About Us
MD.KAMRUZZAMAN SOHAG - (Kushtia)
প্রকাশ ২৭/০৪/২০২১ ১২:২৬পি এম

দোকানে ছিচকে চুরি করে ধরা খেলেন দুই কূটনীতিক

দোকানে ছিচকে চুরি করে ধরা খেলেন দুই কূটনীতিক Ad Banner

পেশায় দুজনেই কূটনীতিক। দায়িত্ব পালন করছেন বিদেশের মাটিতে। সেখানে তারা দেশর ভাবমূর্তি উজ্জ্বল ও স্বার্থোদ্ধার করবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সেসব বাদ দিয়ে যদি ছিচকে চুরি করে ধরা খান তো কেমন লাগে!  ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। সেখানকার একটি স্টোর থেকে চকলেট আর হ্যাট চুরি করে ধরা খেয়েছেন দুই পাকিস্তানি কূটনীতিক। সিউলে পাকিস্তান দূতাবাসের দুই কূটনীতিককে চিহ্নিত করেছে দেশটির পুলিশ। 

সিউলের ইয়ংশান ডিস্ট্রিক্টের স্টোর থেকে যেসব মালামাল তারা চুরি করেন তার মূল্য মাত্র ১১ দশমিক ৭০ মার্কিন ডলার বা প্রায় ১ হাজার বাংলাদেশি টাকা।  পুলিশ জানায়, দেশটির রাজধানী সিউলের একটি স্টোরে পৃথক দিনে দুটি চুরির ঘটনা ঘটে। এই চুরির ঘটনায় জড়িত হিসেবে দুই ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। তারা রাজধানী সিউলে অবস্থিত পাকিস্তান দূতাবাসের কূটনীতিক।  স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে, পাকিস্তানি দুই কূটনীতিকের মধ্যে একজন দশ ডলারের একটি টুপি (হ্যাট) চুরি করেছেন। অন্যদিন অপর এক পাকিস্তানি কূটনীতিক চুরি করেছেন ১ দশমিক ৭০ ডলারের একটি চকলেট।

  সিউলের ইংশান ডিস্ট্রিক্টের ইতায়েওন এলাকার ওই স্টোরটিতে প্রথম চুরির ঘটনাটি ঘটে গত ১০ জানুয়ারি। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় চুরির ঘটনাটি ঘটে। হ্যাট চুরি যাওয়ার পর স্টোরের এক কর্মী পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ দেখে সন্দেহভাজন চোর শনাক্ত করে। তাতে দেখা যায়, দুটি চুরির ঘটনার সঙ্গে সিউলে নিযুক্ত পাকিস্তানের দুইজন কূটনীতিক জড়িত।  সিউলে পাকিস্তান দূতাবাসের ৩৫ বছর বয়সী এক কূটনীতিক হ্যাটটি চুরি করেছেন। তবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে সমঝোতার মাধ্যমে মামলাটি নিষ্পত্তি করে পুলিশ। কারণ ভিয়েনা কনভেনশন অনুযায়ী কূটনীতিকরা দায়মুক্তি পেয়ে থাকেন।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ