদের দখলে ছিল রাবির প্রশাসন ভবন Ad Banner
চাকরী স্থায়ীকরণ ও দ্রুত যোগদানের দাবিতে আন্দোলন অবহ্যাত রেখেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাডহকের ভিত্তিতে বিতর্কিত নিয়োগপ্রাপ্তরা। রবিবার (২০ জুন) কার্যত আন্দোলনকারীদের দখলে ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন। এ দিন সকাল ৯ টার দিকে তারা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে পূর্বদিনে ঝুলানো তালা খুলে দেয়। কিন্তু ভবনে রুটিন উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যকে না দেখে তিন ঘন্টার ব্যবধানে ফের তালা মেরে দেয় তারা।

পরবর্তীতে আন্দোলনকারীরা দুপুর ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান আল আরিফকে অবরুদ্ধ করে রাখে। যদিও দুপুর ২ টার দিকে তাকে মুক্ত করে দিয়েছেন বলে খবর পাওয়া যায়। বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত, আন্দোলনকারীরা প্রশাসন ভবনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদরর বের করে দিয়ে প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান অব্যাহত রাখার খবর পাওয়া যায়। এই সময় ভেতরে আর কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হয নি।

আন্দোলনকারীদের একজন, আতিকুর রহমান সুমন বলেন, আজকে উপাচার্য স্যার আমাদের সাথে কথা বলবেন বলে জানিয়েছিলেন কিন্তু তিনিসহ উপ-উপাচার্য ক্যাম্পাসে না আসায় আমরা কোষাধ্যক্ষের দ্বারস্থ হয়েছি। তিনি বলেন, আমাদের নিয়োগ হয় স্থায়ী করা হোক অথবা বাতিল করা হোক, কোন একটি সিদ্ধান্ত আমরা চাই। আমরা জীবনের মায়া করি না।যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে রাজি আছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন সুরাহা আসা পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিযে যাবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রুটিন দায়িত্বে থাকা উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, আমি তাদের বলেছিলাম দেখা করবো। কিন্তু আমি মানসিকভাবে কিছুটা আপসেট। তাই যাওয়া হয় নি। তবে তাদের দু-একজনকে বাসবভনে আসতে বলেছিলাম। তিনি আরও বলেন, আন্দোলনকারীদের যে দাবি সেটি তো আমার পক্ষে পূরন করা সম্ভব নয়। আমি গতকালই মন্ত্রণালয়কে তাদের বিষয়টি সমাধানের জন্য জানিয়েছি। তারা পদক্ষেপ না নিলে কিছু করার নাই।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ