About Us
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
এম.এ হান্নান
প্রকাশ ২৪/০৪/২০২১ ০৫:৩০পি এম

নাতিকে বাঁচাতে গিয়ে দাদি আহত

নাতিকে বাঁচাতে গিয়ে দাদি আহত Ad Banner

বাউফলে জমিজমা নিয়ে পূর্ব বিরোধের জেরে মাতৃহারা এক কিশোরীকে শারিরিক নির্যাতন করেন  প্রতিক্ষের লোকজন। নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরীকে তাঁর দাদি বাঁচাতে আসলে তাকেও মারধর করা হয়। লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে ভেঙে ফেলা হয় হাত।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে এমন ঘটনা ঘটে উপজেলার বগা ইউনিয়নের চাঁদপাল গ্রামে।  এঘটনায় শনিবার বাউফল থানায়  লিখিত অভিযোগ করেন ওই কিশোরীর বাবা মো. মোজাম্মেল হাওলাদার (৪০)।   স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্র থেকে জানা যায়, বগা ইউনিয়নের চাঁদপাল গ্রামের মৃত হেমায়েত মুন্সির ছেলে  আ. মোতালেবের (৫৫) সাথে একই বাড়ির মৃত আলতাফ হোসেনের ছেলে মো.মোজাম্মেল হোসেনের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছে। ঘটনার দিন তুচ্ছঘটনাকে কেন্দ্র করে মোজ্জামেল হোসেনের মেয়ে মোসা. রোজিনার (১৫) সাথে মোতালেবের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় মোতালেব, স্ত্রী খাদিজা বেগম (৪৫)  ও তার ছেলে মেয়েরা রোজানিাকে ব্যাপক  মারধর করেন। 

এসময় মনোয়ারা বেগম (৬০) তাঁর নাতি রোজিনাকে বাঁচাতে আসলে তাকেও মারধর করা হয়। লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে বাম হাতের হাড় ভেঙে ফেলে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন।   মো. মোজাম্মেল হোসেন বলেন,‘  আমার পৈত্রিক জমিজমা নিয়ে তাদের সাথে বিরোধ চলছে। আমার এবং আমার পরিবারের ক্ষতি করার জন্য লিপ্ত থাকে।  পেশাগত কারনে আমি বরিশালে থাকি। বাড়িতে আমার মা ও মেয়ে থাকে। ঘটনার দিন তারা আমার মেয়ে মারধর করে। এবং হত্যার উদ্দেশ্যে গলা চিপে ধরে। চিৎকার শুনে বৃদ্ধ মা তাকে বাঁচাতে আসলে তাকেও মারধর করা হয়। লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙে ফেলেন।   

এবিষয়ে বাউফল থানার ওসি তদন্ত মো. আল মামুন বলেন,‘ তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ