About Us
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
MD Emran
প্রকাশ ০২/০৫/২০২১ ১১:৪৩এ এম

ক্রমাগত হত্যার হুমকি পেয়ে থানায় জিডি করলেন নুসরাত জাহান

ক্রমাগত হত্যার হুমকি পেয়ে থানায় জিডি করলেন নুসরাত জাহান Ad Banner

মুঠোফোনে ক্রমাগত হত্যার হুমকি পেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় করা মামলার বাদী নুসরাত জাহান। গতকাল  শনিবার কুমিল্লার কোতোয়ালি মডেল থানায় নিজের নিরাপত্তা চেয়ে ওই জিডি করেন তিনি।  এর আগে গত ২৬ এপ্রিল গুলশান-২-এর একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামের এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় মুনিয়ার বোন নুসরাত জাহান বাদী হয়ে গুলশান থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরকে আসামি করেন। 

জিডিতে নুসরাত জাহান উল্লেখ করেন, ওই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য তাকে একাধিক মুঠোফোন নম্বর থেকে ফোন দিয়ে হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এতে করে তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তাই এ ঘটনায় নিরাপত্তা চেয়ে তিনি জিডি করেছেন।  জিডিতে যা লিখেছেন নুসরাত জাহান  যথাযথ সম্মান পূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী নুসরাত জাহান (৩৪), পিতা মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শফিকুর রহমান, স্বামী মো. মিজানুর রহমান। থানায় হাজির হইয়া উপরোক্ত মোবাইল নম্বর ব্যবহারকারী ব্যক্তি বা ব্যক্তিগণদের হুমকি প্রদানের ব্যাপারে লিখিতভাবে জানাইতেছি।   

আমার ছোট বোন মোসারাত জাহান মুনিয়া (২১) এর হত্যা সংক্রান্ত ঘটনার আলোকে আমি বাদী হইয়া গুলশান থানায় বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে মামলা করি। যাহার গুলশান থানার মামলা নং ২৭, তারিখ ২৭/০৪/২০১১ইং ধারা ৩০৬ পেনাল কোড।  উক্ত ঘটনার আলোকে প্রিন্ট মিডিয়াসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধমাধ্যমে ব্যাপক আলোচিত ঘটনা হিসাবে চলমান রহিয়াছে। উক্ত বিষয়কে কেন্দ্র করিয়া মামলা দায়েরের পর হইতে বিবাদী পক্ষের কয়েকজন ব্যক্তি একত্রিত হইয়া আমাকে ও আমার স্বামীসহ পরিবারবর্গের সদস্যদের মামলা প্রত্যাহার করিয়া নেওয়ার জন্য অথবা বিবাদী পক্ষের সহিত উক্ত বিষয়ে সমঝোতা করার জন্য চাপ প্রযোগ অব্যাহত রাখে। 

উক্ত বিষয়ে কর্ণপাত না করায় উল্লেখিত ঘটনার তারিখ ও সময়ে বর্তমান ঠিকানার বাসায় অবস্থান কালে মোবাইল নম্বর ০১৫৭১-৪২৫০৩৩, ০১৫৩৮-১৯৫৭৫১ আরও অন্য কয়েকটি নম্বর হইতে আমার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে কল করিয়া মামলা প্রত্যাহারসহ বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য চাপ প্রয়োগ করতঃ উক্ত বিষয়ে সুষ্ঠুভাবে সুরাহা না করিলে টাকার বিনিময়ে আমাকে অথবা আমার স্বামীসহ পরিবারবর্গের সদস্যদের যেকোনোভাবে যেকোনো উপায়ে বিপদে ফেলিয়া অথবা যেকোনো অঘটন ঘটাইয়া আমাদেরকে খুন জখম করিয়া লাশ গুম করিয়া ফেলিবে। 

যেকোনো ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা মোকদ্দমা দিয়া হয়রানি ও নাজেহাল করিবে বলিয়া একাধিকবার কল করিয়া হুমকি প্রদান অব্যাহত রাখে। তাহারা যেকোনো সময় আমাকে অথবা আমার পরিবারবর্গের সদস্যদের কুমিল্লাসহ বাংলাদেশের যেকোনো স্থানে যাতায়াতের পথে সময় সুযোগমতো পাইলে আক্রমণ করিয়া বা করাইয়া মারপিট ও খুন জখম করিতে পারে বলিয়া আশঙ্কা করিতেছি।  বর্তমানে আমি ও আমার পরিবারবর্গের সদস্যদের নিয়া চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগিতেছি। তাহাদের দ্বারা ভবিষ্যতে আমিসহ আমার পরিবারবর্গসহ আত্মীয়-স্বজনদের জানমালের যেকোনো প্রকার অপূরণীয় ক্ষতি হওয়াসহ হয়রানির শিকার হইতে পারি বলিয়া আশঙ্কা করিতেছি।  অতএব, প্রার্থনা যে, উল্লেখিত ঘটনার আলোকে ভবিষ্যতের জন্য ডায়েরিভুক্ত করার আদেশ দানে মর্জি হয়।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ