About Us
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Md.Shahidul Islam - (Bandarban)
প্রকাশ ০১/০৫/২০২১ ০১:২৬এ এম

নাম্বারবিহীন, অবৈধ মোটরসাইকেল

নাম্বারবিহীন, অবৈধ মোটরসাইকেল Ad Banner

বান্দরবানের লামা উপজেলায় বর্তমানে নাম্বার বিহীন ও অবৈধ উপায়ে কেনা মটরসাইকেলের ব্যাপক ব্যবহার লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

সরেজমিনে এ বিষয়টি পর্যবেক্ষনের ফলে চাঞ্চল্যকর বিভিন্ন তথ্য উঠে এসেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় জনসাধারনের সাথে কথা বললে তারা জানায় লামা পৌর এলাকায় বিভিন্ন সমিতি ও আজিজনগর যুব কল্যাণ সমিতির সদস্যদের নামে এ সকল নাম্বারবিহীন মোটর সাইকেল ব্যবহৃত হচ্ছে। প্রশাসনের অগোচরে এ সকল সমিতির সদস্যরা যাত্রি পরিবহনে ব্যবহার করছে নাম্বারবিহীন মোটর সাইকেল। কিন্তু বেশিরভাগ চালক অদক্ষ হওয়াতে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা।

দুর্ঘটনার শিকার হয়ে আহত বা নিহত কোন ব্যক্তি বা ব্যক্তিনীকে নামধারী এ সকল সমিতির পক্ষ থেকে দেয়া হচ্ছে না চিকিৎসা খরচ। যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে ভাড়া নির্ধারনে মানা হচ্ছে না কোন নিয়মনীতি। যে যেই ভাবে পারে, যার থেকে তাদের ইচ্ছে মত যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া আদায় করছে। ভুক্তভোগিরা অভিযোগ করে বলেন চালকদের ইচ্ছামত ভাড়া না দিলে, যাত্রীদের সাথে র্দুব্যবহার করে এবং কোন কোন ক্ষেত্রে অনেক যাত্রীকে মারধরের ঘটনার খবরও পাওয়া যায়।

নিয়মনীতির কিছুমাত্র তোয়াক্কা না করে সমিতির নামে প্রতিনিয়ত যাত্রীদেরকে হযরানি করার ঘটনায়, ভুক্তভোগি যাত্রী মটর সাইকেল চালকের বিরুদ্ধে খারাপ আচরণ অথবা যাত্রীকে মারধরের ঘটনা ঘটলে, এ বিষয়ে সমিতির নিকট মৌখিক বা লিখিত অভিযোগ করলেও পাওয়া যায় না কোন প্রতিকার বা সুবিচার। বরং সমিতির সদস্যদের দ্বারা যাত্রীকে হতে হয় হয়রানির শিকার।

গোপন তথ্য সুত্রে আরো জানা যায়, নাম্বারবিহীন অবৈধ মোটরসাইকেল এর মাধ্যমে বিশেষ করে রাতের বেলা মাদক চোরাচালান, অবৈধ ব্যবসা, মদ, গাজা, ইয়াবাসহ আরো অনেক নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য পরিবহন ও বিক্রয় করা হয়। তাই উপজেলার বসবাসকারী স্থানীয়দের দাবি, অবৈধ, নাম্বারবিহীন মোটর সাইকেল এবং অপ্রাপ্ত বয়সের নাবালক ছেলেদেরকে দিয়ে চালানো মটর সাইকেল এর বিরুদ্ধে যতদ্রুত সম্ভব আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করতে হবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ