About Us
শনিবার, ১৫ মে ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Md. Akramul Islam - (Rangpur)
প্রকাশ ০১/০৫/২০২১ ০৬:৩৪পি এম

বেদে পল্লীতে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

বেদে পল্লীতে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ Ad Banner

বেদে সম্প্রদায়ের জীবনচিত্র। বাংলা সিনেমার ধারায় আমরা কিছুটা উপলব্ধি করতে পারি। তারপরও সিনেমা আর বাস্তবতার মধ্যে ফারাক থেকেই যায়। অসহায় এই মানুষ গুলোর ঘরে খাবার না থাকলেও মুখে হাসি আর পারস্পরিক বন্ধনই যেনো তাদের বড় সম্পদ। বেদেরা একেকটি দলে বিভক্ত হয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকায় তাবু গেড়ে বসবাস করে যাদের আমরা যাযাবর বলে থাকি। পথেঘাটে সাপের খেলা দেখিয়ে, বিভিন্ন তাবিজ-ওষুধ বিক্রি করে জীবন চালায় তারা।

কিন্তু দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে অসহায় এই মানুষ গুলোর সেই আয় পুরোপুরি বন্ধ প্রায়। ফলে অত্যন্ত মানবেতর জীবনযাপন করছে এই বেদে সম্প্রদায়ের মানুষ গুলি। তারই একটি অংশ স্থান নিয়েছেন রংপুর এর নিশবেতগঞ্জ এলাকায় ঘাঘট নদীর তীরে। রংপুর এর অন্যতম সেচ্ছাসেবী সংগঠন "চলো স্বপ্ন ছুঁই" এবং আরেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন "গিফট ফর গুড" এর যৌথ উদ্যোগে এই মানুষ গুলোর মাঝে সাহায্য নিয়ে পৌঁছাতে সক্ষম হয় "চলো স্বপ্ন ছুঁই"।

আজ (১ মে) এই বেদে পল্লির ৩০ টি পরিবারের প্রায় ১৫০ শতাধিক মানুষের জন্য ৭ দিনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করতে সক্ষম হয় তারা।

"চলো স্বপ্ন ছুঁই" এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মোঃ মুহতাসিম আবশাদ জিসান বলেন, "আমরা ২০১৮ সালে যাত্রা শুরু করে আজ পর্যন্ত যত কাজ করেছি তার একটাই লক্ষ্য ছিলো তা হলো অসহায় ছিন্নমূল মানুষের মুখে হাসি ফোটানো। তাই এই অসহায় বেদে সম্প্রদায়ের জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছি আমরা। আমরা সকলে শিক্ষার্থী। তাই সবাই আমাদের সহযোগিতা করবেন, সেই সাথে দোয়া করবেন যেনো ভবিষ্যতে আরো ব্যাপক পরিসরে এই কাজ গুলো করতে পারি আমরা"।

চলো স্বপ্ন ছুঁই এর সহ প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ তানজিম আলম তাসিন বলেন, "করোনার শুরু থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৪৫০০ পরিবারকে ‘চলো স্বপ্ন ছুঁই’ এর পক্ষ থেকে খাদ্য ও অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়। রংপুর শহরে ২৫০০০ মাস্ক বিতরণ করা হয়। এছাড়াও প্রতিবন্ধীদের হুইল চেয়ার প্রদান, কর্মক্ষম মানুষের আয়ের পথ সৃষ্টির জন্য হাঁস-মুরগি, গবাদি পশু, সেলাই মেশিন প্রদানের কাজ করছে চলো স্বপ্ন ছুঁই। এখন পর্যন্ত ৬৫ এর বেশি অসহায় পরিবারকে স্বাবলম্বী করতে পেরেছে চলো স্বপ্ন ছুঁই। ‘চলো স্বপ্ন ছুঁই’ এর নারী স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে নারীদের স্বাস্থ্য রক্ষায় অসহায় পরিবারের ঘরে ঘরে স্যানিটারি ন্যাপকিন সরবরাহ করা হয়।

গত বছর মার্চ মাস থেকে এখন পর্যন্ত ৫৫ টির বেশি ইভেন্ট আমরা সফলভাবে সম্পন্ন করেছি, আরও বেশ কিছু ইভেন্ট চলমান রয়েছে। সমাজের সুবিধাবঞ্চিত শ্রেণির মানুষের স্বপ্ন পূরণই আমাদের কাজের লক্ষ্য। অসহায় মানুষদের স্বপ্ন পূরণের জন্য কাজে করে যাচ্ছি আমরা। আমাদের এই উদ্যোগে উপকার ভোগ করেছেন সমাজের অসংখ্য মানুষ"। অসহায় এই মানুষ গুলো এই সমাজেরই অংশ। তাই তাদের পাশে দাড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। তাই "চলো স্বপ্ন ছুঁই" এর প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও শুভকামনা জানাই।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ