About Us
শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
alif ajgor shobuj
প্রকাশ ২৭/০৪/২০২১ ১১:৫০পি এম

কুষ্টিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে অবরুদ্ধ কৃষক

কুষ্টিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে অবরুদ্ধ কৃষক Ad Banner

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার মালিহাদ ইউনিয়নের গোপীনাথপুর পাগলা এলাকায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক কৃষক পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে মিরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী কৃষক রমজেদ আলী মন্ডল । 

জানাযায়,কৃষক রমজেদ আলী মন্ডলের পিতা মৃত ভিকু মন্ডল মৃত্যুর আগে প্রায় ১১.০৪ একর জমি রেখে যান । যা পরবর্তীতে ভিকু মন্ডলের দুই ছেলে রমজান আলী,রমজেদ আলী ও এক কন্যা রিকাতন নেছা ওয়ারিশ সূত্রে ভোগদখলকারী হন।  কিন্তু ২০২০ সালের ২৩ আগস্ট স্থানীয় আইন উদ্দিন মন্ডল নামের এক ব্যাক্তি হঠাৎ করেই জানান তার বড় ভাই রমজান আলীর ভোগদখলে থাকা ০.১২৯৫ একর জমি মাত্র দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার  টাকার বিনিময়ে তিনি কিনে নিয়েছেন বলে দাবি করেন এবং সেটি অতিস্বত্তর তার দখলে নেবেন বলে হুমকি দেন।পরে ভূক্তভোগী কৃষক রমজেদ আলী মিরপুর সাবরেজিস্ট্রি অফিসে দলিলের সহি মহরি নকল তুলে দেখতে পান নাম পত্তন কেস নং-৫১৩২/৯-১/০৮-০৯ সাল হোল্ডিং নং-১৫৫৮ এবং আর এস খারিজ খতিয়ান নং-৯২১/১ লিখিত থাকলেও কথিত নাম পত্তন কেসে কৃষক রমজেদ আলীকে কোন পূর্ব নোটিশ করা হয়নি।

এরপর ভুক্তভোগী ঐ কৃষক  মিরপুর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে রাষ্ট্রীয় অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইনের ৯৬ ধারায় প্রিয়েমশন মূল্যে পেতে আবেদন করেন।   ভুক্তভোগী কৃষক রমজেদ আলী জানান, এই আবেদন করার পর থেকেই ক্রয় সূত্রে মালিকানা দাবীদার আইন উদ্দিন মন্ডল ও তার সহযোগীরা অব্যাহত ভাবে নানা ভয়ভীতি ও হুমকি ধামকী দিয়ে যাচ্ছে ।

ভয়ে রাস্তাঘাটে হাটে বাজারে আমার পরিবারের সদস্যরা বের হতে পারছে না। কখন কি হয়ে যায় তা নিয়ে  একরকম অনিশ্চয়তা ও আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি আমরা। 

ভুক্তভোগী কৃষকের ছেলে জাহিদ হাসান জানান, আমরা আইনি প্রকৃয়ায় বিষয়টি নিস্পত্তির জোর চেস্টা চালাচ্ছি। আমরা জমিটি ফিরে পেতে চালানের মাধ্যমে জমির বিক্রয় মূল্য দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা, তদূপরি ২৫% ক্ষতি পুরনের বাষট্টি হাজার পাঁচশ টাকা ও বার্ষীক সরল সুদ ৮% হারে এক হাজার তিনশত সত্তুর টাকাসহ মোট তিন লক্ষ তের হাজার আটশত সত্তর টাকা আদালতের মাধ্যমে জমা দিয়েছি।কিন্তু জমির ক্রেতা আইন উদ্দিন কিছুতেই তা মানতে চাচ্ছে না। তিনি ও তার সহযোগীরা আমাদের এক প্রকার অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তারা রাতের আঁধারে জমিটি দখলের পায়তারা করছে। 

এবিষয়ে অভিযুক্ত আইন উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি  নালীশি ঐ জমি রমজেদ আলীর ভাই রমজান আলীর কাছ থেকে কিনেছি। আমরা কাউকে কোন প্রকার ভয়ভীতি দেখাচ্ছি না। এলাকার মন্ডল মাতব্বররা বিষয়টি সুরাহার চেষ্টা করছে। 

এবিষয়ে মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক আমি ফোর্স পাঠিয়েছি। বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ