About Us
Md. Razib Hossain - (Kushtia)
প্রকাশ ০৮/০৬/২০২১ ০৩:০৫পি এম

হাটশ হরিপুরে ভন্ড কবিরাজের খপ্পরে অনেকেই দিশেহারা

হাটশ হরিপুরে ভন্ড কবিরাজের খপ্পরে অনেকেই দিশেহারা Ad Banner

ভণ্ড মহিলা কবিরাজের পাল্লায় সর্বস্বান্ত হরিপুরের বেশকিছু পরিবার।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন কয়েকজন ভুক্তভোগী।

জানা যায়, কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাটশ হরিপুর এলাকার জুয়েলের স্ত্রী রোকসানা জিনের ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে অর্থ এবং সোনাদানা হাতিয়ে নেয়।

ভুক্তভোগী হরিপুর এলাকার মৃত জের আলীর ছেলে আব্দুল মালেক (৫০) জানান, আমাকে পানি পড়া খাইয়ে অসুস্থ বানাই। এরপর আমার নাতনি কে জিনে হত্যা করবে বলে ভয় দেখায়। আমি ভয়ে রোকসানার কাছে ৯৬ হাজার ৯ টাকা দিয়েছি‌। আমি মাছের ব্যবসা করি। ওর জন্য সব পুঁজি হারিয়ে ফেলেছি।

হরিপুর এলাকার রবিউলের স্ত্রী পপি জানান, আমাকে জিনের ভয় দেখিয়ে ৫০ হাজার টাকা ও প্রায় ৩ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়েছে রোকসানা। রোকসানা আমাকে সর্বস্বান্ত করে ফেলেছে। এছাড়াও কল্পনা নামের এক মেয়ের কাছ থেকে স্বর্ণালঙ্কার ও ২ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

এবিষয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় ভুক্তভোগীরা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

ভুক্তভোগীরা জানান, হরিপুরের স্বর্ণ ব্যবসায়ী সুমনের কাছে তাদের স্বর্ণালঙ্কার নগদ টাকার বিনিময়ে জিম্মায় রাখে। এই অভিযোগের বিষয়ে জানতে রোকসানার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সাব্বিরুল আলমের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ