About Us
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
MD Mizanur Rahman - (Gazipur)
প্রকাশ ০৮/০৬/২০২১ ০২:৩০পি এম

সকল প্রবাসীদের প্রবেশ ও দেশে যাওয়ার সুযোগ দিলো কুয়েত সরকার!

সকল প্রবাসীদের প্রবেশ ও দেশে যাওয়ার সুযোগ দিলো কুয়েত সরকার! Ad Banner

কুয়েতে করোনার বিস্তার ঠেকাতে সময় উপযোগী গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করছে দেশটির সরকার।

স্থানীয় নাগরিক ও বিভিন্ন দেশের প্রবা’সীদের সুরক্ষায় চারটি টিকার অনুমোদন দিয়েছে কুয়েত  সরকার।যা’দের বৈ’ধ আকামা রয়েছে এবং যারা ফাইজার, অক্সফোর্ড,’ জনসন ও মডার্নার টিকা গ্রহণ করবেন, তাদের কুয়েত প্রবেশ ও বাই’রে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। বাংলাদেশে ছুটি’তে থাকা কুয়েত  প্রবাসীরা নিজ নিজ কর্মস্থলে আসতে হলে অগ্রাধিকার’ভিত্তিতে এই টিকা প্রদানের সুযোগ দিতে হবে।টিকা না নিলে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর থেকে আকামা নবায়ন হবে না প্রবাসীদের।

স্থানীয় ‘নাগরিক ও প্রবাসীদের টিকার আওতায় আনতে দেশটি বিভিন্ন অঞ্চলে টিকা দান কেন্দ্র চালু করেছে। এ ছাড়া করোনার ‘কারণে অনেক প্রবাসী আয়-রো’জ’গার কমে যাওয়ায় অনেকেই আবার মা’নসি’কভাবে অ’সু’স্থ’তায় ভো’গ’ছেন।  জ’রুরি প্রয়োজনে ছুটিতে দেশে গেলে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টির খরচ যাতে বাংলাদেশ সরকার বহন করে— এ দাবি জানান কুয়েত প্রবাসী বাং’লাদেশিরা।

ফেনীর দাগনভূঁ’ইয়া এলাকা থেকে কুয়েতে আসা প্রবাসী বেলাল হোসেন বলেন, করোনার কারণে আমাদের কর্মঘণ্টা কমে গেছে, তাই কমে গেছে বেতনও। আর্থিক কষ্টের মধ্যে কোনোভাবে দিন কাটছে করোনাকালে। আমরা আমাদের ক’ষ্টে অ’র্জি’ত অ’র্থ দেশে পা’ঠিয়ে দেশের উন্নয়ন ও অর্থ’নীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে যাচ্ছি। 

প্রবাসীদের এ বিপদের সময়ে সরকারের সহযোগিতা জরুরিভাবে প্রয়োজন, দেশে যারা ছুটিতে আছে, তাদের অগ্রাধিকারভিত্তিতে আগে কুয়েত সরকার অনুমোদিত টিকা দিতে হবে। জরুরিভাবে দেশে যেতে চাইলে হোটেল বুকিং ছাড়া টি’কি’ট হচ্ছে না। বাংলাদেশ সরকার যাতে এই প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের খরচ বহন করে— এ দাবি কুয়েত প্রবাসীদের ।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ