About Us
Apu Das - (Dhaka)
প্রকাশ ০৯/০৬/২০২১ ০৯:০৭পি এম

পুল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি

পুল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি Ad Banner
মার্কেটিং, একটি বিজনেস এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মার্কেটিংকে বর্তমান বিজনেস এর প্রাণ বলা যায়। আপনি যদি একজন উদ্যোক্তা হয়ে থাকেন, তাহলে মার্কেটিং কে গুরুত্ব দিতে হবে । কারণ, আপনি আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস লাইন দাড় করে ফেললেন, কিন্তু আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস কেউ নিচ্ছে না। আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস এর বিষয়ে কেউ কিছু যানে না তাহলে, তারা কীভাবে আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস নিবে। আর ঐ সকল টার্গেটেড কাস্টমারদের কে আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস সম্পর্কে জানানোর জন্য প্রয়োজন সঠিক মার্কেটিং স্ট্রাটেজি ।

মার্কেটিং এর মৌলিক কিছু স্ট্রাটেজিতে দেখা যায় মার্কেটিং এর দুটি পদ্ধতি রয়েছে -
১. পুল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি
২. পুশ মার্কেটিং স্ট্রাটেজি

আজকে আমরা জানব পুল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি সম্পর্কে -
যখন টার্গেটেড কাস্টমারকে আপনার প্রোডাক্ট এর কাছে নিয়ে আসা হয়, তখন তাঁকে বলা হয় পুল মার্কেটিং।
আপনি পুল মার্কেটিং শুরু করার আগে আপনাকে বুঝতে হবে আপনি যেই ধরনের প্রোডাক্ট বা সার্ভিস নিয়ে কাজ করবেন সেটা আসলে পুল মার্কেটিং এর জন্য উপযোগী কিনা?

কারণ, মার্কেটিং স্ট্রাটেজি ভুল এর কারনে আপনার বিজনেসে লসের সম্ভবনা বেশি থাকবে। সুতরাং, যখন আপনি পুল মার্কেটিং শুরু করবেন তখন আপনার টার্গেটেড কাস্টমার কারা এবং তাদের কেনার আচরণ রিচার্স করে সেই অনুযায়ী সমস্যার সমাধান বের করতে হবে। যার মাধ্যমে একজন কাস্টমার নির্দিষ্ট ভাবে বুঝতে পারে যে কেন তার প্রোডাক্টটি প্রয়োজন এবং সেটি কিনলে কাস্টমার কী কী সুবিধা পাবে।

এই পুল মার্কেটিং স্ট্রাটেজিতে বিজ্ঞাপনের থেকেও বেশি নজর দিতে হবে নিম্নোক্ত বিষয় গুলোতে -
১. আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস এর ইউনিকনেস এর উপর।
২. সঠিক সমস্যার সমাধান এবং
৩. কাস্টমার সার্ভিস এর উপর।
যখন এই উপরোক্ত বিষয়গুলো মাথায় রেখে আপনি আপনার পুল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি তৈরি করবেন, তখন অবশ্যই আপনি আপনার সঠিক লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবেন।

আপনাদের সহযোগীতা পেলে পরবর্তী পাঠে পুশ মার্কেটিং স্ট্রাটেজি নিয়ে লিখবো।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ