About Us
Md. Akhter Ali - (Chuadanga)
প্রকাশ ১০/০৬/২০২১ ১২:১৭এ এম

একাধিক শিশুকে ধারাবাহিক বলাৎকার

একাধিক শিশুকে ধারাবাহিক বলাৎকার Ad Banner

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার মোক্তারপুর গ্রামে একাধিক শিশুকে ধারাবাহিক বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে শামীম হোসেন (৩০) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। গ্রামের ভুক্তভোগি এক কিশোরের পরিবার এ অভিযোগ তুলেছে।

আজ বুধবার দুপুরে ওই কিশোরকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভুক্তভোগি কিশোর মুক্তারপুর গ্রামের এক কৃষকের ছেলে এবং স্থানীয় মাদরাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র। 

নির্যাতনের শিকার ওই মাদ্রাসা ছাত্রের মা জানান, গত দুই মাস আগে একই গ্রামের মিনারুল ইসলামের ছেলে শামিম হোসেন (৩০) আমার ছেলেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়ে পাঁচবার বলাৎকার করে।

বিষয়টি কাউকে না জানাতে হুমকিও দেয় সে। আমার ছেলেসহ এলাকার বেশ কয়েকজন শিশুকে বলাৎকার করেছে শামীম। গতকাল মঙ্গলবার ঘটনাটি জানাজানি হয়।

বলাৎকারের ঘটনাটি জানতে পেরে গতকাল রাতে আমার ছেলেকে বিষয়টি জিজ্ঞেস করি। সে কাঁদতে কাঁদতে পুরো ঘটনাটি আমাকে খুলে বলে। 

তিনি আরও জানান, আমার ছেলে বমি করছে। সাথে ব্যাথাও অনুভব করছে। তার শারীরিক অবস্থা ভাল নয়। আমি শামীমের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করবো।

আমি তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।  চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ওয়াহেদ মাহমুদ রবিন জানান, বলাৎকারের শিকার এক কিশোরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে বলাৎকারের আলামতও পাওয়া গেছে। 

এ বিষয়ে দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল খালেক জানান, ওই ঘটনায় এখনও নির্যাতনের শিকার কিশোরের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ