About Us
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১
Md Jahidul Islam Sumon
প্রকাশ ০৯/০৬/২০২১ ০২:০৪পি এম

নতুন করে গবেষণায় করোনা নিয়ে ফের প্রকট চীনা মাংস বাজার তত্ব

নতুন করে গবেষণায় করোনা নিয়ে ফের প্রকট চীনা মাংস বাজার তত্ব Ad Banner

করোনা (corona) নিয়ে ফের প্রকট হচ্ছে মাংস বাজার (meat market) থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর তত্ব। করোনা ছড়িয়ে পড়ার সময়েই বলা হচ্ছিল যে চীনের (china) ওই মাংস বাজারে বে-আইনি ভাবে অনেক জীবের মাংস বিক্রি হতো যা মানুষ খেত এবং তা থেকেই ছড়িয়ে পড়ে করোনা। মাঝখানে অনেকদিনই এই দাবি নিয়ে আলোচনা বন্ধ ছিল, কিন্তু নয়া তত্ব বলছে ওই বে-আইনি মাংস বাজার থেকেই করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (joe biden) এ নিয়ে ফের তদন্তের নির্দেশ দেন। তার ঠিক সপ্তাহ দুয়েক পরেই এই গবেষণা পত্রের দাবি যে চীনের মাংস বাজার দায়ী করোনার জন্য।

বেজি, পাম সিভেট, রাকুন কুকুর, সাইবেরিয়ান ওয়েসেল, হগ বেগার, চীনা গেছো ইঁদুরের মতো ৩৮টি প্রাণীর মাংস সেখানে বিক্রি হত। গবেষণা পত্র যা গত বছর অক্টোবর মাসে জমা দেওয়া হয়েছিল, তা সোমবার প্রকাশিত হয়েছে তা ফের প্রমাণ দিচ্ছে যে মাংস বাজার করোনার কারণ। সম্প্রতি জো বাইডেন মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগকে বলেন, ৯০ দিনের মধ্যে করোনার উৎসস্থল খোঁজ করে দিতে হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এই সংক্রমণ প্রাণীর সাথে মানুষের যোগাযোগ থেকে হয়েছিল কিনা বা কোনও ল্যাব কারণে মহামারী ঘটেছে কী না তা নিয়ে পর্যাপ্ত তদন্ত করতে হবে।’ হোয়াইট হাউসের দিয়ে সপ্তাহ খানেক আগে বলে, ‘করোনা ভাইরাসের উৎস নিয়ে দুটি সম্ভাবনা রয়েছে। একটি উহানের মাছ-মাংসের বাজার থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। দ্বিতীয়টি , উহানের ল্যাবে কোনও মারক ভাইরাস নিয়ে গবেষণা হচ্ছিল, সেখান থেকেই করোনার ছড়িয়ে যায়। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মার্কিন গোয়েন্দাদের পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করে করোনা মহামারীর উৎপত্তিস্থল নিয়ে ৯০ দিনের মধ্যে জানাতে চেয়েছেন।’

এর আগেও আমেরিকা করোনা নিয়ে বহুবার চীনের দিকেই আঙুল তুলেছে। সে দেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তো এই ভাইরাসকে ‘চীনা ভাইরাস” বলেই দিয়েছিলেন। করোনা ছড়ানোর জন্য চীনকে দায়ী করেন অনেকবারই। চীন তা নিয়ে আপত্তি করেছিল। তাতে লাভ হয়নি। নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও সেই পথেই হাঁটছেন। করোনার উৎসস্থল নিয়ে চীনের দিকেই সন্দেহের আঙুল তুলেছেন।



শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ