About Us
Hasan - (Dhaka)
প্রকাশ ১০/০৬/২০২১ ০১:৪৪এ এম

মরননেশা এলএসডি

মরননেশা এলএসডি Ad Banner

সাইকেডেলিক মাদক এলএসডি।  LSD : Lysergic Acid Diethylamide  উৎপাদনঃ রাই জাতীয় শস্যের গায়ে জন্মানো এক বিশেষ ধরনের ছত্রাকের শরীরে Lysergic Acid উৎপন্ন হয়।সেই এসিড রাসায়নিক সংশ্লেষণের মাধ্যমে LSD তৈরি করা হয়। 

আবিস্কার ঃ ১৯৩৮সালে সুইজারল্যান্ডের রসায়নবিদ  আলবার্ট হফম্যান নিম্ন রক্তচাপ ও শ্বাস-প্রশ্বাস উন্নত করার ঔষধ নিয়ে গবেষনা করতে গিয়ে নিজের অজান্তেই  LSD তৈরি করেন। 

ব্যবহারঃ ১৯৫০ ও ৬০ এর দশকে মানসিক রোগ, দুশ্চিন্তা, বিষন্নতা ও অবসাদের চিকিৎসায় পরিক্ষামুলকভাবে LSD ব্যবহার শুরু হয়। পরে ১৯৭১ সালে জাতিসংঘ চিকিৎসার জন্য LSD ব্যবহার নিষিদ্ধ করে। 

পরিমাণ ঃ এই মাদকের পরিমাণ মাইক্রোগ্রামে হিসাব করা হয়। ১ মাইক্রোগ্রাম হল ১ গ্রামের ১০ লক্ষ ভাগের ১ ভাগ। সাধারনত LSD একটি ডোজ ৪০-৫০০ মাইক্রোগ্রাম হতে পারে।  সেবন ও ভয়াবহতাঃ মাদক হিসেবে LSD ব্লটার কাগজে বিক্রি করা হয়।  এই কাগজ জিহ্বার নিচে বা উপরে রেখে সেবন করা হয়। 

 LSD সেবনের ফলে তা মানুষের মস্তিস্কের সেরোটোনিন নামক রাসায়নিকের কার্যক্রম প্রভাবিত করে। যার ফলে মানুষের শ্রবন ও দর্শন ইন্দ্রিয় অতি সক্রিয় হয়ে যায়। সেকারণেই সেবনের পর মানুষ অদ্ভুত আলো বা রং দেখতে পায়।কেউ আবার অস্বাভাবিক শব্দ শোনে বাস্তবে যার কোন অস্তিত্ব নেই। এই অবস্থাকে LSD Trip বলে।

এই অবস্থায় থাকাকালীন সময়ে মানুষ অস্বাভাবিক আচরণ করে। অনেকের মধ্যে আত্বঘাতি প্রবনতাও লক্ষ করা যায়।    এ ধরনের খারাপ অনুভূতিকে Bad Trip বলে। এর কারনে মানুষ অমুলক ভয় পায়, মুহূর্তেই মারাত্মক দুশ্চিন্তায় ভোগে,আতংকগ্রস্থ্য হয়ে পরে,নিজের ও অন্যের ক্ষতি করার প্রবনতা তৈরি হয়।

এছাড়াও LSD সেবনের ফলে মানুষের হৃদস্পন্দন, রক্তচাপ,শ্বাস-প্রশ্বাসের মাত্রা এবং শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায়।  LSD সেবনের আধঘন্টার মধ্যেই এর কার্যকারিতা শুরু হয়ে তা ব্যক্তিভেদে ৬/১২ ঘন্টা পর্যন্ত থাকতে পারে। তবে সেবনের পরিমান অনুযায়ী এর কার্যকারিতা ২০ ঘন্টাও থাকতে পারে। কারো ক্ষেত্রে চরম অনিদ্রা দেখা দেয়।কারো আবার অতিরিক্ত ঘুম হয়।

এছারাও বিষন্নতায় ভোগা ব্যক্তিরা LSD সেবনের পর আরো বেশি দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হয়ে যেতে পারে। আবার অনেকেই মনে করে সেবনের পরে তাদের শরীরে দানবীয় শক্তি চলে এসেছে।

এ ধরনের কল্পনা থেকেও অনেক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।  Flashback: LSD সেবনের সব থেকে ভয়াবহ দিক হচ্ছে Flashback. এর কারনে জীবনে মাত্র একবার LSD সেবনের কয়েকদিন /কয়েকমাস বা বছরখানেক পরেও LSD সেবন ছাড়াই হুট করে এর প্রভাব মস্তিষ্কের ওপর পরতে পারে।

এর ফলে মানুষ দীর্ঘমেয়াদি মানসিক সমস্যায় ভুগতে পারে। কোন কোন ক্ষেত্রে LSD সেবনকারী আত্যহত্যার মত ভয়ংকর ও জঘন্য কাজ করতেও দ্বিধাবোধ করেনা।

সম্প্রতি বাংলাদেশের এক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর আত্যহত্যার কাহিনি কারো অজানা নয়। তাই নিজে সচেতন হোন এবং এই লেখাটি বেশিবেশি শেয়ার করে প্রিয়জন ও চারপাশের সকল মানুষকে সচেতন হতে সাহায্য করুন।  


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ