About Us
নুরুজ্জামান 'লিটন' - (Naogaon)
প্রকাশ ০৪/০৫/২০২১ ১০:৪১পি এম

নওগাঁয় বিপুল পরিমাণ চুরি হওয়া আতপ চালসহ আটক-২

নওগাঁয় বিপুল পরিমাণ চুরি হওয়া আতপ চালসহ আটক-২ Ad Banner

নওগাঁর মহাদেবপুর থেকে এসিআই কোম্পানির ১৩ টন চিনিগুড়া প্রিমিয়াম সুগন্ধি আতব চালসহ একটি ট্রাক নিয়ে পালিয়ে যায় এক প্রতারক চক্র। ট্রাক চুরি যাওয়ার ১৬ দিন পর  গতকাল ৩ মে সোমবার,রাত সাড়ে ১০টায় রংপুরের গঙ্গাচড়া বাজারস্থ মেসার্স নাঈম ট্রেডার্সের গোডাউন থেকে আট হাজার ৯৪০ কেজি চাল উদ্ধার করে পুলিশ।  এসময় দুই প্রতারককে আটক করা হয়। মঙ্গলবার (৪ মে) দুপুরে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়। 

আটকরা হলেন, বগুড়ার শেরপুর থানার সদর হাসড়া গ্রামের মৃত বাদুল্লা মণ্ডলের ছেলে হেলাল উদ্দিন মণ্ডল (৪৬) ও রংপুরের গঙ্গাচড়া থানার গৃয়েরপাড়া গ্রামের তাজউদ্দিনের ছেলে লেবু মিয়া (৪৮)।  মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, জেলার মহাদেবপুর উপজেলার ভাই ট্রান্সপোর্টের মালিক সুব্রত চক্রবর্তী ওরফে অশোক। তার প্রতিষ্ঠানটি উপজেলার শিবগঞ্জ মোড়ে অবস্থিত। তিনি তার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দীর্ঘদিন থেকে বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাক ভাড়া করে মালামাল পরিবহন করেন।  তার মহাদেবপুরের সরস্বতীপুর ‘এসিআই ফুডস লিমিটেড (রাইস ইউনিট)’ এর সঙ্গে গাড়ি সরবরাহের চুক্তি আছে। 

গত ১৮ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় শামীম হোসেন নিজেকে ট্রাকচালক পরিচয় দিয়ে তার কাছে জানতে চান কোনো ট্রিপ (ভাড়া) আছে কিনা। জবাবে তিনি ট্রিপ নেই বলে জানান।  পরপর ভিন্ন নম্বর থেকে তিনবার তাকে ফোন দেয়া হয়। এরপর একইদিন দুপুর ১২টায় ফোন দিয়ে আবারও অনুরোধ করা হয় তারা ঢাকা থেকে প্লাস্টিকের মাল নিয়ে এসেছিলেন। আবারও ফিরে যাবে। তবে ট্রাক ফাঁকা না নিয়ে কোনোকিছুর ট্রিপ নিয়ে যেতে চান। মহাদেবপুরের নওহাটা মোড়ে তারা অপেক্ষা করছেন।  এর কিছুপর সুব্রত চক্রবর্তী তাদের জানায়, এসিআই কোম্পানির সুগন্ধি চাল আছে যা নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ বাজারে যাবে।

পরে ১১ হাজার টাকায় চুক্তি হয়। ট্রাকে মালামাল উঠিয়ে কাগজপত্রের কাজ সবকিছু সম্পূর্ণ করে দুপুর ২টায় তারা নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। কোম্পানির ম্যানেজার জাকির হোসেন তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে রাস্তায় যানজটের মধ্যে আছে বলে জানায়।  নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেও তারা গন্তব্যে না পৌঁছায় সন্দেহ হয় তাদের।  গত ২১ এপ্রিল সুব্রত চক্রবর্তীর ছোট ভাই সুশান্ত কুমার বাদী হয়ে চালক হাবিবুর রহমান ও হেলফার শামীম হোসেনসহ অজ্ঞাত ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়রি করেন। 

পুলিশি অভিযানে সোমবার দুপুর ২টায় বগুড়া থেকে হেলাল উদ্দিন মণ্ডলকে আটক করে। তার দেয়া তথ্যমতে ওইদিন রাত সাড়ে ১০টায় অভিযান চালিয়ে রংপুর গঙ্গাচড়া থেকে লেবু মিয়াকে আটকসহ গঙ্গাচড়া বাজারে একটি গোডাউন থেকে আট হাজার ৯৪০ কেজি চাল উদ্ধার করা হয়।  মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ বলেন, অভিযোগটি আমলে নিয়ে অনুসন্ধান চালানো হয়। গোপন সংবাদে হেলাল উদ্দিন মণ্ডলকে আটক করা হয়। তিনি এ ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী। তার দেয়া তথ্যমতে, লেবু মিয়াকে আটকসহ চাল উদ্ধার করা হয়। 

তিনি আরও বলেন, আটকরা এবং চালক-হেলপার একে-অপরের আত্মীয়। তারা আন্তঃজেলা প্রতারকচক্র। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।  এছাড়া এ ঘটনার সঙ্গে আরো যারা যুক্ত আছে তাদের আটকসহ বাকি চাল উদ্ধারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ