About Us
শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Md. Ibrahim - (Bhola)
প্রকাশ ৩০/০৪/২০২১ ১১:১৬এ এম

পিতার সম্পদ হাতে পেতে ১ লাখ কোটি টাকা কর দিচ্ছে ৩ সন্তান

পিতার সম্পদ হাতে পেতে ১ লাখ কোটি টাকা কর দিচ্ছে ৩ সন্তান Ad Banner

প্রায় ১ লাখ কোটি টাকা করে দিচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ার খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। এত বিপুল অর্থ কর আদায়ের ঘটনায় পুরো বিশ্বের রেকর্ড। প্রায়াত লি কুন হির এই কোম্পানির উত্তরাধিকারী অধিকার পেতে তার তিন সন্তান অর্থ পরিশোধের ঘোষণা দিয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার আইন অনুযায়ী সম্পত্তির উত্তরাধিকার পেতে হলে ৬০ শতাংশ কর দিতে হয়।     

আয় ও সম্পদের নানা ধরনের কর প্রচলিত থাকলেও উত্তরাধিকার করের ধারণা অনেক বেশি নেই। পূর্বসূরী সম্পাদ্যের অংশ পেতে হলে একটি নির্দিষ্ট অংশের দেয়ার বিধান যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেনসহ উন্নত অনেক দেশেই। দক্ষিণ কোরিয়া এই উত্তরাধিকার করের হার বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ। আর ব্যতিক্রমী সে কর নিয়ে আলোচনায় বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। সম্পদের উত্তরাধিকারী হতে এর প্রায়াত চেয়ারম্যান লি কুন হির পরিবারের সদস্যদের পরিশোধ করতে হবে প্রায় ১১ কোটি মার্কিন ডলার। যা দক্ষিণ কোরিয়ায় সারা বছরের সম্পদ থেকে পাওয়া মোট করের তিনগুন। মৃত্যুর সময় দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ লি কুন হি রেখে গেছেন অন্তত দুই হাজার ১০০ কোটি ডলারের সম্পদ। এর উত্তরাধিকার তার স্ত্রী এবং তিন সন্তান।

গত বুধবার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয় নাগরিক দায়িত্ব হিসেবে পরিশোধ করবেন এই কর। শুধু তাই নয় লি কুন হির সংগ্রহে থাকা ২৩০০০ শিল্পকর্ম রাষ্ট্রীয় সংগ্রহশালা ও জাদুঘরে দান করার ঘোষণা দিয়েছে পরিবার। কোটি ডলার মূল্যের মধ্যে আছে পাবলো পিকাসো সালভাদর দালিসহ শিল্পীদের চিত্রকর্ম।   দক্ষিণ কোরিয়ার ক্রীড়া ও সংস্কৃত মন্ত্রী হোয়াং হি রাষ্ট্রিয় টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাতকারে বলেন,  একেবারেই স্বেচ্ছায় করের অর্থ পরিশোধ করছেন স্যামসাংয়ের প্রাতঃ চেয়ারম্যানের উত্তরাধিকারীরা। লি কুন হির সংগ্রহে থাকা বিশাল শিল্পকর্ম দান করা হবে। এটা বিরাট বিষয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার সংস্কৃতি বিকাশে এই অনুদান বড় ভূমিকা রাখবে। শুধু করের বাধ্যবাধকতা পুরনি নয় বাবার স্মৃতি রক্ষা মানবকল্যাণে অতিরিক্ত আরো ৯০ কোটি ডলার অনুদানের ঘোষণা দিয়েছে লি কুন হির পরিবারের সদস্যরা। ক্যান্সার এবং সংক্রামক ব্যাধির বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণ ব্যয় হবে এই টাকায়।    ইলেকট্রনিক্স পণ্যের জয়ান্ট হিসেবে স্যামসাংয়ের উত্থানের নায়ক মনে করা হয় লি কুন হিকে। গেল শতকের ত্রিশের দশকে বাবা লিবি অংচলের হাতে প্রতিষ্ঠিত স্যামসাং শুরুতে সবজি ওষুধ বিক্রির ব্যবসা করত। বাবার মৃত্যুর পর এর দায়িত্ব নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি মোড় ঘুরিয়ে দেন লি কুন হি।

বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির মূল্য প্রায় ২১০ মিলিয়ন ডলার।  অবশ্য দক্ষিণ কোরিয়ার সবচেয়ে ক্ষমতাধর পরিবার নিয়ে বিতর্ক কম নেই। গেল জানুয়ারিতে লির ছেলে লি জে ইয়ংয়ের জেল হয় ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে। বলা হয় অবৈধ সুবিধা নিতে দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্টকে ঘুষ দেন তিনি। ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের জন্য এখন বিশাল অনুদান দেয়া হচ্ছে বলেও দাবী অনেকের। গেল অক্টোবরের মারা যান লি কুন হি।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ