About Us
Rezwan Ahmed Al Mamun - (Sunamganj)
প্রকাশ ০৭/০৬/২০২১ ১১:৪৪এ এম

জগন্নাথপুর বিদুৎ সাবস্টেশনের কাজ শুরু

জগন্নাথপুর বিদুৎ সাবস্টেশনের কাজ শুরু Ad Banner

জগন্নাথপুরে ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে বিদ্যুতের নতুন সাবস্টেশন নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। রবিবার পৌরসভার ভবেরবাজার এলাকায় এই সাবস্টেশনের পাইলিংয়ের কাজ হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সিদ্দিক আহমদ, সিলেটের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা ও উন্নয়ন প্রকল্পের সহকারি প্রকৌশলী সাইদুর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা আবাসিক (বিদ্যুৎ) প্রকৌশলী আজিজুল ইসলাম আজাদ, এলাকার প্রবীণ মুরব্বী হাজী আলা মিয়া. পৌর আওয়ামী লীগ নেতা ইউনুস মিয়া, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক কামরান আহমদ প্রমুখ।

স্থানীয় বিদ্যুৎ আবাসিক প্রকৌশলী কার্যালয় সূত্র জানায়, সিলেটের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা ও উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ভবেরবাজার এলাকায় ৮০ শতাংশ ভূমিতে বিদ্যুতের সাবস্টেশন কাজ নির্মিত হচ্ছে। ২০১৯ সালে টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রকল্পের কাজ পান টিকাদারী প্রতিষ্ঠান এনার্জি প্যাক লিমিটেড ঢাকা। আগামী বছর সাবস্টেশনেরর কাজ শেষ হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলেও জগন্নাথপুর পৌরসভার ভবেরবাজার, ইসহাকপুর, ইনাতনগরসহ উপজেলার পাটলী, মিরপুর ও সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের ১০ হাজার গ্রাহক বিদ্যুতের সুফল পাবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

জগন্নাথপুর উপজেলা আবাসিক (বিদ্যুৎ) প্রকৌশলী আজিজুল ইসলাম আজাদ বলেন, আমাদের মাননীয় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান প্রচেষ্টায় জনসাধারণের জন্য বিদ্যুৎ সেবা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে নতুন সাবস্টেশন নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এটি বাস্তবায়িত হলে বিদ্যুতের লো-ভোল্টেজ ও ঘনঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূর হবে।

প্রকল্পের কাজের তদারকির দায়িত্বরত কর্মকর্তা সিলেটের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা ও উন্নয়ন প্রকল্পের সহকারি প্রকৌশলী সাইদুর রহমান বলেন, এলাকাবাসির সুবিধার্থে বিদ্যুতের নতুন সাবস্টেশনের জন্য ৮০ শংতাংশ ভূমির মধ্যে ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৬০ শতাংশ ভূমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। অবশিষ্ট ২০ শতাংষ ভূমি রয়েছে সরকারি। নতুন সাবস্টেশন স্থাপিত হওয়ার পর ১০ হাজার গ্রাহক বিদ্যুতের সুফল পাবেন।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৬ সালে সিলেটের কুমারকালি এলাকা থেকে জগন্নাথপুর উপজেলায় সর্বপ্রথম বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়া হয়। ১৯৯৮ সালের দিকে জগন্নাথপুরে বিদ্যুতের লো-ভোল্টেজ ও ঘনঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দিলে ২০১২ সালে স্থানীয় সংসদ সদস্য বর্তমান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের প্রচেষ্ঠায় পৌরশহরের ইকড়ছই আবাসিক এলাকায় বিদ্যুতের সাবস্টেশন স্থাপন করা হলে সৃষ্ট লো-ভোল্টেজের সমস্যা দূর হয়।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ