About Us
Hasan - (Dhaka)
প্রকাশ ০৭/০৬/২০২১ ১২:২৮পি এম

জীবন

জীবন Ad Banner

প্রথম অংকের পরবর্তী অংশ।

সকালের কাজটা শেষ।এখন আরামেই চা খাওয়া যায়।অফিসের সামনেই একটা দোকান আছে।গরুর দুধের চা বিক্রি করে।অনেক নামকরা চা।দূর থেকেও অনেক লোক আসে এখানে চা খেতে কিন্তু আমার কাছে ভাল লাগেনা।তবুও খাই।আশেপাশে তো আর দোকান নেই না খেয়েই বা উপায় কি।ওহ একটা কথা বলা হয়নি।আমি সিগারেট খাই কিন্তু সব সময় না মাঝে মাঝে।

চা আর সিগারেট হাতে দারিয়ে আছি।কিছুক্ষন পরপর চায়ে চুমুক আর বিরিতে টান।

বাহ ভালই লাগছে।অদ্ভুদ একটা বিস্রি নেশা।কি আনন্দ এই নেশায় বলা যায়না।জীবনটাও অদ্ভুদ।একসময় চকলেট ভাল লাগত।তারপর পিৎজা,স্যুপ,মোগলাই,মোরের দোকানের মামার পুরি,পিয়াজি,চা কত কিছু।অথচ সময়ের বিবতর্নে ধোয়ার মত বিশাক্ত কিছুতেও মজা পাই।সবই আজব।বরই আজব।বিরি টানতে টানতে একটু বেশিই ভাবছি।আবেগ জমে গেছে মনে।

ফোন বেজে উঠল-

-হ্যালো আসসালামুয়ালাইকুম। 

-ওয়ালাইকুম আস সালাম।ওয়েডিং আর্ট প্লানার থেকে বলছেন?

-জ্বী।

-ধানমন্ডি থেকে বলছি।আপনার আজকে আসার কথা ছিল কখন আসছেন?

-জ্বী ৩০ মিনিটের মধ্যে আসছি।

-ওকে।

দ্বিতীয় অংক।।

সকাল ১০ টা ৩০ মিনিট।ধানমন্ডি কাস্টমারের বাসায় বসে আছি।বসার ঘরটা খুব সুন্দর করে সাজানো হয়েছে। অনেক টাকা খরচ করা হয়েছে এর জন্য।যে টাকা এখানে খরচ করা হয়েছে তা দিয়ে গ্রামের একটা পরিবার মোটামুটি ১ বছর চলতে পারবে।অহেতুক কথা বারাচ্ছি।বকবক করা একটা অভ্যাস হয়ে দারিয়েছে।

আমি আর বস বসে আছি।১০মিনিট আগেই চা দিয়ে গেছে কিন্তু কেউ আসছেনা।চা শেষ করে অপেক্ষা করছি।একজন ভদ্রমহিলা আসলেন সাথে তার দুই মেয়েকে নিয়ে।ছোট মেয়েকে দেখে আমি অনেক অবাক হলাম।হুবুহু সাদিয়ার মত দেখতে।বয়স ১৭/১৮ হবে।মাঝারি স্বাস্থ্য,দেখতে শ্যামলা,উচ্চতাও মাঝারি।আমি অবাক হয়ে তাকিয়ে রইলাম।ডান পাশ দিয়ে চুল ছেরে রেখেছে।লম্বা চুল মৃদু বাতাসে খেলা করছে।মুহুর্তেই বুকটা হুহু করে উঠল।ওর চুল,মুখ,ঠোট,দাত,গ্রিবা,হাত,পা সব আমার চেনা।অনেক ভাল করেই চেনা।অনেক কাছ থেকে অনেকবার দেখেছি।নির্বাক হয়ে তাকিয়ে রইলাম।মেয়েটি আমার দিকে তাকালো।আমার এভাবে তাকিয়ে থাকা দেখে বিরক্ত হল।আমি চোখ ঘুরিয়ে নিলাম।

তিনজনই আমাদের সামনের সোফায় বসল।টি টেবিলের ওপর ল্যাপটপ রাখা।একের পর এক ডিজাইন দেখছে।

আমি নিরবে মনের সাথে যুদ্ধ করছি।একবার বলছি এটা সাদিয়া।আবার বলছি না।সাদিয়া এখানে আসবে কি করে?আসলেও তো আমাকে চিনত।নাহ এটা সাদিয়া না।সাদিয়ার মত অন্য কেউ।

আবার তাকালাম।

চলবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ