MD. ABDUL KADER - (Lakshmipur)
প্রকাশ ০৭/০৪/২০২১ ০৬:১২পি এম

লক্ষ্মীপুরে এলজিইডি’র কাজে ব্যপক অনিয়মের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরে এলজিইডি’র কাজে ব্যপক অনিয়মের অভিযোগ Ad Banner

খাসেরহাট বাজার সংলগ্ন বেড়ী থেকে মোল্লারহাট পর্যন্ত সড়কের সংস্কার না করায় দীর্ঘদিন থেকে দুর্ভোগে পোহাতে হয়েছে স্থানীয়দের সম্প্রতি দুর্ভোগ লাগবে উদ্যোগ নেয় গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান এলজিইডি গত ২৯ ডিসেম্বও কাজটির ওর্য়াক অর্ডারও দেওয়া হয় এবং ২৮ এপ্রিলের মধ্য কাজটি সম্পূর্ণ করতে বলা হয় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে

কাজ পাওয়ার পর থেকে নিম্মমানের পাথর ভিটুমিন ছাড়ায় রাস্তার কার্পেটিংয়ের কাজ করার অভিযোগ উঠেছে ঢাকার হাইড্রো ট্রেড নামের এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এতে একদিকে অর্থ লুট হচ্ছে সরকারের অন্যদিকে উন্নয়ন বঞ্চিত হচ্ছে স্থানীয়রা

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার খাসের হাট বাজার সংলগ্ন বেড়ী থেকে মোল্লারহাট পর্যন্ত সড়কটির সংস্কার কাজ করছেন আওয়ামী লীগ নেতা মানিক পাটোয়ারী তিনি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে কাজটি দেখাশুনা করছেন মানিক পাটোয়ারী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের মামা এদিকে অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল বিকালে সরোজমিনে পরিদর্শনে যান স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) লক্ষ্মীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ শাহ আলম পাটওয়ারী

তিনি প্রতিবেদককে বলেন, অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় সংস্কার কাজটি সাময়িক বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছি এলজিইডি জেলা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, রায়পুরের খাসের হাট বাজার সংলগ্ন বেড়ী বাঁধ থেকে মোল্লারহাট পর্যন্ত হাজার মিটার রাস্তাটির সংস্কার কাজে ট্রেন্ডার দেয় এলজিইডি কাজটিতে বরাদ্ধ করা হয়েছে কোটি ৮৩ লাখ টাকা এরমধ্যে ৪৫ লাখ ৪৫ হাজার ৩৫১ টাকার ৭৫ পঁয়সা খোয়া ধরা হয়েছে ৬৭ হাজার ৪৮৮ টাকার বালু ধরা হয়েছে এছাড়া দেড় ইঞ্চি কার্পেটিং ধরা রয়েছে ১৬,১২, পাথর ডাস পাথর ধরা হয়েছে ২৯ ডিসেম্বর থেকে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত কাজের সময়সীমা নির্ধারিত করা হয়

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, রাস্তায় নতুন কোন খোয়া দেওয়া হয়নি এছাড়া রাস্তার পাশ থেকেই গর্ত করে মাটি কেটে ফুটপাত বাধাঁনো হয়েছে কার্পেটিং করা হচ্ছে ভিটুমিন ছাড়া তবে কয়েকটি স্থানে নামমাত্র ভিটুমিন ব্যবহার করেছে ঠিকাদার তাছাড়া মরা পাথার (নিম্মমানের) দিয়ে কাজ করছে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ঠিকাদার সরকার দলীয় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের আত্মীয় হওয়ায় ভয়ে স্থানীয়রা প্রতিবাধ করছেন না

এজন্য তারা সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ যান সিএনজি চালক রুবেল হোসেন বলেন, সরকার উন্নয়ন করছে গ্রামীণ অঞ্চলের মানুষের সুবিধার্থে কিন্তু নিম্মমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে রাস্তাটি করায় সুবিধার চেয়ে অসুবিধায় হবে বেশি কয়েক মাসের ব্যবধানে রাস্তার কার্পেটিংগুলো উঠে যাবে এতে একদিকে স্থানীয়রা যেমন বঞ্চিত হবে যথাযথ উন্নয়ন থেকে, তেমনি অর্থ লুট হবে সরকারের মানিক পাটোয়ারী জেলা আওয়ামী লীগ নেতার আত্মীয় আর এর প্রভাব খাটিয়ে নিজেদের লাইসেন্সে কাজ না পেলেও, অতিরিক্ত লেস দিয়ে কাজ নিয়ে যান

পরবর্তীতে নিজেদের ইচ্ছেমত উন্নয়ন কাজ করেন কর্নপাত করেন না সংশ্লিষ্ট দপ্তরের নির্দেশনা আবার প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতার আত্মীয় হওয়ায় স্থানীয়রাও প্রতিবাধ করেন না তেমনিবাবে এলজিইডির অনেক কর্মকর্তারাও তাদের অনিয়ম দেখেও না দেখার ভান করে থাকেন কথাগুলো প্রতিবেদককে বলেছেন, নাম প্রকাশ না করা শর্তে কয়েকজন ঠিকাদার

এবিষয়ে ঠিকাদার মানিক পাটওয়ারী সাথে মুঠোফোনে একাধিক বার চেষ্টা করেও মন্তব্য নেওয়া যায়নি জানতে চাইলে লক্ষ্মীপুর এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ শাহ আলম পাটওয়ারী বলেন, অনিয়মের প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে কাজটি সাময়িক বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছি এবং সরেজমিনে পরিদর্শন করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ