About Us
Sajib Rajbhar
প্রকাশ ০১/০৫/২০২১ ০৬:১৪পি এম

করোনা মোকাবেলায় ভারতের পাশে চীন

করোনা মোকাবেলায় ভারতের পাশে চীন Ad Banner

বিশ্বজুড়ে ত্রাস সৃষ্টি করেছে করোনাভাইরাস। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল ভারত। এহেন পরিস্থিতিতে শত্রুতা ভুলে এই মারণ ভাইরাসটিকে রুখতে নয়াদিল্লির পাশে দাঁড়িয়েছে চীন। আপাতত পণ্য সরবরাহ ও বিমান চলাচল বজায় রাখতে সহমত হয়েছে দুই পড়শি দেশ।

শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) করোনা পরিস্থিতি নিয়ে চীনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই’র সাথে ফোনে আলোচনা করেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর। মহামারীর পরিস্থিতিতে নয়াদিল্লির পাশে থাকার বার্তা দিয়ে চীন জানিয়েছে যে ওষুধ তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ কাঁচামাল ও অন্য সরঞ্জামের জোগান নিয়মিত রাখতে আপাতত দুই দেশের মধ্যে পণ্য সরবরাহ বজায় থাকবে। বিমান পরিষেবাও বন্ধ করা হবে না। 

ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রণালয়ের তরফে দেয়া বিবৃতিতে জানানো হয়েছে যে, ‘চীনা সংস্থাগুলো থেকে চিকিৎসা সরঞ্জাম ও কাঁচামাল কেনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে ভারতীয় বাণিজ্যিক সংস্থাগুলো। তবে এর জন্য পণ্য সরবরাহে বাণিজ্যিক পরিবহন ব্যবস্থা খোলা রাখতে হবে। করোনা রুখতে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় বলে চিনকে জানিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী জয়শংকর।

ভারতীয় বিদেশমন্ত্রী আরো জানিয়েছে যে, জয়শংকরের প্রস্তাবে সম্মত হয়েছে চীন। করোনাকে মানবজাতির শত্রু হিসেবে আখ্যা দিয়ে যৌথভাবে লড়াই চালানোর আশ্বাস দিয়েছেন চীনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই। তিনি জানিয়েছেন, ওষুধ তৈরির জন্য ভারতে কাচামালের জোগান নিয়মিত থাকবে।

উল্লেখ্য, কয়েক দিন আগে করোনা সংক্রমণের অছিলায় ভারতে পণ্য পরিষেবা বন্ধ করে দেয়ার কথা ঘোষণা করেছিল চীনের সরকারি বিমানসংস্থা। তা নিয়ে দুই দেশের মধ্যে চাপানউতোর শুরু হয়। অবশেষে অবস্থান বদলে নয়াদিল্লির পাশে থাকার বার্তা দেয় বেজিং। দু’দিন আগেই এদেশে ২৫ হাজার অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর পাঠানোর কথা ঘোষণা করে চীন। ভারতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত সান ইউডন টুইট করে এ কথা জানান। সব মিলিয়ে করোনা মহামারীর মোকাবেলা করতে আপাতত শত্রুতা ভুলে হাত মিলিয়েছে দুই দেশ।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ