About Us
Hasan - (Dhaka)
প্রকাশ ০৭/০৬/২০২১ ০১:১৫এ এম

জীবন

জীবন Ad Banner

প্রথম অংক।

বিরক্তিকর এলার্মের শব্দেই ঘুম ভাঙ্গলো।

সকাল ৮ টা উঠতেই হবে।ছোট একটা চাকরি করি নিজের ও পরিবারের জন্য তাই বাধ্য হয়ে উঠলাম।

চা খেতে অনেক পছন্দ করি।যদি ফ্ল্যাট বা ভাল জায়গায় থাকতাম তবে চায়ের পানি বসিয়ে গোসল করতে যেতাম।কিন্তু তা আর হবেনা।এমন রুম নিয়ে থাকি যেখানে রান্নার কোন ব্যবস্থা নাই।সব খাবার বাহির থেকেই খেতে হয়।এসব ভেবে আফসোস করে লাভ নাই তাই ব্রাশ হাতে গোসলের জন্য উঠে পরলাম।গোসল শেষ না করতেই কয়েকবার ফোন বাজল।তারাহুরো করে বেরিয়ে আসলাম।বাবা আর বসে্র মিসড কল উঠে আছে।শার্ট প্যান্ট পরতে পরতেই বাবাকে কল করলাম-

-হ্যালো

-জ্বী বাবা বলেন।

-বের হবি কখন?

-এইতো পাচঁ মিনিট লাগবে।

-ঠিক আছে টাকা পাঠিয়ে আমাকে জানাও।

-ঠিক আছে।

কল কেটে দিল।

গতকাল রাতেই বলেছিল গ্যাস কেনার টাকা পাঠাতে কিন্তু রাতে সময় পাইনি।

বাসার সামনেই চায়ের দোকান।ভাল চা বানায়।প্রতিদিন ভাবি চা খাব কিন্তু কোন না কোন কারনে খাওয়া হয়না।আজও হলনা।তারাতারি টাকা পাঠিয়ে অফিসে চললাম।

সকাল ৯ টা আমি অফিসে।বসে্র সাথে দেখা করেই বেরিয়ে পরব চা খেতে।

বসে্রা কেমন যেন না আসা পর্যন্ত কল করে করে পাগল বানাবে আর তারাহুরো করে এসে দেখা যাবে এমনি এমনিই এত কল।তবে যাই বলি আমার বস্ অনেক ভাল কাজ বোঝেন।অনেক জটিল কাজও অনেক সহজেই করতে পারে।আমি মাঝে মাঝে অবাক হই।অবস্য এমন একটা না একটা গুন বসে্র থাকবেই নাহলে তো বস্ হওয়া যায়না।অনেক পরিস্রম আর মেধা দিয়েই তো ওনারা বস্ হন।

খুব তারাহুরো করে বসে্র রুমে ঢুকলাম।

মুখের এমন একটা ভাব করলাম যেন আসতে অনেক কস্ট হয়েছে।

বস আমার দিকে না তাকিয়েই বলল-

-আজকে না ধানমন্ডি যাওয়ার কথা আছে কাস্টমারের বাসায়?

-হ্যা।যাওয়ার কথা।

-কখন যাবে?

-ভদ্র মহিলা কল করবে বলেছে।

-কল করলে আমাকে জানাও।আর রিং রোডের দেশি ফার্মার ডেমোটা রেডি করে রাখ বিকেলে যাব।

-ঠিক আছে কিন্তু জায়গা তো দেখিনি।

-ল্যাপটপে ভিডিও রাখা আছে দেখে নাও।

-আচ্ছা।


(চলবে)


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ