About Us
Md. Ibrahim - (Bhola)
প্রকাশ ০১/০৫/২০২১ ০১:৩৩এ এম

এবার চিনের সিনোভ্যাক টিকার অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ

এবার চিনের সিনোভ্যাক  টিকার অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ Ad Banner

রাশিয়ার স্পুটনিক ভি'র পর এবার চীনের সিনো ফার্মার ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিল ঔষধ প্রশাসন। কারো মধ্যস্থতায় নয় সরাসরি এই দুই টিকা কিনবে সরকার। তৈরি হবে বাংলাদেশেই। এই সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

পাশাপাশি ভারত থেকে অন্তত ২০ লাখ ডোজ টিকা দ্রুত পাওয়ার আশা ছাড়েনি সরকার।     

প্রথম ডোজ পাওয়া ৫৭ লাখ এর মধ্যে অন্তত ২০ লাখ মানুষের দ্বিতীয় ডোজ অনিশ্চিত এখনো। মজুদ দিয়ে চলবে আর দু সপ্তাহের মতো। এমন অবস্থায় দ্বিতীয় ডোজ চলমান রাখতে সেরাম ইনস্টিটিউট ও ভারত সরকারের সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে ঢাকা। ভারতের এই পরিস্থিতিতেও আশা অন্তত ২০ লাখ ডোজ টিকা মিলবে শিগ্রই।   

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, সেরাম যে ’র’ মেটারিয়াল পাচ্ছিল সেটাও সরবরাহ কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে বন্ধ ছিলো। সেটা আবার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিশ্চিত করেছেন যে তারা সরবরাহ করবেন। এতে তাদের প্রোডাকশনে বাড়বে। সেকেন্ড ডোজের যে ব্যালেন্স নাম্বারটা যতজনকে প্রথম ডোজ দিয়ে দেওয়া হয়েছে সেটা অন্তত পক্ষে আমরা ভারত থেকে পাব। এটা আমার দৃঢ় বিশ্বাস।   

আর রাশিয়া থেকে ’স্পুটনিক ভ’ পাওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত। বুধবার অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে রাশিয়ার পাশাপাশি চিন থেকেও টেন্ডার ছাড়া অর্থাৎ সরাসরি টিকা কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। এই দু দেশের টাকা দেশে উৎপাদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, চীন রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র থেকে টিকা আনতে তৎপরতা চলছে। এর মধ্যে সবার আগে রাশিয়া টিকাই দেশে পৌঁছাবে বলে জানান, প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তাই টিকা নিয়ে তেমন সংকট হবেনা বলে দাবি তার। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে এ পর্যন্ত চুক্তির ৭০ লাখ ডোজ টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। ফেব্রুয়ারির পর আসেনি ভ্যাকসিনের কোন চালান।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ