About Us
সোহেল রানা - (Dhaka)
প্রকাশ ০১/০৫/২০২১ ১১:২৬পি এম

এ দেশে গরীব মানুষের জন্য রাজনীতি নয়: রাশেদ খান

এ দেশে গরীব মানুষের জন্য রাজনীতি নয়: রাশেদ খান Ad Banner

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রাশেদ খান নিজের মা ও বোনকে পুলিশ কর্তৃক হয়রানির প্রতিবাদে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন এদেশে গরীব মানুষের জন্য রাজনীতি নয়। 


আই নিউজ বিডি'র পাঠকদের জন্য তার ফেসবুক পেইজের স্ট্যাটাস টি হুবহু তুলে ধরা হল "আজকে আমার বাসায় ঝিনাইদহ সদর থানার একজন এসআই গিয়ে আমার মা ও বোনের সাথে খুব খারাপ আচরণ করেছে। আমার মা ও বোনের সাথে তুইতোকারি করেছে। আমার ছোট বোন ৭  মাসের প্রসূতি। মায়ের কিনডি ও পিত্তথলিতে পাথর। কিছুদিন আগে ধারদেনা করে পিত্তথলির অপারেশন করা হয়েছে। কারণ পেটের ব্যথায় মা সহ্য করতে পারছিলো না। এর আগে আমার মা স্ট্রোকও করেছে।। অসুস্থ মা ও বোনের সাথে এমন খারাপ আচরণ কোন মানুষ মেনে নিতে পারে না।


আমার নামে ঢাকায় ৩ টা মামলা হয়েছে। যেসকল অভিযোগ আমার বিরুদ্ধে আনা হয়েছে, আল্লাহকে সাক্ষী রেখে বলছি আমি এধরণের কাজের সাথে জড়িত নয়। স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে দেখতে পারেন।


এসআই কোন কথা না বলেই বাড়ির মধ্যে ঢুকে পড়ে।। গিয়েই খারাপ ব্যবহার শুরু করে। আমার মা তাকে বলে, বাবা বসেন। সে বলে, তোর বাড়িতে আমি বসতে আসিনি। আমার বোন বলে, এমন ব্যবহার করছেন কেন? সে আমার বোনকে বলে, তোর ভাই কোথায়? তোর ভাইয়ের নামে ঢাকায় মামলা হয়েছে। ওর নাম্বার দে... তোর ভাইকে পেলে আছোলা বাঁশ ঢোকানো হবে। 


এরপর আমার আব্বার নাম্বার নিয়ে আব্বাকে কল করে সন্ধ্যার পর থানায় যেতে বলেছে। আমার আব্বা একজন খেটে-খাওয়া শ্রমিক মানুষ। এসআই যখন কল করে তখন আব্বা রোদের মধ্যে পরের বাড়িতে রাজমিস্ত্রীর কাজ করছে। আমাকে উদ্দেশ্য করে এভাবে কথা বলায় এসআইয়ের সামনেই আমার মা ও বোন কেঁদে ফেলে। তখন তিনি কিছুটা নরম হন। 


আমার মা ও বোন রোজা রয়েছে। আমি একমাত্র ছেলে। অনেক কষ্ট করে, এমনকি মানুষের বাড়িতে কাজ করে আমাকে পড়াশোনা করিয়েছে। আমার জীবনে রাজনীতি করার ইচ্ছে ছিলো না। কিন্তু কোটা সংস্কার আন্দোলনে মামলায় জর্জরিত হওয়ায় আর এই জীবন থেকে বের হতে পারিনি।


আমি তো খারাপ কিছু করছি না। আমার এলাকার প্রতিটি মানুষ আমাকে ভালবাসে। আমার চৌদ্দ গোষ্ঠী বাবা দাদা নানার পরিবারের কেউ রাজনীতি করেনা। আমি খুব বুঝতে পেরেছি, দাদা নানা মামা না থাকলে এদেশে রাজনীতি করা মহাপাপ। মাথার উপর ছায়া না থাকায় আমার পরিবারকে বারবার অপমানিত হতে হচ্ছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময়ও আমার আব্বাকে আমার কারণে আটক করা হয়েছিলো।


আমার টেনশনে মায়ের শরীর খুব খারাপ হয়ে যাওয়ায় তাকে একটু আগে হাসপাতালে ভর্তি করা লেগেছে।

আমার খুব ইচ্ছে করছে জীবন থেকে পালিয়ে যেতে। এই দেশের নোংরা ও অপরাজনীতি আমার পক্ষে সহ্য করা দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। আমার ছোট দুটো মেয়ে, অসুস্থ মা বোনের কথা ভাবলে আমি স্তব্ধ হয়ে পড়ি।

এদেশে গরীব মানুষের জন্য রাজনীতি নয়। সংবিধানে আইন করে গরীবদের জন্য রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হোক। তাহলে আমার মত গরীব পরিবারের আর কেউ আন্দোলন বা রাজনীতিতে গিয়ে পরিবারের দুর্ভোগের কারণ হবেনা........"


শনিবার বিকাল ৪ টায় নিজের ফেসবুক পেইজে এসব কথা লিখেন তিনি। এখন লেখাটিতে রিয়্যাক্ট দেখিয়েছে ২০ হাজার মানুষ, কমেন্ট করেছে প্রায় ২৫ শত এবং লেখাটি ২ হাজার বারের উপরে শেয়ার হয়েছে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ