About Us
Abdur Rahman - (Moulvibazar)
প্রকাশ ০৪/০৫/২০২১ ০৪:০১পি এম

২১তম রমাদান !!দেখেনিন"!

২১তম রমাদান !!দেখেনিন"! Ad Banner



সূরা আল ক্বদর, আয়াত নং-৩,

ﻟَﯿۡﻠَۃُ ﺍﻟۡﻘَﺪۡﺭِ ۙ۬ ﺧَﯿۡﺮٌ ﻣِّﻦۡ ﺍَﻟۡﻒِ ﺷَﮩۡﺮٍ ؔ﴿ؕ۳ ﴾

অর্থ: লাইলাতুল ক্বদর হাজার মাসের চেয়েও উত্তম।

তাফসির:- অর্থাৎ, এক রাত্রির ইবাদত হাজার মাসের ইবাদতের থেকেও উত্তম। আর হাজার মাস ৮৩ বছর ৪ মাস হয়। মুহাম্মাদ(সাঃ)এর উম্মতের উপর কত বড় আল্লাহর অনুগ্রহ যে, তিনি তাদের ছোট জীবনে খুব বেশি সওয়াব অর্জন করার সহজ পন্থা দান করেছেন।

এ আয়াতের শানে নুযূল সম্পর্কে বলা হয় যে, বানী ইসরাঈলের একজন ব্যক্তি ছিলেন যিনি সারা রাত নফল সালাত আদায় করতেন আর দিনের বেলা আল্লাহ তা‘আলার রাস্তায় শত্রুর মোকাবেলায় যুদ্ধ করতেন, তিনি এরূপ হাজার মাস করেছেন। এ কথা জেনে সাহাবীগণ বললেন, হে আল্লাহর রাসূল (সাঃ) আমাদের বয়স তো মাত্র ৬০ থেকে ৭০ বছর। আমরা তো তাদের মত এত দীর্ঘ সময় ইবাদত করতে পারব না। তখন এ আয়াতটি অবতীর্ণ হয়।

এ রাতের ইবাদত বা ভালো কাজ কদরের রাত নেই এমন হাজার মাসের সৎকাজের চেয়ে শ্রেষ্ঠ। এ শ্রেষ্ঠত্ব সম্পর্কে বিভিন্ন হাদীসেও বিস্তারিত বলা হয়েছে। হাদীসে এসেছে, রমাদান আগমন কালে রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, “তোমাদের নিকট রমাদান আসন্ন। মুবারক মাস। আল্লাহ্ এর রোযা ফরদ করেছেন। এতে জান্নাতের দরজাসমূহ খোলা হয়ে থাকে এবং জাহান্নামের দরজাসমূহ বন্ধ করে দেয়া হয়। শয়তানগুলোকে বেঁধে রাখা হয়। এতে এমন এক রাত রয়েছে যা হাজার মাস থেকেও উত্তম। যে ব্যক্তি এ রাত্রির কল্যান থেকে বঞ্চিত হয়েছে সে তো যাবতীয় কল্যান থেকে বঞ্চিত হলো।” [নাসায়ী: ৪/১২৯, মুসনাদে আহমাদ: ২/২৩০,৪২৫] ।

সুতরাং রমাদানের শেষ দশ রাত গুলো প্রতিটি মু’মিন ব্যক্তিকে জেগে ইবাদতের মাধ্যমে অতিবাহিত করা উচিত।

(তাফসিরে আহসানুল বায়ান, তাফসিরে ফাতহুল মাজীদ, তাফসিরে আবু বকর যাকারিয়া)।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ

KAZ
প্রকাশ ০৯/০৫/২০২১ ১১:৫৪পি এম