About Us
Md.Shahidul Islam - (Bandarban)
প্রকাশ ১৯/০৬/২০২১ ১২:২১পি এম

চার তরুণ পেলেন পুরস্কার

চার তরুণ পেলেন পুরস্কার Ad Banner

এ বছর আইএফআইসি ব্যাংক নিবেদিত কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার ২০২০ পেলেন চার সাহিত্যিক। কথাসাহিত্যে ‘তিমিরযাত্রা’ উপন্যাসের জন্য মোজাফ্ফর হোসেন, প্রবন্ধ-গবেষণায় ‘চলচ্চিত্রনামা’ বইয়ের জন্য মাসুদ পারভেজ, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সাহিত্য শাখায় ‘১৯৭১: বিধ্বস্ত বাড়িয়ায় শুধুই লাশ’ বইটির জন্য ইজাজ আহমেদ মিলন এবং শিশু-কিশোর সাহিত্যে ‘স্কুলে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল’ বইটির জন্য রণজিৎ সরকার।

উল্লেখযোগ্য বই জমা না পড়ায় এ বছর কবিতা বিভাগটি বাদে চারটি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হলো। আজ শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় অনলাইনে ছিল কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার ২০২০ প্রদানের অনুষ্ঠান। অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন কথাসাহিত্যিক ওয়াসি আহমেদ এবং পশ্চিমবঙ্গের রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পবিত্র সরকার। আলোচনায় অংশ নেন ‘কালি ও কলম’-এর প্রকাশক আবুল খায়ের।

সংগীত পরিবেশন করেন রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী অদিতি মহসিন। অনুষ্ঠানটি দেখানো হয় কালি ও কলম এবং আইএফআইসি ব্যাংকের ফেসবুক পেজে।কবিতা আবৃত্তির মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। প্রয়াত দুই গুণী জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান এবং ‘কালি ও কলম’ সম্পাদক আবুল হাসনাতকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। বিচারকমণ্ডলীর পক্ষে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন বিশ্বজিৎ ঘোষ। পবিত্র সরকার বলেন, ‘আমাদের জীবনের মুহূর্তগুলোকে মূল্যবান করে তোলার জন্য সাহিত্যচর্চা চালিয়ে যাওয়া এই মেধাবী তরুণদের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করছি।

সাহিত্যের পথরেখায় তাদের আরও সমৃদ্ধি কামনা করছি। এ ছাড়া ধন্যবাদ জানাই কালি ও কলমের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোকে, যারা তরুণ লেখকদের সাহিত্যচর্চাকে প্রতিনিয়ত নানাভাবে উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে।পুরস্কারজয়ী লেখকদের অভিনন্দন জানিয়ে ওয়াসি আহমেদ বলেন, ‘অভিজ্ঞতা থেকে দেখা গেছে, পূর্বের কালি ও কলম পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখকেরা তাঁদের পরবর্তী কাজগুলো দিয়ে আরও সফল এবং পরিণত হয়েছেন। আশা করছি, আজ পুরস্কৃত লেখকেরাও সেই ধারা অব্যাহত রাখবেন। তাঁদের কাছ থেকে আরও বেশি সৃষ্টিশীল সাহিত্যের স্বাদ পাবেন পাঠকরা।’


অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী শাহ এ সারওয়ার। তিনি বলেন, ‘আইএফআইসি ব্যাংক যাত্রার শুরু থেকেই বিভিন্ন সাংস্কৃতিক উদ্যোগের সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ত রেখেছে। আমরা বিশ্বাস করি, সাংস্কৃতিক পরিশীলন ছাড়া একটি সমাজের সর্বাত্মক উন্নয়ন সম্ভব নয়। এই পথচলার ধারাবাহিকতায় আমরা গর্বিত কালি ও কলমের সঙ্গে থাকতে পেরে। আশা করি, বাংলাদেশের সাহিত্যের উন্নয়ন ও বিকাশে আমাদের এই যৌথ প্রয়াস কিছুটা হলেও অবদান রাখতে সক্ষম হবে।’

যৌথভাবে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী ও অভিনয়শিল্পী ত্রপা মজুমদার।সাহিত্য, শিল্প ও সংস্কৃতিবিষয়ক মাসিক পত্রিকা কালি ও কলম বাংলাদেশের নবীন কবি ও লেখকদের সাহিত্যের সৃজনধারায় গতি সঞ্চারের উদ্দেশ্যে ২০০৮ সাল থেকে ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার’ প্রদান করে আসছে। পাঁচটি ক্ষেত্রে এ পর্যন্ত ৪৩ জন কবি ও লেখক এ পুরস্কার অর্জন করেছেন। এই পুরস্কার নবীনদের সাহিত্যচর্চা ও সাধনাকে সঞ্জীবিত করেছে। এ বছর থেকে কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার আয়োজনে যুক্ত হয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক।

তথ্য সুত্র - প্রথম আলো




শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ