About Us
rafiqul islam - (Shariatpur)
প্রকাশ ৩০/০৪/২০২১ ১০:৫৬পি এম

সৌদি আরবের শান্তির উদ্যোগকে স্বাগত জানাল ইরান

সৌদি আরবের শান্তির উদ্যোগকে স্বাগত জানাল ইরান Ad Banner

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল আলারাবিয়াকে এক সাক্ষাৎকারে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, ইরান হচ্ছে সৌদি আরবের প্রতিবেশী দেশ এবং তাঁর সঙ্গে ভালো সম্পর্ক থাকা উচিত। দিনশেষে ইরান হচ্ছে আমাদের প্রতিবেশী দেশ। আমরা সবাই ইরানের সঙ্গে ভালো ও মর্যাদাপূর্ণ সম্পর্ক চাই।   

সৌদি আরবের যুবরাজের এ বক্তব্যের পরে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মুখপাত্র সাইদ খতিবযাদে এ বিষয়ে ইরানের বক্তব্য স্পষ্ট করলেন, সম্প্রতি ইরান সম্পর্ক সৌদিআরব যে শান্তির উদ্যোগের কথা বলেছে তাকে আমরা স্বাগত জানাই। ইরান ও সৌদি আরব দুটি আঞ্চলিক গুরুত্বপূর্ণ শক্তি এবং তাঁরা তাঁদের সম্পর্ক পুনর্নির্মাণ করতে পারে।   

গতকাল ২৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাতে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আরো বলেন, গঠন মূলক দৃষ্টিভঙ্গি ও সংলাপের মধ্য দিয়ে আঞ্চলিক ও মুসলিম বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ দেশ দুটি তাদের মতভেদ দূর করতে পারে এবং সম্পর্ক ও সহযোগিতার নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করতে পারে। এই সম্পর্ক ও সহযোগিতার মধ্য দিয়ে আঞ্চলিক শান্তি, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়ন আনা সম্ভব। এ সময় তিনি ইরানের পক্ষ থেকে হরমুজ পিস ইনিশিয়েটিভের কথা উল্লেখ করেন।   

উল্লেখ্য, ইরানের সঙ্গে সৌদি আরবের খানিকটা দুর্বল কূটনৈতিক সম্পর্ক থাকলেও ২০১৬ সালে সৌদি সরকার তা ছিন্ন করে। সে সময় সৌদি আরবের শীর্ষ পর্যায়ের শিয়া আলেম আয়াতুল্লাহ শেখ নিমর আল নিমরকে ফাঁসি দেয় রিয়াদ।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ লোকজন তেহরানে অবস্থিত সৌদি দূতাবাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। এরপর থেকে সৌদি আরব ইরানের সঙ্গে শত্রুভাবাপন্ন মনোভাব পোষণ করতে থাকে। তবে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ইরানের প্রতি নরম সুর থেকে ধারণা করা হচ্ছে, সৌদি আরবের যে অবস্থান ছিল তা এখন পরিবর্তন আসতে পারে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ