About Us
Jahidur Rahman - (Dhaka)
প্রকাশ ০৬/০৬/২০২১ ০১:২৪পি এম

এবারের বাজেটে শিক্ষা ও চাকুরী খাত কি উপেক্ষিত হল?

এবারের বাজেটে শিক্ষা ও চাকুরী খাত কি উপেক্ষিত হল? Ad Banner

মহামারী করোনার দ্বিতীয় টেউয়ের সময়ে করোনাকালীন দ্বিতীয় বাজেট গত ৩ই জুন জাতীয় সংসদে উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। গত বছর ১৭ই মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। সরকারি-বেসরকারি সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট সকলে চরম আর্থিক ক্ষতি হয়েছে বন্ধ থাকার কারণে। সকলের আশা ছিল এই ব্যাপারে প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করবে অর্থমন্ত্রী। কবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলবে তার সঠিক দিকনির্দেশনাও আসবে। এর কিছুই এবার বাজেটে দেখা গেল না। উল্টো সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর ১৫% শতাংশ ভ্যাট মরার উপর খাঁড়ার ঘায়ের মত চাপিয়ে দিলো। 

প্রাথমিক ও গণশিক্ষায় ২৬ হাজার ৩১১ কোটি টাকা; মাধমিক ও উচ্চ শিক্ষায় ৩৬ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষায় ৯ হাজার ১৫৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু, করোনাকালীন সময়ে কত যুবকদের চাকরি চলে গিয়েছে তার হিসাব সরকারের কাছে নেই। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় কত শিক্ষার্থী ঝরে পড়ে যাচ্ছে তার হিসাব নেই। তাই শিক্ষার্থীদের জন্য কোনো উদ্যোগ বা শিক্ষিত বেকার যুবকদের জন্য ভাতা উপেক্ষিত থেকে গিয়েছে।

বিষয়গুলো নিয়ে বিরোধী দলগুলো, বিশ্লেষকদের মতামত,পর্যবেক্ষণের জোর দাবি করছি তারা যেন চাপ দেয় সরকারকে। বাজেট এখনও পাশ হয়নি তার আগেই বিষয়গুলো মীমাংসা না পেলে সমাজে বেকার যুবকদের সংখ্যা বাড়তেই থাকবে ও অন্যায়, অপরাধ বাড়তেই থাকবে। এভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে চলতে থাকলে ভবিষ্যতে শিক্ষাবিহীন অন্ধকার এক জাতি পাবো আমরা। 



শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ